হিগুয়েইন-ইম্মোবেলের রেকর্ড ভাঙতে পারবেন লাউতারো?

দলের প্রধান পেনাল্টি-টেকার হলে হয়তো হিগুয়েইন-ইম্মোবেলের রেকর্ড ভাঙা খুবই সম্ভব হতো লাউতারো মার্তিনেজের জন্য

চলতি মৌসুমের শুরু থেকেই দারুণ ছন্দে খেলে চলেছেন ইন্টার মিলান অধিনায়ক লাউতারো মার্তিনেজ। সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে সিরিআয় এরমধ্যেই ২৩ ম্যাচে গোল করেছেন ২২টি। ফলে চিরো ইম্মোবেলে এবং গঞ্জালো হিগুয়েইনের করা সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ডে ভাঙার দারুণ সম্ভাবনা রয়েছে এই আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডের।

রোববার রাতে লিসের মাঠে তাদের ৪-০ গোলের ব্যবধানে হারিয়েছে ইন্টার মিলান। দলের এই দারুণ জয়ে জোড়া গোল করেছেন লাউতারো। যা চলতি মৌসুমে তার ২১ ও ২২তম গোল। তাতেই সেরা গোলদাতা হওয়ার দৌড়ে আরও এগিয়ে গিয়েছেন এই আর্জেন্টাইন।

সিরিয়ায় এখন পর্যন্ত ২৫টি ম্যাচ খেলেছে ইন্টার। অর্থাৎ এখনও ১৩টি ম্যাচ রয়েছে তাদের হাতে। ইম্মোবেলে ও হিগুয়েইনের রেকর্ড স্পর্শ করতে হলে এই ১৩ ম্যাচে তাকে গোল করতে হবে ১৪টি। তার চেয়ে একটি বেশি করলে রেকর্ডটি নিজের করে নিতে পারবেন এই ফরোয়ার্ড।

তবে লাউতারোর করা ২২ গোলের মধ্যে মাত্র ২টি করেছেন পেনাল্টি থেকে। দলের প্রধান পেনাল্টি-টেকার হাঁকান তুরস্কের মিডফিল্ডার হাঁকান কালহানোগ্লু। যিনি এই মৌসুমে সিরিআয় স্পটকিক থেকে গোল করেছেন ৭টি। অর্থাৎ মূল পেনাল্টি-টেকার হলে এরমধ্যেই লাউতারোর গোলসংখ্যা হতে পারতো ৩১।

২০১৫-১৬ মৌসুমে নাপোলিতে থাকাকালীন অবস্থায় লিগে ৩৬টি গোল দিয়ে সর্বোচ্চ গোলের এই রেকর্ড গড়েন হিগুয়েইন। এরপর ২০১৯-২০ মৌসুমে লাৎসিওর হয়ে তার রেকর্ডটি স্পর্শ করেন ইম্মোবেলে। এই দুই খেলোয়াড়ই নিজ নিজ দলের প্রধান পেনাল্টি-টেকার ছিলেন।

আর লাউতারোর এমন পারফরম্যান্সে উজ্জীবিত তার দলও। স্কুদেত্তো পুনরুদ্ধারের সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে জোরালোভাবে। এক ম্যাচ কম খেলেই দ্বিতীয় স্থানে থাকা জুভেন্তাসের চেয়ে ৯ পয়েন্ট ব্যবধানে এগিয়ে শীর্ষে রয়েছে ইন্টার। বাড়তি ম্যাচটিতে জয় পেলে এই ব্যবধান দাঁড়াবে ১২'তে।

Comments

The Daily Star  | English
mental health of students

Troubled: Mental health challenges of our school children

Unfortunately, a child suffering from mental health issues is often told, “get over it” or “it’s all in your head.”

5h ago