এমবাপের পিএসজি ছাড়া নিয়ে যা বললেন কোচ

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলোর খবর, ক্লাব কর্তৃপক্ষকে পিএসজি ছাড়ার ঘোষণা দিয়ে দিয়েছেন এমবাপে
ছবি: এএফপি

অবশেষে পিএসজি ছাড়ার ঘোষণাটা দিয়ে দিয়েছেন কিলিয়ান এমবাপে। ক্লাবের সভাপতি নাসের আল খেলাইফিকে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন নিজের ইচ্ছার কথা। আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে এমন সংবাদ প্রকাশ পেয়েছে ফলাও করে। জানিয়েছেন ট্রান্সফার উইন্ডো বিশেষজ্ঞ সাংবাদিকরাও। তবে এই বিষয়ে কোনো ধরণের মন্তব্য করতে রাজী হননি পিএসজি কোচ লুইস এনরিকে।

যদিও ২০১৮ বিশ্বকাপের পর প্রতি মৌসুমেই এমবাপের পিএসজি ছাড়ার গুঞ্জন ওঠে। কিন্তু এখন পর্যন্ত প্যারিসেই আছেন তিনি। তবে এবার বিষয়টি সম্পূর্ণ ভিন্ন বলেই দাবি সংবাদমাধ্যমগুলোর। যদিও কোন ক্লাবে তাঁবু ফেলবেন তা খোলাসা হয়নি। তবে পিএসজির সঙ্গে সাত বছরের সম্পর্কের অবসান হওয়ার বিষয়টি প্রায় চূড়ান্ত।

স্বাভাবিকভাবেই নতেঁর বিপক্ষে লিগা ওয়ানের ম্যাচে মাঠে নামার আগে প্রধান কোচ এনরিকের সংবাদ সম্মেলনে উঠে আসে বিষয়টি। তবে এ নিয়ে কোনো কথা বলতেই রাজী নন এই স্প্যানিশ কোচ, 'না। আমি কিছু বলতে পারছি না। আমি এই বিষয়টি নিয়ে আলোচনার অবসান ঘটাতে চেষ্টা করছি। আমার করার মতো কোনো মন্তব্য নেই।'

শীর্ষস্থানীয় সব সংবাদমাধ্যম এমবাপের পিএসজি ছাড়ার বিষয়টি উঠে আসলেও পিএসজি কিংবা এমবাপে কোনো পক্ষই কিছু বলেনি। দুই পক্ষ নিজের অবস্থান পরিষ্কার করলে নিজের মতামত দিবেন বলে জানান এনরিকে, 'সংশ্লিষ্ট পক্ষগুলো এখনও প্রকাশ্যে কিছু বলেনি। কিলিয়ান এমবাপেও প্রকাশ্যে কিছু বলেননি। উভয় পক্ষ কথা বললে আমি আমার মতামত জানাব।'

শুক্রবার শিষ্যদের অনুশীলন করিয়েছেন পিএসজি কোচ। এমবাপের ক্লাব ছাড়ার গুঞ্জন অনুশীলনে কোনো প্রভাব পড়েনি বলে দাবি করেন এনরিকে, 'অনুশিলনের পরিবেশ আগের অন্য যেকোনো খেলার মতোই। এবং এই ক্ষেত্রে, নতেঁর চেয়ে এগিয়ে। কোনো খবর ছাড়াই একটা একটি একটি সাধারণ অনুশীলন সেশন ছিল।'

এমনকি এই বিষয়ে নিজেও বিচলিত নন এই কোচ, 'আমি মোটেও চিন্তিত নই... ক্লাবকে ঘিরে সবসময়ই নানা গুজব ছড়িয়ে থাকে, কীভাবে তা পরিচালনা করতে হয় তা আপনাকে জানতে হবে। সবসময় সমালোচনা এবং প্রশংসা থাকবে। সবকিছুই স্বাভাবিক। বিতর্কও রয়েছে, আমরা জানি। আপনি যদি এটা পছন্দ না করেন তাহলে আপনি এমন ক্লাবে থাকতে পারবেন না।'

২০১৭ সালে মোনাকো থেকে পিএজসিতে নাম লেখান এমবাপে। তবে ২০২২ সালে রিয়াল মাদ্রিদে যাওয়ার বিষয়টি প্রায় পাকা হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু পরে ফরাসি প্রেসিডেন্টের অনুরোধে দুই বছরের নতুন চুক্তি করেনতিনি। সেই চুক্তির মেয়াদ শেষ হচ্ছে এই মৌসুম শেষেই। যদিও শর্ত ছিল চাইলে মেয়াদ এক বছর বাড়াতে পারবেন এমবাপে। কিন্তু সে পথে না হেঁটে ফ্রি এজেন্ট হয়ে ক্লাব ছাড়তে চান এই তারকা।

Comments

The Daily Star  | English

BCL leaders beaten up, forced out of most DU halls overnight

Students make hall provosts sign notices banning politics in the halls

1h ago