ক্রিকেট

নিজেকে সবসময় অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক ভাবেন ওয়ার্নার

সিডনিতে আগামীকাল টেস্ট ক্যারিয়ারের শেষ ম্যাচে মাঠে নামছেন ওয়ার্নার
warner
ডেভিড ওয়ার্নার। ছবি: টুইটার

বল বিকৃতি কাণ্ডে ২০১৮ সালে নিষেধাজ্ঞায় পড়েছিলেন ডেভিড ওয়ার্নার। তখন অস্ট্রেলিয়ার সহ-অধিনায়ক ছিলেন তিনি। এরপর নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে মাঠে ফিরলেও নেতৃত্বের আর্মব্যান্ড আর পাওয়া হয়নি তার। তবে আর্মব্যান্ড না পেলেও এক সিনিয়র খেলোয়াড় হিসেবে নিজেকে সবসময় দলের অধিনায়ক ভাবেন এই ক্রিকেটার।

বর্তমানে বিশ্ব ক্রিকেটের অন্যতম সেরা ওপেনার ওয়ার্নার। তবে চলতি পাকিস্তান সিরিজ দিয়েই লাল বলের ক্রিকেটকে বিদায় জানাবেন তিনি। তবে হুট করেই আগের দিন ওয়ানডে ক্রিকেটকেও বিদায় জানিয়ে দেন এই ওপেনার। অথচ কদিন আগেই ভারতের মাটিতে ওয়ানডে বিশ্বকাপ জয়ে রেখেছেন কার্যকরী ভূমিকা।

আর ব্যাট হাতে দারুণ ছন্দেও আছেন ওয়ার্নার। পাকিস্তানের বিপক্ষে ক্যারিয়ারের শেষ টেস্ট সিরিজে এরমধ্যেই তুলে নিয়েছেন অনবদ্য একটি সেঞ্চুরি। তবে সাম্প্রতিক সময়ে নানা কারণেই বিতর্ক হচ্ছে তাকে নিয়ে। বিশেষকরে তাকে নিয়ে তোপ দাগান সাবেক সতীর্থ মিচেল জনসন। ২০১৮ সালের সেই বল বিকৃতির বিষয়টিও উঠে আসে।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এখন কেবল টি-টোয়েন্টিই খেলবেন ওয়ার্নার। সিডনিতে আগামীকাল টেস্ট ক্যারিয়ারের শেষ ম্যাচে মাঠে নামছেন। সেই ম্যাচের আগে উঠে এলো নানা প্রসঙ্গ। বিশেষকরে অধিনায়কত্ব হারানোর বিষয়টি। তবে কোনো কিছু নিয়েই আক্ষেপ নেই তার। বিষয়গুলো অনেকটাই পিছনে ফেলে এগিয়ে গিয়েছেন তিনি।

বল বিকৃতির প্রসঙ্গ উঠলে ওয়ার্নার বলেন, 'আমি যখন ওই বল বিকৃতি ঘটনার দিকে ফিরে তাকাই তখন আমার মনে এটাই বারবার ফিরে আসে যে ওই ঘটনাকে অন্যভাবেও হ্যান্ডেল করা যেত। তবে আমি মনে করি নিক (হকলি, ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার চিফ এক্সিকিউটিভ) বিষয়টি নিজের সেরাটা দিয়ে হ্যান্ডেল করেছে। বোর্ডকে জানানোর যথাসাধ্য চেষ্টা করেছেন উনি। এরপরে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। আমি এই বিষয়কে পিছনে ফেলেছি এবং অনেকটাই এগিয়েছি।'

আর অধিনায়কত্ব নিয়ে বলেন, 'আমি আইপিএলে অধিনায়কত্বের সুযোগ পেয়েছি। আইএল টি-টোয়েন্টি'তেও অধিনায়কত্বের সুযোগ পেয়েছি। আমি অধিনায়কত্বের এই সুযোগ খুব উপভোগ করেছি। আমি আমার বর্তমান সময়ের অভিজ্ঞতা দিয়ে বুঝেছি অধিনায়কত্ব মানে অধিনায়ক বা সহ-অধিনায়কের ব্যাজটা পরা নয়। এর সঙ্গে সঙ্গে অনেক দায়িত্বও রয়েছে। অনেক চাপও নিতে হয়।'

'আমার কাছে আমি এই দলের (অস্ট্রেলিয়া) অধিনায়ক ছিলাম আর এখনও আছি। আমার কাছে নামের পাশে ওই "সি" (অধিনায়ক) বা "ভিসি" (সহ-অধিনায়ক) লেখাটার আলাদা কোনো গুরুত্ব নেই। আমি নিজেকে ভালোভাবে চিনি। আমার ভিতরে যে শক্তিটা রয়েছে তাকে আমি চিনি। আমার ভিতরের শক্তি আমাকে সবসময়ে সামনের দিকে এগিয়ে যেতে আমাকে সাহায্য করেছে,' যোগ করেন ওয়ার্নার।

Comments

The Daily Star  | English

MSC participation reflected Bangladesh's commitment to global peace: PM

Prime Minister Sheikh Hasina today said her participation at Munich Security Conference last week reflected Bangladesh's strong commitment towards peace, sovereignty, and overall global security

2h ago