সুস্থ থাকলে অনেক লিগ খেলতে পারবো: তাসকিন

টানা খেলার ধকল থেকে দূরে রাখতে সব লিগে এনওসি দেওয়া হচ্ছে না তাসকিনকে। তবে সুস্থ থাকতে পারলে সামনে আরও অনেক সুযোগ থাকবে বলে আশাবাদী এই পেসার।
Taskin Ahmed

আইপিএলে খেলার সুযোগ পেয়েও খেলতে পারেননি। এলপিএলে ডাক পেয়েও যাওয়া হচ্ছে না তাসকিন আহমেদের। কিন্তু বিদেশি ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে যে কতোটা কার্যকর হতে পারেন তা দেখিয়ে দিয়েছেন জিম-আফ্রো টি-টেন লিগে। কিন্তু টানা খেলার ধকল থেকে দূরে রাখতে সব লিগে এনওসি দেওয়া হচ্ছে না তাকে। তবে সুস্থ থাকতে পারলে সামনে আরও অনেক সুযোগ থাকবে বলে আশাবাদী এই পেসার।

তাসকিনের উত্থানটা ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ দিয়েই। বিপিএল দিয়েই নজরে আসেন। এরপর অল্প দিনের মধ্যেই হয়ে ওঠেন বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়। কিন্তু মাঝে ইনজুরিতে কাবু হয়ে উত্থান পতনের মধ্যেই গিয়েছে তার ক্যারিয়ার। সেই সময় পেছনে ফেলে ফের নিজেকে সেরার কাতারে তুলে আনেন। এখন তো অনেক বিদেশি লিগ থেকেও ডাক পাচ্ছেন।

কিন্তু আবার না ইনজুরিতে পড়ে যান, সেই ঝুঁকিতে তাসকিনকে নিয়ে বেশ সাবধানী বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। শ্রীলঙ্কান প্রিমিয়ার লিগ থেকে ডাক পেলেও এনওসি পাচ্ছেন না তিনি। তবে এ নিয়ে কোনো আক্ষেপ না রেখে সব মেনে নিয়েছেন এ ডানহাতি পেসারের।

জিম্বাবুয়ে থেকে আজ বিকেলে ঢাকা ফিরে বিমানবন্দরে তাসকিন বলেন, 'আল্লাহ সুস্থ রেখেছে এটাই সবচেয়ে বড় নিরাপদ। সুস্থ থাকলে অনেক লিগ খেলতে পারবো। আর প্লাস বোর্ড থেকে যেহেতু ডিসিশন নিয়েছে আমার এই মুহূর্তে ওয়ার্কলোড বেশি হয়ে যেতে পারে। প্লাস তারা কম্পোলসেশনেরও কথা বলেছে। ওভারঅল ঠিক আছে।'

শুধু শ্রীলঙ্কান লিগ না আরও অনেক লিগ থেকেও সুযোগ আসবে বলে বিশ্বাস করেন তিনি, 'সুযোগ তো শুধু লঙ্কান প্রিমিয়ার লিগ না, বিশ্বের সব লিগেই আসছে এখন অবধি। এভেইলেবেলিটিটাই ইস্যু। আল্লাহ যদি সুস্থ রাখে, দোয়া করেন সামনে আরও বড় বড় লিগে আসবে। আর সামনে আরও ভালো করতে পারি।'

মূলত জাতীয় দলের কথা এলপিএলে যাওয়া হচ্ছে না তার, 'আমাদের ওয়ার্কলোড ম্যানেজ করার আলাদা টিম আছে। তারা চিন্তা করেছে আমি যদি ওটা (এলপিএল) খেলে এশিয়া কাপে যেতাম, তাহলে মাঝে মাত্র পাঁচদিন বিরতি থাকতো। হয়তো বোলিং লোডটা অনেক বেশি হয়ে যেতো। যেহেতু আমি একজন ফাস্ট বোলার; যদিও চার ওভার, দুই ওভার; কিন্তু ইন্টেনসিটি তো অনেক বেশি থাকে। তারা এভাবে সব মিলিয়ে চিন্তা করে বলেছে এলপিএলটা এখন না খেলা ভালো।'

জাতীয় দলের খেলা না থাকলে সুযোগ থাকবে বলে বিশ্বাস তার, 'বাংলাদেশি খেলোয়াড়রা তো ভালো খেলোয়াড়, তাদের খেলার এবিলিটি বা ক্যাপাবিলিটি আছে। হয়তো এভেইলেবেলিটির কারণে কম খেলতে পারি। কিন্তু আমরা অনেক দেশের চেয়ে অনেকেই অনেক ভালো খেলোয়াড়। হয়তো এভেইলেবল না দেখে খেলতে পারি না। জাস্ট এভেইলেবল থাকলে অনেক প্লেয়ার চান্স পাবে।'

জিম-আফ্রো টি-টেন লিগে এবার বুলাওয়ে ব্রেভসের হয়ে প্রথম আসরে বাজিমাত করেছেন তাসকিন। ৭ ম্যাচ খেলে ওভার প্রতি ৭.৮৫ রান দিয়ে ১১ উইকেট নিয়ে টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় সেরা উইকেট শিকারি তিনি। তবে নিজে ভালো করলেও তার দল প্লেঅফে উঠতে ব্যর্থ হয়েছে।

Comments

The Daily Star  | English
high cattle prices Eid-ul-Azha Dhaka

High supply, higher price

Despite a large number of sacrificial animals being on sale at all 16 cattle markets in Dhaka, the prices are still quite high.

12h ago