চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ষোলোতে রিয়াল ও ম্যান সিটি

উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ষোলোর টিকিট নিশ্চিত করে ফেলেছে রিয়াল মাদ্রিদ। ইউরোপের ক্লাব ফুটবলের সর্বোচ্চ আসরের নকআউট পর্বে উঠে গেছে ম্যানচেস্টার সিটিও।
ছবি: রিয়াল মাদ্রিদ ওয়েবসাইট

গ্রুপ পর্বের আরও দুই রাউন্ডের খেলা বাকি। তবে ইতোমধ্যে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ষোলোর টিকিট নিশ্চিত করে ফেলেছে রিয়াল মাদ্রিদ। ইউরোপের ক্লাব ফুটবলের সর্বোচ্চ আসরের নকআউট পর্বে উঠে গেছে ম্যানচেস্টার সিটিও।

মঙ্গলবার রাতে 'এফ' গ্রুপের ম্যাচে শাখতার দোনেৎস্কের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করেছে রিয়াল। পোল্যান্ডের ওয়ারশতে ইউক্রেনের ক্লাবটির বিপক্ষে একেবারে শেষ মুহূর্তে হার এড়ায় তারা। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই ওলেকসান্দার জুবকভের লক্ষ্যভেদে এগিয়ে গিয়েছিল স্বাগতিকরা। যোগ করা সময়ের পঞ্চম মিনিটে লড়াইয়ে সমতা টানেন অ্যান্টোনিও রুডিগার।

ম্যাচের প্রথমার্ধে শাখতারের রক্ষণে বারবার ভীতি ছড়ায় স্প্যানিশ পরাশক্তি রিয়াল। তবে করিম বেনজেমা, রদ্রিগো কিংবা ফেদেরিকো ভালভার্দে পারেননি জাল খুঁজে নিতে। বিরতির পরপরই লা লিগার বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের স্তব্ধ করে দেন জুবকভ। তার কল্যাণে পাওয়া লিড ইউক্রেনের ক্লাবটি ধরে রাখে লম্বা সময়। তাতে হারই দেখছিল কার্লো আনচেলত্তির শিষ্যরা। তবে শেষ বাঁশি বাজার কিছুক্ষণ আগে রিয়ালের নায়কে পরিণত হন জার্মান ডিফেন্ডার রুডিগার। স্বদেশি টনি ক্রুসের ক্রসে হেড করে নিশানা ভেদ করেন তিনি। তাতে পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়ে লস ব্লাঙ্কোরা।

চার ম্যাচে তিন জয় ও এক ড্রয়ে ১০ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপের শীর্ষে আছে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপাধারী রিয়াল। তিনে থাকা শাখতারের পয়েন্ট ৫। গ্রুপের আরেক ম্যাচে সেল্টিকের মাঠে ২-০ গোলে জিতেছে আরবি লাইপজিগ। ৬ পয়েন্ট নিয়ে তাদের অবস্থান দুইয়ে। শেষ ষোলোতে ওঠার কোনো সম্ভাবনা নেই তলানিতে থাকা সেল্টিকের। তাদের অর্জন মাত্র ১ পয়েন্ট।

ছবি: টুইটার

'জি' গ্রুপের ম্যাচে ডেনমার্কের ক্লাব এফসি কোপেনহেগেনের মাঠে গোলশূন্য ড্র করেছে ম্যান সিটি। ছয় দিন আগেও মুখোমুখি হয়েছিল দুই দল। সেবার ঘরের মাঠ ইতিহাদ স্টেডিয়ামে ৫-০ গোলের বড় ব্যবধানে সিটিজেনরা জিতেছিল। কিন্তু ফিরতি লড়াইয়ে সেই ঝাঁজ দেখাতে ব্যর্থ হয় পেপ গার্দিওলার শিষ্যরা।

বিবর্ণ পারফরম্যান্স দেখানো সিটিকে পাওয়া যায়নি চেনা ছন্দে। ম্যাচের প্রথমার্ধ ভীষণ ঘটনাবহুল ছিল তাদের জন্য। বাতিল হয় রদ্রির গোল, রিয়াদ মাহরেজ মিস করেন পেনাল্টি আর সার্জিও গোমেজ লাল কার্ড দেখায় ম্যাচের বেশিরভাগ সময় তারা খেলে ১০ জন নিয়ে। সবগুলো সিদ্ধান্তই আসে ভিএআরের সাহায্যে। তারকা স্ট্রাইকার আর্লিং হালান্ড বেঞ্চে থাকলেও শেষ পর্যন্ত মাঠে নামেননি। 

টানা তিন জয়ের পর এবারের চ্যাম্পিয়ন্স লিগে প্রথমবারের মতো পয়েন্ট হারায় সিটি। চার ম্যাচে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের শিরোপাধারীদের অর্জন ১০ পয়েন্ট। গ্রুপে সবার নিচে থাকা কোপেনহেগেনের পয়েন্ট ২। আরেক ম্যাচে ১-১ গোলে ড্র করেছে বরুসিয়া ডর্টমুন্ড ও সেভিয়া। ৭ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে রয়েছে ডর্টমুন্ড। গোল পার্থক্যে তিনে থাকা সেভিয়ার পয়েন্ট ২।

Comments