লড়াইয়ের আভাস কিউইদের

ফলোঅনে পড়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে ৩ উইকেটে ২০২ রান তুলে দিন শেষ করেছে নিউজিল্যান্ড। প্রথম ইনিংসে ২০৯ রানে গুটিয়ে যায় দলটি।

জেমস অ্যান্ডারসন ও জ্যাক লিচের বোলিং তোপে আগের দিনই এলোমেলো নিউজিল্যান্ডের প্রথম ইনিংস। এদিন অধিনায়ক টিম সাউদি প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করেন। তবে তার লড়াই থামিয়ে শেষ দিকে তোপ দাগান স্টুয়ার্ট ব্রড। তাতে ফলোঅনে পড়ে যায় দলটি। ইনিংস হার তখন চোখ রাঙাচ্ছিল। তবে দ্বিতীয় ইনিংসে টম লাথাম ও ডেভন কনওয়ের ব্যাটে লড়াইয়ে ফিরেছে দলটি।

ওয়েলিংটনের বেসিন রিজার্ভে রোববার ফলোঅনে পড়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে ৩ উইকেটে ২০২ রান তুলে দিন শেষ করেছে নিউজিল্যান্ড। প্রথম ইনিংসে ২০৯ রানে গুটিয়ে যায় দলটি। এখনও ২৪ রানে পিছিয়ে আছে তারা।

আগের দিনের ৭ উইকেটে ১৩৮ রান নিয়ে ব্যাটিংয়ে নামেন দুই অপরাজিত ব্যাটার টম ব্লান্ডেল ও অধিনায়ক সাউদি। অষ্টম উইকেটে ৯৮ রানের জুটি গড়েন এ দুই ব্যাটার।  যা ইনিংসের সর্বোচ্চ জুটি। এরপরই ব্রডের তোপে পড়ে দলটি। মাত্র ৮ রানের ব্যবধানে শেষ ৩ উইকেট হারিয়ে ফলোঅনে পড়ে যায় তারা।

প্রথম ইনিংসের শেষ তিনটি উইকেট এদিন একাই তুলে নেন ব্রড। সাউদিকে মিডউইকেটে জ্যাক ক্রাউলির ক্যাচে পরিণত করে ভাঙেন জুটি। এরপর ব্লান্ডেল ও হেনরিকে ফিরিয়ে গুটিয়ে দেন কিউইদের ইনিংস।

টি-টোয়েন্টি স্টাইলে ব্যাটিং করেন দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৭৩ রানের ইনিংস খেলেন সাউদি। ৪৯ বলে ৫টি চার ও ৬টি ছক্কায় নিজের ইনিংস সাজান অধিনায়ক। ৭৯ বলে ৫টি চারের সাহায্যে ৩৮ রান করেন ব্লান্ডেল। ইংল্যান্ডের পক্ষে ৬১ রানের খরচায় ৪টি উইকেট পান ব্রড। ৩টি করে শিকার অ্যান্ডারসন ও লিচের।

প্রথম ইনিংসে ২২৬ রানে পিছিয়ে থাকা নিউজিল্যান্ড দ্বিতীয় ইনিংসে দারুণ সূচনা করে। দুই ওপেনার লাথাম ও কনওয়ে ১৪৯ রানের জুটি। এ জুটি ভাঙেন লিচ। শর্ট লেগে ওলি পোপের ক্যাচে পরিণত করেন তাকে। স্কোরবোর্ডে আর ৬ রান যোগ হতে জো রুটের বলে এলবিডাব্লিউর ফাঁদে পড়েন লাথাম। আর উইল ইয়ংকে বোল্ড করেন দেন লিচ। ফলে ১৮ রানেই ৩ উইকেট হারিয়ে চাপ পড়ে দলটি। এরপর হেনরি নিকোলসকে নিয়ে দলের হাল ধরেন কেন উইলিয়ামসন। অবিচ্ছিন্ন ৩৫ রানের জুটি গড়ে দিন শেষ করেন তারা। 

সর্বোচ্চ ৮৩ রানের ইনিংস খেলেন লাথাম। ১৭২ বলে ১১টি চারের সাহায্যে এ রান করেন তিনি। ৬১ রান করেন কনওয়ে। ১৫৫ বলে ৬টি চার ও ১টি ছক্কায় নিজের ইনিংস সাজান তিনি। উইলিয়ামসন ২৫ ও নিকোলস ১৮ রানে উইকেটে আছেন। ইংল্যান্ডের পক্ষে ২টি উইকেট নিয়েছেন লিচ।

Comments