বার্সেলোনা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলার যোগ্য নয়: পেদ্রি

ভিক্তরিয়া প্লাজেনকে হারিয়ে নকআউট পর্বের সমীকরণ মিলিয়ে ফেলে ইন্টার মিলান। মাঠে নামার আগেই ইউরোপা লিগ নিশ্চিত হয়ে যায় বার্সেলোনার। কিন্তু তারপরও সমর্থকরা প্রত্যাশা করেছিলেন একটি ভালো ম্যাচের। কিন্তু সেখানে পুরো ম্যাচে একটি শটও লক্ষ্যে রাখতে পারেনি দলটি। এমন হতাশাজনক পারফরম্যান্সের পর বাস্তবতা ভালোভাবে টের পার পাচ্ছেন বার্সেলোনার স্প্যানিশ মিডফিল্ডার পেদ্রি।

ভিক্তরিয়া প্লাজেনকে হারিয়ে নকআউট পর্বের সমীকরণ মিলিয়ে ফেলে ইন্টার মিলান। মাঠে নামার আগেই ইউরোপা লিগ নিশ্চিত হয়ে যায় বার্সেলোনার। কিন্তু তারপরও সমর্থকরা প্রত্যাশা করেছিলেন একটি ভালো ম্যাচের। কিন্তু সেখানে পুরো ম্যাচে একটি শটও লক্ষ্যে রাখতে পারেনি দলটি। এমন হতাশাজনক পারফরম্যান্সের পর বাস্তবতা ভালোভাবে টের পার পাচ্ছেন বার্সেলোনার স্প্যানিশ মিডফিল্ডার পেদ্রি।

বুধবার রাতে ন্যু ক্যাম্পে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের 'সি' গ্রুপের ম্যাচে বার্সেলোনাকে ৩-০ গোলের ব্যবধানে হারিয়েছে বায়ার্ন। প্রথমার্ধেই দুই গোলের ব্যবধানে পিছিয়ে পড়ে দলটি। এর আগে বায়ার্নের মাঠ থেকে ২-০ গোলের ব্যবধানে হেরে ফিরেছিল তারা। ইন্টার মিলানের মাঠ থেকেও ১-০ গোলে হেরে ফিরে ঘরের মাঠে করে ড্র। যে কারণে টানা দ্বিতীয়বারের মতো ইউরোপা লিগে খেলতে হচ্ছে কাতালান ক্লাবটিকে।

নিজেদের চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলার মতো যোগ্যই মনে হচ্ছে না পেদ্রির, 'অবশ্যই, এটি একটি ব্যর্থতা। আমাদেরকে গ্রুপ থেকে বেরিয়ে যেতে হবে এবং আমরা পারিনি কারণ আমরা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে চালিয়ে যাওয়ার যোগ্য ছিলাম না। আমরা একটি খুব তরুণ দল, উন্নতির অনেক জায়গা আছে, আমরা দারুণ কিছু সাইনিং করিয়েছি, কিন্তু চ্যাম্পিয়ন্স লিগে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য এটা আমাদের জন্য যথেষ্ট ছিল না এবং এটা বড় হতাশার।'

অথচ এবার গ্রীষ্মের দল বদলে বেশ চমক দেখিয়ে নতুন আশার সঞ্চার করেছিল বার্সেলোনা। রবার্ট লেভানদোভস্কি, জুলস কুন্দে, ফ্র্যাঙ্ক কেসি, জাভি আলোনসো, হেক্তর বেলেরিন, ক্রিস্তেনসেন ও রাফিনহার মতো খেলোয়াড়দের দলভুক্ত করে দলটি। এছাড়া ফ্রি এজেন্ট হয়ে যাওয়া উসমান দেম্বেলের চুক্তি নবায়নও করে। সবমিলিয়ে তাই প্রত্যাশা ছিল অনেক উঁচুতে। কিন্তু সেখানে গ্রুপ পর্বও উতরাতে পারল না তারা।

এতো কিছুর পর দলে অনেক কিছুরই অভাব টের পাচ্ছেন এ মিডফিল্ডার, 'আমাদের অনেক কিছুর অভাব রয়েছে, কিন্তু আমাদের আত্ম-সমালোচনা করতে হবে। এটা সত্য যে মিউনিখে আমরা আরও বেশি প্রাপ্য ছিলাম, মিলানে বেশ কয়েকটি পরিস্থিতি ছিল… কিন্তু আজ যা হয়েছে তা দেখার পরে মনে হয়েছে যে আমরা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য প্রস্তুত নই।'

Comments

The Daily Star  | English

Schools to remain shut till April 27 due to heatwave

The government has decided to keep all schools shut from April 21 to 27 due to heatwave sweeping over the country

1h ago