৬ বলে ৬ ছক্কা হজমের পর ইফতিখারের প্রশংসায় ওয়াহাব

বিপিএলে আগ্রাসী ব্যাটিংয়ের ধারা পাকিস্তানে ফিরেও জারি রাখলেন ইফতিখার আহমেদ। তিনি কচুকাটা করলেন স্বদেশি বাঁহাতি পেসার ওয়াহাব রিয়াজকে। ওভারের ৬ বলের প্রতিটিতে ছক্কা হাঁকালেন মারকুটে ডানহাতি ব্যাটার।
ছবি: এএফপি

বিপিএলে আগ্রাসী ব্যাটিংয়ের ধারা পাকিস্তানে ফিরেও জারি রাখলেন ইফতিখার আহমেদ। তিনি কচুকাটা করলেন স্বদেশি বাঁহাতি পেসার ওয়াহাব রিয়াজকে। ওভারের ৬ বলের প্রতিটিতে ছক্কা হাঁকালেন মারকুটে ডানহাতি ব্যাটার।

পিএসএল মাঠে গড়ানোর আগে রোববার কোয়েটায় একটি প্রদর্শনী ম্যাচে মুখোমুখি হয় কোয়েটা গ্ল্যাডিয়েটর্স ও পেশোয়ার জালমি। স্বাগতিকদের হয়ে মাত্র ৫০ বলে অপরাজিত ৯৪ রানের বিস্ফোরক ইনিংস খেলেন ৩২ বছর বয়সী ইফতিখার। শেষ ওভারে ওয়াহাবের ওপর চড়াও হন তিনি। তার আগ্রাসনে আগে ব্যাট করে ৫ উইকেটে ১৮৪ রান তোলে সরফরাজ আহমেদের নেতৃত্বাধীন কোয়েটা।

ওভার দ্য উইকেট থেকে ওয়াহাবের করা প্রথম বলটি ছিল লো ফুলটস। স্কয়ার লেগ দিয়ে তা গ্যালারিতে পাঠান ইফতিখার। পরের বলটি মিডউইকেট দিয়ে চলে যায় সীমানার বাইরে। তৃতীয় বলটি ছিল ফুল লেংথ। ইফতিখার লং অফ দিয়ে মারেন ছক্কা। চতুর্থ বলটি রাউন্ড দ্য উইকেট থেকে করেন ওয়াহাব। কিন্তু ফল বদলায়নি। পয়েন্ট দিয়ে তা মাঠের বাইরে আছড়ে পড়ে। পরের দুটি ছক্কাও হয় একই অঞ্চল দিয়ে।

নিজে ধরাশায়ী হলেও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে ইফতিখারের প্রশংসায় মাতেন ওয়াহাব। গত মাসে পাঞ্জাবের তত্ত্বাবধায়ক সরকারের ক্রীড়ামন্ত্রীর দায়িত্ব পাওয়া ক্রিকেটার লিখেছেন, 'ইফতিখারের চমৎকার ব্যাটিং প্রদর্শনী। অবিশ্বাস্য সব শট এবং যে আধিপত্য সে দেখিয়েছে সেটা আশ্চর্যজনক। আমি হতাশ হলেও আপনার জন্য খুশি ভাই। এগিয়ে যান।'

শেষ ওভারের আগে ইফতিখারের রান ছিল ৪৪ বলে ৫৮। আর ওয়াহাব ৩ ওভারে ৩ উইকেট নিয়েছিলেন ১১ রান খরচায়। বেধড়ক মার খাওয়ার পর তিনি বোলিং শেষ করেন ৪ ওভারে ৪৭ রান দিয়ে।

প্রদর্শনী ম্যাচ হওয়ায় রেকর্ড বইতে উল্লেখ থাকবে না ইফতিখারের কীর্তির। স্বীকৃত টি-টোয়েন্টিতে ৬ বলে ৬ ছক্কা হাঁকানোর নজির স্থাপন করেছেন পাঁচজন। তারা হলেন যুবরাজ সিং, রস হোয়াইটলি, হজরতউল্লাহ জাজাই, লিও কার্টার ও কাইরন পোলার্ড।

লক্ষ্য তাড়ায় জয়ের আশা জাগিয়েছিল বাবর আজমের নেতৃত্বাধীন পেশোয়ার। ১০ ওভার শেষে তাদের সংগ্রহ ছিল ১ উইকেটে ১০৯ রান। কিন্তু পরবর্তীতে খেই হারিয়ে তাদেরকে থামতে হয় ৭ উইকেটে ১৮১ রানে। ফলে ৩ রানের দারুণ জয়ের স্বাদ পায় কোয়েটা।

বিপিএলে প্রথমবারের মতো খেলতে আসা ইফতিখার আছেন ফরচুন বরিশালের ডেরায়। এখন পর্যন্ত ব্যাট হাতে অসাধারণ নৈপুণ্য উপহার দিয়েছেন তিনি। আসরের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকদের তালিকায় যৌথভাবে আছেন তিনে। ১০ ম্যাচে ১৬১.৩৯ স্ট্রাইক রেট ও ৬৯.৪০ গড়ে তার রান ৩৪৭। একটি সেঞ্চুরির পাশাপাশি ফিফটি করেছেন তিনটি।

কোয়েটা ও পেশোয়ারের প্রদর্শনী ম্যাচের জন্য পাকিস্তানে ফেরা ইফতিখার আবার আসবেন বাংলাদেশে। বিপিএলে আগামী মঙ্গলবার কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের বিপক্ষে মাঠে নামবে সাকিব আল হাসানের নেতৃত্বাধীন বরিশাল।

পিএসএল শুরু হবে আগামী ১৩ ফেব্রুয়ারি। আসরটিকে সামনে রেখে দেশে ফিরে যাচ্ছেন পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা। তাদেরকে আগামী বুধবার পর্যন্ত বিপিএলে খেলার অনাপত্তিপত্র দিয়ে রেখেছে দেশটির ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)।

Comments

The Daily Star  | English

Quota protests: Trauma, pain etched on their faces

Lying in a hospital bed, teary-eyed Md Rifat was staring at his right leg, rather where his right leg used to be. He could not look away.

34m ago