ফুটবল

বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনাকে ফেভারিট মানেন না মেসি

সাম্প্রতিক সময়ে দারুণ ছন্দে রয়েছে আর্জেন্টিনা। শেষ দুটি আন্তর্জাতিক আসরে জিতে নিয়েছে শিরোপা। সবমিলিয়ে শেষ ৩৫টি ম্যাচে অপরাজিত দলটি। স্বাভাবিকভাবেই বিশ্বকাপে অন্যতম ফেভারিট আর্জেন্টিনা। তবে তারাই টপ ফেভারিট বিষয়টি মানতে নারাজ অধিনায়ক লিওনেল মেসি।

সাম্প্রতিক সময়ে দারুণ ছন্দে রয়েছে আর্জেন্টিনা। শেষ দুটি আন্তর্জাতিক আসরে জিতে নিয়েছে শিরোপা। সবমিলিয়ে শেষ ৩৫টি ম্যাচে অপরাজিতও দলটি। স্বাভাবিকভাবেই বিশ্বকাপে অন্যতম ফেভারিট আর্জেন্টিনা। তবে তারাই টপ ফেভারিট বিষয়টি মানতে নারাজ অধিনায়ক লিওনেল মেসি।

বৃহস্পতিবার স্টারপ্লাসে বিশদ এক সাক্ষাৎকার দিয়েছেন মেসি। সেখানে এক প্রশ্নে বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনাকে টপ ফেভারিট আখ্যায়িত করলে মেসি বলেন, 'আমি জানি না আমরা ফেভারিট কিনা, কিন্তু আর্জেন্টিনা সবসময় ঐতিহাসিকভাবে একটা প্রার্থী, এমনটাই। আমরা ফেভারিট নই, আমার মনে হয় আরও অন্য কিছু দল রয়েছে যারা আমাদের উপরে আছে।'

তবে নিজেদের সময়টা যে ভালো যাচ্ছে তা মানছেন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক, 'আমরা খুব ভালো সময়ের মধ্যে রয়েছি, খুব শক্তিশালী একটি দল নিয়ে। কিন্তু বিশ্বকাপে যে কোনো কিছু ঘটতে পারে। সব ম্যাচই কঠিন, এটাই বিশ্বকাপকে এতো বিশেষ করে তোলে কারণ ফেভারিটরা সবসময় জিততে পারে না। যারা শেষ পর্যন্ত তারাই জয়লাভ করে যারা প্রত্যাশা অনুযায়ী ভালো কাজ করতে পারে'

তবে পরিসংখ্যান অনুযায়ী মেসির কথা সঠিকই। কারণ ফিফা র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে রয়েছে ব্রাজিল। তাদের আগে রয়েছে বেলজিয়ামও। এছাড়া ইএলও র‍্যাটিং অনুযায়ীও আর্জেন্টিনার চেয়ে সম্ভাবনা বেশি ব্রাজিলেরই।

এদিকে বিশ্বকাপ জিতলে কাতারই হবে মেসির শেষ বিশ্বকাপ। তাকে প্রশ্ন করা হয়, যদি আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপ জিতে তাহলে কি এটাই কি আপনার শেষ বিশ্বকাপ হতে যাচ্ছে? উত্তরে মেসি বলেন, 'হ্যাঁ, নিশ্চিতভাবে হ্যাঁ, অবশ্যই।'

আর কাতার বিশ্বকাপ মঞ্চে মাঠে নামার জন্য রীতিমতো মরিয়া হয়ে রয়েছেন মেসি, 'আমি বিশ্বকাপের জন্য দিন গুনতে শুরু করেছি। সত্যিটা হলো, একটু দুশ্চিন্তা হচ্ছে। আলোচনা হচ্ছে "আচ্ছা, আমরা এখানে আছি, কী ঘটতে যাচ্ছে? এটা আমার শেষ, কেমন হবে?" একদিকে, আমি এটার জন্য আর অপেক্ষা করতে পারছি না তবে আমি এখানে ভালো করতে মরিয়া হয়ে আছি।'

Comments

The Daily Star  | English
Bank mergers in Bangladesh

Bank mergers: All dimensions must be considered

In general, five issues need to be borne in mind when it comes to bank mergers in Bangladesh.

9h ago