এটাই আমাদের সেরা জয়: স্টোকস

ঘরের মাঠে প্রথম ইনিংসে একশর বেশি লিড নিয়ে হারের নজিরই ছিল না ভারতের ক্রিকেট ইতিহাসে।

ঘরের মাঠে প্রথম ইনিংসে একশর বেশি লিড নিয়ে হারের নজিরই ছিল না ভারতের ক্রিকেট ইতিহাসে। সেখানে লিড ১৯০ রানের। এমন ম্যাচে অনেকেই হার দেখে ফেলেছিল ইংল্যান্ডের। কিন্তু এরপর কী দারুণ ভাবেই না ঘুরে দাঁড়ায় তারা। শেষ পর্যন্ত রোমাঞ্চকর এক জয় তুলে নেয় দলটি। এমনকি নিজের নেতৃত্বে এই জয়কেই নিজের সেরা জয় বলে জানালেন ইংলিশ অধিনায়ক বেন স্টোকস।

ম্যাচ শেষে ইংলিশ অধিনায়ক বললেন, 'যখন থেকে আমি অধিনায়কত্ব নিয়েছি, দল হিসেবে আমরা অনেক চমৎকার মুহূর্ত কাটিয়েছি। আমরা অনেক দুর্দান্ত জয় পেয়েছি, আমরা কিছু আশ্চর্যজনক ম্যাচের অংশ হয়েছি। কোথায় আছি এবং কার বিরুদ্ধে খেলছি, তাতে এই জয় সম্ভবত, ১০০% নিশ্চিতভাবে আমাদের সবচেয়ে বড় জয়।'

রোববার অধিনায়ক হিসেবেও দারুণ ছিলেন স্টোকস। বোলার ও ফিল্ডার পরিবর্তন ছিল নজর কাড়া। তবে এ সব ভারতীয় অধিনায়ক রোহিত শর্মাকে দেখেও শিখেছেন ইংলিশ অধিনায়ক, 'এই কন্ডিশনে আমি প্রথম এখানে এসে অধিনায়কত্ব করছি। আমি একজন ভালো পর্যবেক্ষক। আমি দেখেছি ভারতীয় স্পিনাররা কীভাবে কাজ করে, রোহিত কীভাবে ফিল্ড সেট করে।'

হায়দরাবাদে এদিন সিরিজের প্রথম টেস্টের চতুর্থ দিনে এসে ২৮ রানের জয় তুলে নেয় ইংল্যান্ড। তাদের দেওয়া ২৩১ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ২০২ রানে গুটিয়ে যায় ভারত। ৬২ রানের খরচায় ৭টি উইকেট তুলে স্বাগতিকদের ব্যাটিং লাইনআপ ধসিয়ে দেন টম হার্টলি। এর আগে হায়দরাবাদের স্পিন সহায়ক উইকেটে দ্বিতীয় ইনিংসে ১৯৬ রানের বীরোচিত ইনিংস খেলেন অলি পোপ।

অথচ এই টেস্ট দিয়েই অভিষেক হয় হার্টলির। আর কাঁধের অস্ত্রোপচারের পর লম্বা সময় মাঠের বাইরে ছিলেন পোপ। তাদের কৃতিত্ব দিয়ে স্টোকস বলেন, 'সবার জন্যই দারুণ রোমাঞ্চকর। টম হার্টলির  ৯ উইকেট, অলি পোপ কাঁধের অস্ত্রোপচারের পর এই প্রথম টেস্টে ফিরেছে। টম প্রথমবারের মতো দলে এসেছে। অনেক আত্মবিশ্বাস দিয়েছে। যাই ঘটুক না কেন আমি তাকে দীর্ঘ স্পেল দিতে ইচ্ছুক। আমরা যাদের নির্বাচিত করেছি তাদের সম্পূর্ণরূপে সমর্থন করি।'

উপমহাদেশে ইংল্যান্ডের ব্যাটারদের মধ্যে পোপের আজকের ইনিংসকেই সবার চেয়ে এগিয়ে রাখছেন স্টোকস, 'জো রুটের কিছু বিশেষ ইনিংস দেখেছি, কিন্তু এমন একটি কঠিন উইকেটে ১৯০ (আসলে ১৯৬)। আমার কাছে উপমহাদেশে একজন ইংরেজের সেরা ইনিংস এটা। আমি ব্যর্থতাকে ভয় করি না, স্কোয়াডে যেই থাকুক তাকে উৎসাহ দেওয়ার চেষ্টা করি।'

Comments

The Daily Star  | English

Loan default now part of business model

Defaulting on loans is progressively becoming part of the business model to stay competitive, said Rehman Sobhan, chairman of the Centre for Policy Dialogue.

2h ago