ফুটবল

গোল করেই যাচ্ছেন মেসি, জিতেই যাচ্ছে মায়ামি

লিগস কাপের সেমিতে উঠে প্রথমবারের মতো কনকাকাফ চ্যাম্পিয়ন্স লিগ খেলার স্বপ্ন দেখছে ইন্টার মায়ামি।

যুক্তরাষ্ট্রের ফুটবলে যেন উড়ছেন লিওনেল মেসি। টানা পঞ্চম ম্যাচে গোল আদায় করে নিলেন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক। তার দলও রয়েছে জয়ের ধারায়। তাতে নতুন ইতিহাস গড়েছে ইন্টার মায়ামি। প্রথমবারের মতো লিগস কাপের সেমি-ফাইনালে উঠে কনকাকাফ চ্যাম্পিয়ন্স লিগ খেলার স্বপ্নও দেখছে দলটি।

ঘরের মাঠ ডিআরভি পিএনকে স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় শনিবার সকালে লিগস কাপের কোয়ার্টার ফাইনালে শার্লটকে ৪-০ গোলে ব্যবধানে হারিয়েছে ইন্টার মায়ামি। মেসি ছাড়াও দলের হয়ে একটি করে গোল পেয়েছেন জোসেফ মার্তিনেজ ও রবার্ট টেইলর। অপর গোলটি এসেছে আত্মঘাতীর সুবধে।

এদিন ম্যাচের প্রথমার্ধেই দুই গোলে এগিয়ে যাওয়ার পর ৭৮তম মিনিটে আরও একটি গোল পেলে জয় এক প্রকার নিশ্চিত হয়ে যায় মায়ামির। কিন্তু তারপরও সমর্থকদের আক্ষেপ ছিল কিছুটা। কারণ তখনও জালের দেখা পাননি মেসি। ৮৫ মিনিট পর্যন্ত তাদের অপেক্ষায় থাকার পর এলো সেই কাঙ্ক্ষিত গোল। এই নিয়ে টানা পাঁচ ম্যাচে গোল পেলেন মেসি। তার গোলসংখ্যা হলো আটটি। 

এদিন মেসিদের জন্য ম্যাচটি ছিল ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ। কারণ এই জয়ে আগামী মৌসুমে কনকাকাফ চ্যাম্পিয়ন্স লিগ খেলার খুব কাছাকাছি চলে এলো দলটি। আর একটি জয় পেলেই টিকিট মিলবে তাদের। মেজর সকার লিগে পয়েন্ট তালিকায় তলানিতে থাকায় সেখান থেকে কাজটা এক প্রকার অসম্ভবই তাদের জন্য।

৫০ দলের কনকাকাফ চ্যাম্পিয়ন্স লিগে মেজর সকার লিগের ক্লাব খেলতে পারে পাঁচটি। তবে লিগস কাপের সেরা তিনটি দল পায় এই সুযোগ। তাই সেমি-ফাইনাল জিতলে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের টিকিট মিলবে মায়ামির। হারলেও তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচ জিতলেও থাকবে সুযোগ।

অথচ মেজর সকার লিগের তলানিতে রয়েছে মায়ামি। ২৯ দলের সেই আসরে তাদের অবস্থান ২৯ নম্বরে। মূলত মেসিকে পেয়ে আমূল বদলে গিয়েছে মায়ামি। তাকে দলে পাওয়ার আগের আট ম্যাচেও ছিল না কোনো জয়। সে দলটি এখন লিগস কাপে রয়েছে টানা জয়ের ধারায়। টানা পাঁচটি ম্যাচ জিতে শেষ চার নিশ্চিত করল দলটি।

এদিন ম্যাচের দ্বাদশ মিনিটেই এগিয়ে যায় মায়ামি। সফল স্পটকিক থেকে গোল আদায় করে নেন মার্তিনেজ। ৩২তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে তারা। ডান প্রান্ত থেকে ডিআন্দ্রে ইয়েডলিনের কাটব্যাক থেকে কোণাকোণি শটে লক্ষ্যভেদ করেন টেইলর। আর ৭৮তম মিনিটে পাল্টা আক্রমণে বাঁ প্রান্ত থেকে মেসির উদ্দেশ্যে নেওয়া দিয়াগো গোমেজের কাটব্যাক ক্লিয়ার করতে গিয়ে নিজেদের জালে বল পাঠান এডিলসন মালান্ডা।

৮৬তম মিনিটে নিজের নামের পাশে গোল আদায় করেন মেসি। বদলি খেলোয়াড় লিওনার্দো কাম্পানার উদ্দেশ্যে বল মেসির বাড়ানো বল ক্লিয়ার করতে পারতেন প্রতিপক্ষ ডিফেন্ডার। তার ভুলে বল পেয়ে বাঁ প্রান্তে ঢুকে সময় নিয়ে মেসিকে নিখুঁত এক পাস দেন ইকুয়েডরের এই ফরোয়ার্ড। আলতো টোকায় দিক বদলে বল জালে পাঠান অধিনায়ক।

Comments