ফিলিপ্সের আত্মবিশ্বাস ভেঙে দিয়েছিলেন গার্দিওলা!

বেশ দারুণ সম্ভাবনা নিয়েই ২০২২ সালে লিডস ইউনাইটেড ছেড়ে ম্যানসিটিতে যোগ দিয়েছিলেন ফিলিপ্স

বর্তমান বিশ্বের সেরা কোচদের কাতারে সবার উপরেই থাকবে পেপ গার্দিওলার নাম। অন্তত পরিসংখ্যান তাই বলে। অনেক গড়পড়তার খেলোয়াড়দের কাছ থেকে সেরাটা বের করে আনার সুনাম রয়েছে তার। অনেককেই করেছেন বিশ্বসেরা। সেখানে এই স্প্যানিশ কোচের উপর বড় অভিযোগ এনেছেন এই শীতেই ম্যানচেস্টার সিটি ছেড়ে ধারে ওয়েস্টহ্যামে যোগ দেওয়া ক্যালভিন ফিলিপ্স।

মূলত হুট করেই ছন্দ হারানো এই মিডফিল্ডারের আত্মবিশ্বাস বাড়ানো দূরের কথা আরও তলানিতে ঠেলে দেন গার্দিওলা। ওয়েস্টহ্যামে যোগ দেওয়ার পর সম্প্রতি এই প্রসঙ্গে মুখ খুলেছেন ফিলিপ্স, '(কাতার) বিশ্বকাপের পর আমি সবচেয়ে কঠিন বিষয়টি অনুভব করি, যখন পেপ এসে বলেছিলেন যে আমার ওজন বেশি। তিনি ঠিক ছিলেন, তবে এটা বলার আরও বিভিন্ন উপায় রয়েছে।'

গার্দিওলার সঙ্গে দ্বিমত পোষণ না করলেও সরাসরি বলায় মনোবল ভেঙে যায় ফিলিপ্সের। যা থেকে আর উতরে উঠতে পারছিলেন না। অথচ বেশ দারুণ সম্ভাবনা নিয়েই ২০২২ সালে লিডস ইউনাইটেড ছেড়ে ম্যানসিটিতে যোগ দেন এই ইংলিশ মিডফিল্ডার। ধীরে ধীরে জায়গা হারাতে শুরু করেন। বিশেষকরে কাতার বিশ্বকাপের পর আর তেমন একটা জায়গাই হয়নি একাদশে। গার্দিওলাও তাকে নিজের পরিকল্পনা থেকে বাদ দিয়ে দেন।

তাতে নিজের পরিবার থেকেই চাপে ছিলেন বলে জানান ফিলিপ্স, 'পেপ খুব হতাশ ছিল কারণ আমি আমার লক্ষ্য ওজনের চেয়ে দেড় কেজি হয়েছি। এটা আমার আত্মবিশ্বাসের জন্য একটি বড় ধাক্কা ছিল এবং আমি সিটিতে কেমন অনুভব করেছি। আমার পরিবারও এটা নিয়ে খুশি ছিল না, বিশেষ করে আমার মা। তিনি হতাশ হয়ে পড়েন। তিনি খুব বেশি দেখতে আসেননি কারণ তিনি আমাকে ছাড়া ফুটবল দেখতে পছন্দ করতেন না।'

পাকাপাকি না হলেও এই জানুয়ারিতে ধারে সিটি ছেড়ে ওয়েস্টহ্যামে যোগ দিয়েছেন ২৮ বছর বয়সী এই মিডফিল্ডার। আর এটা না করলে আগামী ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে জায়গা পাওয়ার কোনো সম্ভাবনাই থাকতো না বলে মনে করেন তিনি। ইংল্যান্ড দলের কোচ গ্যারেথ সাউথগেটের সঙ্গে আলোচনা করেই এই ট্রান্সফার করেছেন বলে জানান ফিলিপ্স।

এখন ছন্দ খুঁজে পাওয়াই মূল লক্ষ্য তার, 'আমি এই গ্রীষ্মের ইউরোতে থাকতাম না যদি আমি জানুয়ারিতে না চলে যেতাম। আমি জানুয়ারী উইন্ডোর এক মাস আগে ইংল্যান্ডের ম্যানেজার গ্যারেথ সাউথগেটের সঙ্গে কিছু দল সম্পর্কে কথা বলেছিলাম এবং তিনি আমাকে অন্যদেশে যাওয়ার পরিবর্তে প্রিমিয়ার লিগে থাকতে প্রভাবিত করেন। আমি ভেবেছিলাম ওয়েস্টহ্যামই সঠিক জায়গা। আমি ধারাবাহিকতা খুঁজছি, অন্যথায় আমার জায়গায় অন্য কেউ খেলবে এবং এটা হৃদয়বিদারক হবে।'

Comments

The Daily Star  | English

Bheem finds business in dried fish

Instead of trying his luck in other profession, Bheem Kumar turned to dried fish production and quickly changed his fortune.

1h ago