অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে সিরিজ জিতল ভারত

শুক্রবার রায়পুরে চতুর্থ টি-টোয়েন্টিতে অস্ট্রেলিয়াকে ২০ রানে হারিয়েছে ভারত। আগে ব্যাট করে ভারতের করা ১৭৪ রানের জবাবে পুরো ২০ ওভার খেলে অজিরা করে ১৫৪ রান।এই জয়ে পাঁচ ম্যাচের সিরিজ এক ম্যাচ বাকি থাকতেই ৩-১ ব্যবধানে জেতা নিশ্চিত করে ফেলল সূর্যকুমার যাদবের দল।
ছবি: বিসিসিআই

যশভি জয়সওয়ালের শুরুর ঝড়ের পর পথ হারানো ভারতকে টেনে তুলেন রিঙ্কু সিং, পরে জিতেশ শর্মার ঝড়ে ভারত পায় চ্যালেঞ্জিং পুঁজি। রান তাড়ায় ট্রেভিস হেড আগ্রাসী শুরু আনলেও আকসার প্যাটেলের ঝাঁজ সামলাতে পারেনি অস্ট্রেলিয়া।

শুক্রবার রায়পুরে চতুর্থ টি-টোয়েন্টিতে অস্ট্রেলিয়াকে ২০ রানে হারিয়েছে ভারত। আগে ব্যাট করে ভারতের করা ১৭৪ রানের জবাবে পুরো ২০ ওভার খেলে অজিরা করে ১৫৪ রান।এই জয়ে পাঁচ ম্যাচের সিরিজ এক ম্যাচ বাকি থাকতেই ৩-১ ব্যবধানে জেতা নিশ্চিত করে ফেলল সূর্যকুমার যাদবের দল।

সফরকারীদের আটকে রাখতে ভারতের সেরা বোলার বাঁহাতি স্পিনার আকসার। ৪ ওভার বল করে মাত্র ১৬ রান দিয়ে ৩ উইকেট নেন তিনি। লেগ স্পিনার রবি বিষ্ণুই ১৭ রান দিয়ে পান ১ উইকেট। এর আগে রিঙ্কুর ২৯ বলে ৪৬ আর জিতেশের ১৯ বলে ৩৫ রান বড় পুঁজি আনতে রাখে মূল ভূমিকা।

টস হেরে ব্যাটিং পেয়ে ভারতের শুরুটা হয় দারুণ। জয়সওয়াল দলকে এনে দেন উড়ন্ত শুরু। পাওয়ার প্লে কাজে লাগিয়ে ওপেনিং জুটিতে ৫০ আসার পর ফেরেন তিনি।

দলে ফেরা শ্রেয়াস আইয়ার ৭ বলে ৮ রান করে নেন বিদায়, অধিনায়ক সূর্যকুমার যাদবও এদিন পারেননি। ৬৩ রানে ভারত হারিয়ে বসে ৩ উইকেট।

চতুর্থ উইকেটে রিঙ্কু সিংকে নিয়ে জুটি আসে রতুরাজ গায়কোয়াড়ের। ৩১ বলে ৪৮ রানের জুটি ভাঙে রতুরাজের বিদায়ে। আগের ম্যাচে সেঞ্চুরি করা ওপেনার এদিন ডানা মেলতে পারেননি ঠিকমতো। ফেরেন ২৮ বলে ৩২ করে।

তবে জিতেশ শর্মাকে নিয়ে আরেকটি ভীষণ কার্যকর জুটি পান রিঙ্কু। ৩২ বলে ৫৬ রানের জুটি ভারতকে এনে দেয় চ্যালেঞ্জিং পুঁজি।  রিঙ্কু ২৯ বলে ৪৬ আর জিতেশ ১৯ বলে করেন ৩৫ রান।

১৭৫ রান তাড়ায় নেমে ঝড় তুলেন ট্রেভিস হেড। জস ফিলিপকে এক পাশে রেখে চার-ছয়ে মাতেন তিনি। চতুর্থ ওভারে দলের ৪০ রানে ফিলিপকে বোল্ড করে দেন রবি বিষ্ণুই।

হেড উড়ছিলেন, ভারতের চিন্তাও বাড়াচ্ছিলেন। পঞ্চম ওভারে গিয়ে তার ডানা ভাঙতে পারে ভারত। আকসার প্যাটেলের বলে মুকেশ কুমারের হাতে জমা পড়ে বিদায় নেন ১৬ বলে ৩১ করা অজি ওপেনার।  তিনে নামা ব্যান ম্যাকডারমট থিতু হলেও নষ্ট করেন অনেকগুলো বল। আকসারের বলে বোল্ড হওয়ার আগে ১৯ করতে লাগান ২২ বল।

অ্যারন হার্ডিও শিকার আকসারের। ৯ বলে ৮ করেন তিনি। ৮৭ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়া অস্ট্রেলিয়াকে টেনে তুলছিলেন টিম ডেভিড আর ম্যাথু শর্ট। তবে তাদের আটকাতে ভালো পরিকল্পনা করে স্বাগতিক বোলাররা। দীপক চাহার ছাঁটেন দুজনকেই। ম্যাথু ওয়েড এক পাশে টিকে চেষ্টা চালালেও লাভ হয়নি। ওয়েডের ২৩ বলে ৩৬ রানের ইনিংস যায় বৃথা।

Comments

The Daily Star  | English

Inadequate Fire Safety Measures: 3 out of 4 city markets risky

Three in four markets and shopping arcades in Dhaka city lack proper fire safety measures, according to a Fire Service and Civil Defence inspection report.

2h ago