সেই নাশভিলের সঙ্গে নিষ্প্রাণ ড্র করল মেসির মায়ামি

কিছুদিন আগেই ফাইনালে নাশভিলকে টাই-ব্রেকারে পরাজিত করে লিগস কাপের শিরোপায় চুমু খাওয়া ইন্টার মায়ামি এদিন মেজর সকার লিগের ম্যাচে তাদের সঙ্গে পয়েন্ট ভাগাভাগি করেছে।

কিছুদিন আগেই ফাইনালে নাশভিলকে টাই-ব্রেকারে পরাজিত করে লিগস কাপের শিরোপায় চুমু খেয়েছিল ইন্টার মায়ামি। সেই নাশভিলের বিপক্ষে এদিন মেজর সকার লিগের ম্যাচে মাঠে নেমেছিল লিওনেল মেসিরা। তবে এবার তাদের বিপক্ষে পয়েন্ট ভাগাভাগি করে মাঠ ছাড়তে হয়েছে তাদের।

বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সময় সকালে ডিআরভি পিএনকে স্টেডিয়ামে নাশভিলের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করেছে ইন্টার মায়ামি। এর আগে লিগস কাপের ফাইনালের নির্ধারিত সময়ে ১-১ গোলে সমতায় শেষ হওয়া ম্যাচে মায়ামির হয়ে গোল করেছিলেন মেসি। তবে এদিন তেমন কিছুই করতে পারেননি তিনি।

যুক্তরাষ্ট্রের ফুটবলে যোগ দেওয়ার পর সব ম্যাচেই গোল কিংবা অ্যাসিস্ট করেছিলেন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক। আগের নয় ম্যাচে তার গোল ছিল ১১টি। এছাড়া গোলে সহায়তা করেছিলেন আরও তিনটিতে। তবে অবশেষে মেসির জাদু থামাতে পেরেছে নাশভিল। অবশ্য দুটি দারুণ সুযোগ তৈরি করেছিলেন তিনি।

লিগস কাপের ফাইনালে সেদিন ম্যাচের ২৩ মিনিটেই দারুণ এক গোলে মায়ামিকে এগিয়ে দিয়েছিলেন মেসি। সামান্য জায়গা পেলে আর্জেন্টাইন অধিনায়ক কি করতে পারেন তা হাড়েহাড়েই টের পেয়েছিল নাশভিল। এদিন তাই শুরু থেকেই মেসিকে কড়া মার্কিংয়ে রাখে দলটি। সের্জিও বুসকেতস ও জর্দি আলবার সঙ্গে সংযোগ বন্ধ করতে পারায় সফল হয় দলটি।

তবে ঘরের মাঠে আধিপত্য বিস্তার করেই খেলতে থাকে মায়ামি। মাঝ মাঠ ছিল তাদের দখলেই। ৬৯ শতাংশ সময় বল দখলে ছিল তাদের। শটও নেয় ১৩টি, যার ৪টি ছিল লক্ষ্যে। অন্যদিকে ৭টি শট নিয়ে ২টি লক্ষ্যে রাখে সফরকারীরা। তবে জালের দেখা পায়নি কেউই।

প্রথমার্ধে অবশ্য গোল করার মতো বেশ কিছু সুযোগ পেয়েছিল মায়ামি। কিন্তু ফরোয়ার্ডদের ব্যর্থতায় গোল মিলেনি। মেসির পাস থেকে ম্যাচের ২৬তম মিনিটে দারুণ সুযোগ পেয়েছিলেন আলবা। কিন্তু ঠিকঠাক শট নিতে পারেননি। ৪৩তম মিনিটে মেসির বাড়ানো বল একেবারে ফাঁকায় বল পেয়ে গিয়েছিলেন টেইলর। তবে তার শট অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়।

৫৬তম মিনিটে দারুণ সুযোগ ছিল নাশভিলের ফুকান্দো ফেরিয়াসের। গোলরক্ষককে একা পেয়ে গিয়েছেন তিনি। কিন্তু দারুণ ট্যাকলে সে যাত্রা মায়ামিকে রক্ষা করেন কামাল মিলার। ৬৫তম মিনিটেও এগিয়ে যেতে পারতো সফরকারীরা। বাঁ প্রান্ত থেকে নেওয়া জেকব সাফারবার্গের শট দুর্দান্ত দক্ষতায় আটকে দেন মায়ামি গোলরক্ষক ড্রেক ক্যালেন্ডার। তিন মিনিট বল জালে পাঠালেও অফসাইডের কারণে গোল মিলেনি তাদের। 

Comments

The Daily Star  | English
Will the Buet protesters’ campaign see success?

Ban on student politics: Will Buet protesters’ campaign see success?

One cannot help but note the irony of a united campaign protesting against student politics when it is obvious that student politics is very much alive on the Buet campus

8h ago