কেন ৪ ম্যাচ নিষিদ্ধ কাসেমিরো?

স্বাভাবিকভাবে সরাসরি লাল কার্ড দেখলে ৩ ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের পয়েন্ট তালিকার তলানির দল সাউদাম্পটন। সে দলটির বিপক্ষে আগের দিন পয়েন্ট খুইয়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। পয়েন্ট হারানোর পাশাপাশি আরও একটি বড় ধাক্কা খেয়েছে দলটি। আগামী চার ম্যাচের জন্য ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার কাসেমিরোকে পাচ্ছে না রেড ডেভিলরা।

অথচ ঘরের মাঠে রোববার রাতে সাউদাম্পটনের বিপক্ষে খেলতে নেমেছিল ইউনাইটেড। চলতি মৌসুমে ওল্ড ট্রাফোর্ডে তাদের পারফরম্যান্স ছিল দুর্দান্ত। সেখানে আগের দিন গোলের দেখাই পায়নি তারা। ম্যাচের আধা ঘণ্টা পার হতেই সরাসরি লাল কার্ড দেখে বহিষ্কার হন কাসেমিরো। তাতেই কোণঠাসা হয়ে পড়ে দলটি।

এদিন ম্যাচের ৩২তম মিনিটে কার্লোস আলকারেজকে ঝাঁপিয়ে পড়ে ট্যাকল করেছিলেন কাসেমিরো। প্রথমে হলুদ কার্ড দিয়েছিলেন মাঠের রেফারি। পরে ভিএআরে যাচাই করে সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে লাল কার্ড দেখানো এ ব্রাজিলিয়ানকে। ফুটবল ক্যারিয়ারে এটাই ছিল কাসেমিরোর প্রথম সরাসরি লাল কার্ড।

এই কার্ডের জন্য চার ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা পেয়েছেন কাসেমিরো। স্বাভাবিকভাবে সরাসরি লাল কার্ড দেখলে তিন ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়। কিন্তু গত তিন ম্যাচের মধ্যে এটা দ্বিতীয় লাল কার্ড কাসেমিরো। একই মৌসুমে দ্বিতীয়বার লা কার্ড দেখলে নিষেধাজ্ঞার পরিমাণ বেড়ে যায় এক ম্যাচ। সে কারণেই তিন ম্যাচের জায়গায় চার ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা পেয়েছেন এ ব্রাজিলিয়ান।

আর এই নিষেধাজ্ঞায় ফুলহ্যাম, নিউক্যাসল, ব্রেন্টফোর্ড এবং এভারটনের বিপক্ষে খেলতে পারবেন না কাসেমিরো। সৌভাগ্যবশত, লাল কার্ড সাসপেনশন শুধুমাত্র ঘরোয়া প্রতিযোগিতায় বহন করা হয়। তাই ইউরোপা লিগে এ ব্রাজিলিয়ানের অংশগ্রহণে কোনো প্রভাব ফেলবে না।

ঘরোয়া প্রতিযোগিতায় আগামী ১৫ এপ্রিল সিটি গ্রাউন্ডে নটিংহাম ফরেস্টের বিপক্ষে মাঠে নামতে পারবেন কাসেমিরো। তবে আগামী বৃহস্পতিবার রিয়াল বেটিসের বিপক্ষে ইউরোপা লিগের দ্বিতীয় লেগে ম্যাচে খেলতে পারবেন তিনি। সেই প্রতিযোগিতাতেও সাসপেনশনের ঝুঁকিতে রয়েছেন তিনি, ইতিমধ্যেই বুকিং হয়েছেন।

কাসেমিরো অনুপস্থিতি ইউনাইটেডের জন্য নিঃসন্দেহে একটি বড় ধাক্কা। স্বাক্ষরের পর থেকে এ নিয়ে নয়টি ম্যাচ মিস করতে যাচ্ছেন তিনি। মাঝমাঠে রেড ডেভিলরা এবার তার শক্তি এবং অভিজ্ঞতার উপর অনেকটাই নির্ভর করেছে।

Comments

The Daily Star  | English

Cyclone Remal likely to hit Bangladesh coast by Sunday evening

Maritime ports asked to maintain local cautionary signal no one

1h ago