'বানিয়ে' পেনাল্টি দেওয়ায় অসন্তুষ্ট রিয়াল কোচ আনচেলত্তি

ভিনিসিয়ুস জুনিয়রের গোলে জয়ের পথেই ছিল রিয়াল মাদ্রিদ। কিন্তু ভিএআরের সাহায্য নিয়ে রেফারির দেওয়া সিদ্ধান্ত পাল্টে ছিল পরিস্থিতি।
ছবি: এএফপি

ভিনিসিয়ুস জুনিয়রের গোলে জয়ের পথেই ছিল রিয়াল মাদ্রিদ। কিন্তু ভিএআরের সাহায্য নিয়ে রেফারির দেওয়া সিদ্ধান্ত পাল্টে ছিল পরিস্থিতি। গোল হজম করে জিরোনার কাছে ২ পয়েন্ট হারাতে হলো লস ব্লাঙ্কোসদের। হোঁচট খাওয়ার পর পেনাল্টির ওই সিদ্ধান্ত নিয়ে অসন্তোষ জানালেন দলটির কোচ কার্লো আনচেলত্তি।

রোববার রাতে স্প্যানিশ লা লিগায় ঘরের মাঠ সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে ১-১ গোলে জিরোনার সঙ্গে ড্র করেছে রিয়াল। পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে ফিরলেও এমন ফল নিশ্চিতভাবেই হতাশাজনক আসরের শিরোপাধারীদের জন্য। ৭০তম মিনিতে ব্রাজিলিয়ান তারকা ভিনিসিয়ুস স্বাগতিকদের লিড পাইয়ে দেন। ১০ মিনিট পর সফল স্পট-কিকে সফরকারীদের সমতায় ফেরান ক্রিস্টিয়ান স্টুয়ানি। ডি-বক্সের মধ্যে বল মার্কো আসেনসিওর হাতে লাগায় পেনাল্টির বাঁশি বাজিয়েছিলেন রেফারি।

আনচেলত্তি অবশ্য ম্যাচ অফিসিয়ালদের সঙ্গে একমত হতে পারছেন না। তার মতে, বল স্প্যানিশ মিডফিল্ডার আসেনসিওর হাতে নয়, বুকে লেগেছিল, 'আমি এটা (রেফারির সিদ্ধান্ত) নিয়ে কথা বলা পছন্দ করি না। তবে প্রথম পরিস্থিতিটা একদম পরিষ্কার ছিল। এটা পেনাল্টি ছিল না। কারণ, এটা (বল) তার বুকে লেগেছিল। সে হাত দিয়ে বল স্পর্শ করেনি। তারা (অফিসিয়ালরা) এটা বানিয়েছে।'

নির্ধারিত সময়ের শেষদিকে ভিনিসিয়ুসের জাতীয় দলের সতীর্থ রদ্রিগো বল জালে পাঠান। কিন্তু তা বাতিল করা হয় সেই ভিএআরের সাহায্য নিয়ে। উল্টো দেওয়া হয় ফাউল। কারণ, রদ্রিগো শট নেওয়ার সময় বলের ওপর হাত ছিল জিরোনার গোলরক্ষক পাওলো গাজ্জানিগার। এই প্রসঙ্গে আনচেলত্তি বলেন, 'দ্বিতীয় পরিস্থিতিটা আলাদা। এটা (গোল বাতিলের সিদ্ধান্ত) দেওয়া যেতে পারে। যেটা আমাকে অবাক করেছে, সেটা হলো ম্যাচের খুব গুরুত্বপূর্ণ একটা মুহূর্তে এটা ঘটেছিল। এটা (সিদ্ধান্তটা) ঠিক পথেই হয়েছে। কিন্তু আমরা অনেক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছি। এই ঘটনার পর আমরা দুই পয়েন্ট কম পেয়েছি।'

শিষ্যদের পারফরম্যান্সের পড়তি নিয়ে এই ইতালিয়ান কোচের বিশ্লেষণ এমন, 'আমরা গত সপ্তাহে যে পর্যায়ে (পারফর্ম) করছিলাম সেই পর্যায়ে নেই। আমাদের কিছু সমস্যা ছিল। চোট থেকে রদ্রিগো, (লুকা) মদ্রিচ, (আহেলিয়া) চুয়ামেনিরা মাত্রই ফিরেছে।'

আগামী বুধবার উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচে বার্নাব্যুতে সেলটিকের মুখোমুখি হবে রিয়াল। ওই লড়াইয়ে তাদের সামনে রয়েছে 'এফ' গ্রুপের শীর্ষ দল হিসেবে নকআউটে পা রাখার হাতছানি। এরপর কাতার বিশ্বকাপের আগে লা লিগায় রায়ো ভায়েকানো ও কাদিজকে মোকাবিলা করবে তারা।

টানা খেলার ধকল ফুটবলারদের ওপর পড়েছে বলে মনে করেন আনচেলত্তি। তবে বিশ্বকাপের আগে তার রয়েছে দুটি লক্ষ্য, 'আমরা অনেক ম্যাচ খেলছি এবং আমরা ক্লান্তি অনুভব করছি। আগামী বুধবার আমাদের শীর্ষস্থান নিশ্চিত করার সুযোগ রয়েছে এবং উদ্দেশ্য হলো (লা লিগায়) শীর্ষে থেকে (বিশ্বকাপের) বিরতিতে যাওয়া। এই মুহূর্তে সবকিছু আমাদের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।'

উল্লেখ্য, ১২ ম্যাচে ১০ জয় ও ২ ড্রয়ে ৩২ পয়েন্ট রয়েছে রিয়ালের নামের পাশে। সমান ম্যাচে এক পয়েন্ট কম নিয়ে তাদের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বার্সেলোনার অবস্থান দুইয়ে। ১০ জয় ও ১ ড্রয়ে কাতালানদের পয়েন্ট ৩১।

Comments

The Daily Star  | English

Onions sting

Prices of onion increased by Tk 100 or more per kg overnight as traders began stockpiling following the news that India had extended a virtual restriction on its export.

11h ago