‘অ্যাশেজকে প্রদর্শনী সিরিজ বানিয়ে ফেলেছে ইংল্যান্ড’, বয়কটের সমালোচনা

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে অ্যাশেজের প্রথম টেস্টে রোমাঞ্চকর হারের পর ইংল্যান্ডের খেলার ধরণ নিয়ে উঠেছে প্রশ্ন। আলোচিত 'বাজবল' বুমেরাং হলো কিনা এই আলাপ জোরালো। তাতে যোগ দিয়েছেন সাবেক ইংলিশ অধিনায়ক স্যার জিওফ্রি বয়কটও।
ben stokes and brendon mccullum
কদিন আগে প্রশংসা পাচ্ছিলেন, এবার কড়া সমালোচনার মুখে স্টোকস-ম্যাককালাম।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে অ্যাশেজের প্রথম টেস্টে রোমাঞ্চকর হারের পর ইংল্যান্ডের খেলার ধরণ নিয়ে উঠেছে প্রশ্ন। আলোচিত 'বাজবল' বুমেরাং হলো কিনা এই আলাপ জোরালো। তাতে যোগ দিয়েছেন সাবেক ইংলিশ অধিনায়ক স্যার জিওফ্রি বয়কটও। কড়া সমালোচনা করে তিনি বলেছেন জেতার চেয়ে প্রদর্শনী করতে ব্যস্ত বেন স্টোকসের দল।

এজভাস্টনে পাঁচ দিনের রোমাঞ্চ থামে একদম শেষ বেলায়। তাতে ২ উইকেটে জিতে এগিয়ে গেছে অস্ট্রেলিয়া। ম্যাচ শেষে ইংল্যান্ডের প্রথম দিনেই ইনিংস ঘোষণা নিয়ে উঠে প্রশ্ন।

তবে স্টোকস ও কোচ ব্রেন্ডন ম্যাককালাম নিজেদের ধরণে কোন আপোষ করতে রাজী না। দুজনেই বলেন ম্যাচ হারলেও দর্শকরা বিনোদন পাওয়ায় তারা খুশি।

ব্রিটিশ দৈনিক দ্য টেলিগ্রাফে লেখা কলামে এই জায়গায় আপত্তি তুলেছেন বয়কট। তার কাছে জয়টাই মুখ্য,  'অ্যাশজকে প্রদর্শনী সিরিজ বানিয়ে ফেলেছে ইংল্যান্ড। তারা বাজবলের কৌশলেই আছে। মনে হচ্ছে ম্যাচ জেতার চেয়ে বিনোদন বেশি গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু ইংল্যান্ডের সমর্থকরা অন্য কিছুইর চাইতে অ্যাশেজই জিততে চায়।'

'দ্রুত রান আনা, অনেক চার-ছক্কা মারা দারুণ ব্যাপার। কিন্তু সেটা তখনই যখন ইংল্যান্ড অস্ট্রেলিয়াকে হারানো থেকে সরে না যায়। যতই বিনোদন পাই অস্ট্রেলিয়া যদি অ্যাশেজ নিয়ে দেশে চলে যায় তখন খুব খারাপ লাগবে আমাদের।'

বয়কটের মতে বিনোদন অবশ্যই দিতে হবে কিন্তু জয়ের রাস্তা থেকে সরে যাওয়ার ঝুঁকি নিয়ে নয়,  'ইংল্যান্ড যদি জেতার জন্য না খেলে প্রদর্শনী মনে করে, তবে  হবে না। আগে বিনোদন ও পরে জয়ের ব্যাপার এটা হতে পারে না। এখানে জয়টাই আসল।'

গত কয়েকমাস ধরে টেস্ট ক্রিকেটের ভাষা বদলে দিয়েছে ইংল্যান্ড। আগ্রাসী মেজাজে ব্যাট করে ওভারপ্রতি পাঁচের উপর রান তুলে অবাক করে দিচ্ছে তারা। আচমকা ইনিংস ছেড়ে দিয়ে হাঁটছে রোমাঞ্চকর পথে। ম্যাককালামের ডাক নামের সঙ্গে এই ধরণকে মিলিয়ে রাখা হয়েছে 'বাজবল'। বয়কটের মনে হচ্ছে এতে করে স্রেফ বাহবা পাওয়ার দিকে ঝোঁক বেড়ে গেছে স্টোকস-ম্যাককালামের,   'বেন স্টোকস ও ব্রেন্ডন ম্যাককালাম ইংল্যান্ডের মনোভাব বদলে দিয়েছেন। এজন্য বাহবা পাচ্ছেন। কিন্তু জয়ের চেয়ে কেবল প্রশংসা পাওয়ায় আগ্রহী হলে ভুল হচ্ছে।'

Comments

The Daily Star  | English

Bangladeshi students terrified over attack on foreigners in Kyrgyzstan

Mobs attacked medical students, including Bangladeshis and Indians, in Kyrgyzstani capital Bishkek on Friday and now they are staying indoors fearing further attacks

6h ago