বাংলাদেশের আরেকটি বিশাল হারে ম্লান জ্যোতির অর্জন

ইতিহাসের পাতায় ঠাঁই নিলেন অধিনায়ক নিগার সুলতানা জ্যোতি। নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশের প্রথম ব্যাটার হিসেবে করলেন হাফসেঞ্চুরি। কিন্তু বাকিরা কোনো সহায়তা না দেওয়ায় মিলল স্বল্প পুঁজি।
ছবি: এএফপি

ইতিহাসের পাতায় ঠাঁই নিলেন অধিনায়ক নিগার সুলতানা জ্যোতি। নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশের প্রথম ব্যাটার হিসেবে করলেন হাফসেঞ্চুরি। কিন্তু বাকিরা কোনো সহায়তা না দেওয়ায় মিলল স্বল্প পুঁজি। সেটা অনায়াসে পেরিয়ে বিশাল জয় পেল শক্তিশালী অস্ট্রেলিয়া।

মঙ্গলবার পোর্ট এলিজাবেথের সেন্ট জর্জ'স পার্কে বাংলাদেশ হেরেছে ৮ উইকেটের ব্যবধানে। টস হেরে আগে ব্যাটিংয়ে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেটে ১০৭ রান তোলে তারা। এরপর ১০ বল হাতে রেখে ২ উইকেটে ১১১ রান করে লক্ষ্য পূরণ করে অজিরা। আসরে এটি লাল-সবুজ জার্সিধারীদের টানা দ্বিতীয় হার।

দলনেতা জ্যোতি ছাড়া বাকি ব্যাটাররা হয় একেবারে ব্যর্থ। ফলে বাংলাদেশের ইনিংসের অর্ধেকের বেশি রানই আসে তার ব্যাট থেকে। ২৫ বছর বয়সী ডানহাতি তারকা চারে নেমে খেলেন ৫৭ রানের ঝলমলে ইনিংস। ৫০ বল মোকাবিলায় তিনি মারেন ৪ চার ও ১ ছক্কা।

ছবি: টুইটার

এমন সংগ্রহ নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে লড়াই জমানো কঠিন। অবিশ্বাস্য কিছু ঘটলেই কেবল ম্যাচের ফল হতে পারত অন্যরকম। তেমনটা ঘটতে দেননি অ্যালিসা হিলি ও মেগ ল্যানিং। ওপেনার হিলি ৩৬ বলে ৪ বাউন্ডারি ও ১ ছয়ে করেন ৩৭ রান। দলকে জিতিয়ে অধিনায়ক মেগ ল্যানিং অপরাজিত থাকেন ৪৮ রানে। ৪৯ বল খেলে তিনি মারেন ৪ বাউন্ডারি।

দলীয় ১১ রানে দুই ওপেনারকে হারিয়ে মহাবিপাকে পড়ে বাংলাদেশ। এরপর ঘুরে দাঁড়িয়ে তৃতীয় উইকেটে ৩১ ও চতুর্থ উইকেটে ৪৪ রানের জুটি আসে। সেখানে জ্যোতি অগ্রণী ভূমিকায় থাকলেও তার সঙ্গীরা ছিলেন খোলসবন্দি। সোবহানা মোস্তারি ১৭ বল খেলে করেন ৭ রান। স্বর্ণা আক্তার ব্যাট থেকে ১২ রান আসে ২৭ বলে। জ্যোতি বাদে তিনিই কেবল দুই অঙ্কে পৌঁছান।

ইনিংসের ১৬তম ওভারে ফিফটি স্পর্শ করেন জ্যোতি। সেজন্য তাকে খেলতে হয় ৪১ বল। ব্যক্তিগত ৪৪ রানে একবার জীবন পাওয়া জ্যোতি আউট হন ১৯তম ওভারে। নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশের হয়ে আগের সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত ইনিংস ছিল রুমানা আহমেদের। ২০১৪ সালের আসরে ঘরের মাঠে ৪১ রান করেছিলেন তিনি। সিলেটে অনুষ্ঠিত ওই ম্যাচে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ ছিল শ্রীলঙ্কা।

শেষ চার ওভারে ৪ উইকেট হারায় বাংলাদেশ। ফলে একশ পেরোতেই ধুঁকতে হয় দলকে। অজিদের হয়ে স্পিনার জর্জিয়া ওয়েরহ্যাম ২০ রানে নেন ৩ উইকেট। ২ উইকেট নিতে পেসার ডার্চি ব্রাউনের খরচা ২৩ রান।

লঙ্কানদের বিপক্ষে আগের ম্যাচে নজর কেড়ে নেওয়া পেসার মারুফা আক্তার এদিনও ছিলেন দুর্দান্ত। তৃতীয় ওভারে তিনি সাজঘরে ফেরান বেথ মুনিকে। তবে বাংলাদেশের উল্লাস স্থায়ী হয়নি। দ্বিতীয় উইকেটে হিলির সঙ্গে ৬৯ ও তৃতীয় উইকেটে অ্যাশলি গার্ডনারের সঙ্গে অবিচ্ছিন্ন ৩৩ রানের জুটিতে খেলা শেষ করে দেন ল্যানিং।

১৮ বছর বয়সী মারুফা চার ওভারে ১ উইকেট নেন ১৯ রান দিয়ে। ব্যাটিংয়ে হতাশ করা ১৬ বছর বয়সী স্বর্ণা পান জাতীয় দলের হয়ে প্রথম উইকেটের স্বাদ। তার স্পিনে ঘায়েল হন হিলি। দুই ওভারে তিনি দেন ১২ রান।

নিজেদের পরের ম্যাচে আগামী শুক্রবার নিউজিল্যান্ডের মুখোমুখি হবে জ্যোতির দল। কেপটাউনের নিউল্যান্ডসে খেলা মাঠে গড়াবে বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাতটায়।

Comments

The Daily Star  | English
reason behind AL MP Anwarul Azim's murder

MP Azim murder: Detectives to seek 10-day remand for 3 suspects

Amanullah, two other persons will be produced before court later in the day

40m ago