ফুটবল

আনচেলত্তির কোচিং না ছাড়া নিশ্চিত করলেন ভালভার্দে

ফেদেরিকো ভালভার্দেকে চ্যালেঞ্জটা ছুঁড়ে দিয়েছিলেন কার্লো আনচেলত্তি। তাতে মিশে ছিল শিষ্যের সামর্থ্য ও প্রতিভার প্রতি রিয়াল মাদ্রিদ কোচের গভীর আস্থা।
ছবি: এএফপি

ফেদেরিকো ভালভার্দেকে চ্যালেঞ্জটা ছুঁড়ে দিয়েছিলেন কার্লো আনচেলত্তি। তাতে মিশে ছিল শিষ্যের সামর্থ্য ও প্রতিভার প্রতি রিয়াল মাদ্রিদ কোচের গভীর আস্থা। সেই চ্যালেঞ্জ লুফে নিয়ে উরুগুইয়ান মিডফিল্ডার ভালভার্দে দিলেন উপযুক্ত প্রতিদান। সেকারণে ভীষণ খুশি আনচেলত্তি মেলে ধরলেন প্রশংসার ডালি।

গত মৌসুমে রিয়ালের হয়ে দারুণ পারফর্ম করেন ভালভার্দে। স্প্যানিশ লা লিগার পরাশক্তিদের শুরুর একাদশে নিয়মিত মুখ হয়ে ওঠেন তিনি। কিন্তু গোলমুখে গেলেই খেই হারিয়ে ফেলছিলেন। সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ৪৬ ম্যাচে করেছিলেন মাত্র এক গোল। এমন পরিসংখ্যান পছন্দ হয়নি আনচেলত্তির। চলতি মৌসুমে তিনি ভালভার্দেকে ১০ গোল করার লক্ষ্য দেন। গত সেপ্টেম্বরে বর্ষীয়ান ইতালিয়ান কোচ বলেছিলেন, '(কোচ হিসেবে) তার মতো একজন খেলোয়াড়কে যদি ১০ গোল করাতে না পারেন, তাহলে আপনার কোচিং লাইসেন্স ছিঁড়ে ফেলা ও অবসর নেওয়া উচিত।'

গতকাল শনিবার রাতে ক্লাব বিশ্বকাপের শিরোপা জিতে নেয় রিয়াল। মরক্কোর রাবাতে শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচে তারা ৫-৩ গোলে হারায় আল হিলালকে। আসরে লস ব্লাঙ্কোসদের পঞ্চমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পথে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন ভালভার্দে। জোড়া গোল করেন তিনি। ম্যাচের ১৮তম মিনিটে করা লক্ষ্যভেদটি ছিল চলতি ২০২২-২৩ মৌসুমে তার দশম। বল জালে জড়ানোর পর তিনি দৌড়ে গিয়ে উদযাপন করেন আনচেলত্তির সঙ্গেই। এরপর ৫৮তম মিনিটে পেয়ে যান মৌসুমের একাদশ গোল।

গত বছরের নভেম্বরে কাতার বিশ্বকাপ শুরুর আগে দুর্দান্ত ছন্দে ছিলেন ভালভার্দে। কিন্তু ফুটবলের মহাযজ্ঞের পর তার পারফরম্যান্সে দেখা যায় ভাটার টান। শুরু হয় সমালোচনার জোয়ার। ছন্দ হারানোর কারণ হিসেবে তার গর্ভবতী স্ত্রীর শারীরিক সমস্যার কথা উল্লেখ করেন অনেকে। সেই কঠিন পরিস্থিতিতে তার কাঁধে ছিল আনচেলত্তির ভরসার হাত। কিছুদিন আগে স্ত্রী সুস্থ হয়ে ওঠার পর ফর্মে ফিরতে শুরু করেন ভালভার্দে। আর মরক্কোতে গিয়ে নিজেকে মেলে ধরেন তিনি। সেমিফাইনালে আল আহলির বিপক্ষে নিশানা ভেদের পর নজর কাড়েন ফাইনালেও।

ক্লাব বিশ্বকাপে দুই ম্যাচ খেলে তিন গোল করে জিতেছেন আসরের সিলভার বল। সেই সঙ্গে উতরে গেছেন গুরুর দেওয়া চ্যালেঞ্জে। ভালভার্দের এমন নৈপুণ্যে বাঁধ ভেঙেছে আলচেলত্তির উচ্ছ্বাস। পাশাপাশি মজা করার সুযোগও ছাড়েননি রিয়াল কোচ। দলকে শিরোপা জেতানোর পর গণমাধ্যমের কাছে তিনি বলেছেন, 'আমি খুবই খুশি কারণ, এখন আমাকে আর কোচিং লাইসেন্স ছিঁড়ে ফেলতে হবে না। তার কঠিন সময় গিয়েছে এবং সে ছন্দে ফিরছে। বিভিন্ন দিক থেকে সে অনেক অবদান রাখে। সে দুটি গোল করার পাশাপাশি মাঠে আমাদের প্রবল সক্রিয় রাখে।'

Comments

The Daily Star  | English

Work begins to breathe life into dying Ichamati

The long-awaited project to rejuvenate the Ichamati river began under the supervision of Bangladesh Army, bringing joy to the people of Pabna

3h ago