বাংলাদেশকে হারানোর 'হুমকি' আইরিশ অধিনায়কের

বাংলাদেশের মাটিতে কোনো জয় নেই আয়ারল্যান্ডের। ২০০৮ সালে বাংলাদেশ সফরে এসে তিন ম্যাচেই হেরেছিল দলটি।

'ওয়ানডে বা টি-টোয়েন্টিতে নিজেদের দিনে আমরা যেকোনো দলকে হারাতে পারি।' বাংলাদেশকে যে ছেড়ে কথা বলবেন না, তা এক প্রকার হুমকি দিয়েই জানিয়ে দিলেন আয়ারল্যান্ড দলের অধিনায়ক অ্যান্ডি বালবার্নে। এমনকি সেটা হতে পারে ৩-০ ব্যবধানেও। আর সেটা করতে পারলে দারুণ খুশি হবেন আইরিশ অধিনায়ক।

আগামীকাল শনিবার সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে স্বাগতিক বাংলাদেশের মুখোমুখি হবে আয়ারল্যান্ড। এ সিরিজের আগে উঠে আসে তাদের সাম্প্রতিক সময়ের পারফরম্যান্স নিয়ে। সীমিত ওভারের সংস্করণে দারুণ ক্রিকেট খেলছে দলটি। এইতো গত বছরই ক্যারিবিয়ানদের মাঠ থেকে ওয়ানডে সিরিজ জিতে ফিরেছে আয়ারল্যান্ড। এর আগের বছর দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষেও জিতেছে একটি ম্যাচ। মাঝেমধ্যে জয় পেলেও ধারাবাহিক নয় তারা। তবে এবার বাংলাদেশে সেটাই করে দেখাতে চায় দলটি।

তবে বাংলাদেশের মাটিতে কোনো জয় নেই আয়ারল্যান্ডের। ২০০৮ সালে বাংলাদেশ সফরে এসে তিন ম্যাচেই হেরেছিল দলটি। বাংলাদেশের মাটিতে না জিতলেও টাইগারদের হারানোর রেকর্ড রয়েছে আইরিশদের। ২০০৭ বিশ্বকাপে দুই দলের প্রথম মোকাবেলাতেই জয় পেয়েছিল তারা। এরপর বেলফেস্টে দ্বিপাক্ষিক সিরিজেও একটি ম্যাচ জিতেছে দলটি।

প্রায় দেড় দশক পর ফের বাংলাদেশের মাটিতে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলতে এসেছে দলটি। সাম্প্রতিক সময়ের সাফল্যে এবার তাদের লক্ষ্যটা অনেক বড়। বর্তমানে শক্তি ও সামর্থ্যে পিছিয়ে থাকলেও অভিজ্ঞতায় পিছিয়ে থাকাকেও দুই দলের মধ্যে বড় পার্থক্য মনে করছেন অধিনায়ক অ্যান্ডি বালবার্নে। 

বাংলাদেশের মাটিতে এবার উল্টো ৩-০ ব্যবধানে জয় তুলে নেওয়া লক্ষ্য কি-না জানতে চাইলে দলের অধিনায়ক বলেন, 'এটা আসলে- ওয়ানডে বা টি-টোয়েন্টিতে নিজেদের দিনে আমরা যেকোনো দলকে হারাতে পারি। এখন এটা ধারাবাহিকভাবে করতে পারাটাই চ্যালেঞ্জ। অধিনায়ক হিসেবে, দল হিসেবেও চ্যালেঞ্জ।'

তবে টাইগারদের অভিজ্ঞতাই দুই দলের মধ্যে বড় পার্থক্য দেখছেন আইরিশ অধিনায়ক, 'এই দলে (বাংলাদেশে) অনেক আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলেছে, আমাদের চেয়ে বেশি। তাদের অনেক অভিজ্ঞতা আছে। অনেক ছেলে ১০০ এর বেশি ওয়ানডে খেলেছে। যেটা আমাদের নেই। আমাদের তেমন নেই, দুজন আছে… তবে রোমাঞ্চকর একটা গ্রুপ আছে আমাদের। সেটাই এখন ওয়ানডে ক্রিকেটে দেখাতে হবে।'

তবে নিজেদের মতো খেলতে পারলে জয় তুলে অসম্ভব নয় বলেই জানান তিনি, 'আমরা এখনো বিশ্বকাপ নিশ্চিত করতে পারিনি, সেটা পারলে এখানে বিশ্বকাপে কী হতে পারে সেটার একটা আঁচ মিলবে এই সিরিজ থেকে। আমরা কোথায় আছি, সেটারও একটা ধারণা দেবে এই সিরিজ।

এটার জন্য অনেক বড় প্রচেষ্টার দরকার হবে আমাদের। এটা বলতে চাই না এ ধরনের ফল প্রত্যাশা করছি; কিন্তু হলে খুশি হবো। আমরা যদি একসঙ্গে এক সপ্তাহ ভালো ক্রিকেট খেলি, তাহলে সম্ভব।'

Comments

The Daily Star  | English

Secondary schools, colleges to open from Sunday amid heatwave

The government today decided to reopen secondary schools, colleges, madrasas, and technical education institutions and asked the authorities concerned to resume regular classes and activities in those institutes from Sunday amid the ongoing heatwave

52m ago