নতুন নেতৃত্ব তৈরির দিকে মন দিলেন হাথুরুসিংহে

নিবিড় অনুশীলনের ফাঁকে চলছে ছোট বড় কিছু সভা। এরকম এক সভায় বিশেষ গুরুত্ব পেয়েছেন লিটন দাস, মেহেদী হাসান মিরাজ, নাজমুল হোসেন শান্ত। বাংলাদেশের কোচ আরও দুজনের নাম উল্লেখ করে আগামীর কাণ্ডারিদের এক ছবি তুলে ধরেছেন।  
Litton Das, Najmul Hossain Shanto

নতুন মেয়াদে দায়িত্ব নিয়ে বাংলাদেশে আসার পর ভীষণ ব্যস্ত সময় পার করছেন চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। নিবিড় অনুশীলনের ফাঁকে চলছে ছোট বড় কিছু সভা। এরকম এক সভায় বিশেষ গুরুত্ব পেয়েছেন লিটন দাস, মেহেদী হাসান মিরাজ, নাজমুল হোসেন শান্ত। বাংলাদেশের কোচ আরও দুজনের নাম উল্লেখ করে আগামীর কাণ্ডারিদের এক ছবি তুলে ধরেছেন।  

মাশরাফি মর্তুজার পর বাংলাদেশের ওয়ানডে দলে চার অভিজ্ঞ তারকা সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে আলাদা গুরুত্ব দেওয়া হয়ে আসছিল এতদিন। ঘুরেফিরে দলের নেতৃত্বেও ছিলেন তারা।

তবে এই চার তারকার সবাই আছেন ক্যারিয়ারের গোধূলি লগ্নে। সেই চিন্তা মাথায় আছে হাথুরুসিংহের। এবার যোগ দিয়ে তামিম, মুশফিক, মাহমুদউল্লাহর সঙ্গে নীতি নির্ধারণী এক সভায় রাখেন লিটন, মিরাজ ও শান্তকে।

মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনে এসে জানালেন তার তালিকায় আছেন তাসকিন আহমেদ ও মোস্তাফিজুর রহমানও। এতে করে আগামীর নেতৃত্বের একটা ছবি পরিষ্কার হয়ে যায়,  'এটা চ্যালেঞ্জ নয়, এটা একটা দায়িত্ব বলতে পারেন। আপনারা জানেন আমাদের চার-সিনিয়র ১৫-১৭ বছর খেলে ফেলেছে। আর ১০ বছর তো তারা খেলবে না। আমাদের নতুন প্রজন্মের নেতৃত্ব গড়তে হবে। আমার কাউকে বাছতে হচ্ছে না। তারা তাদের পারফরম্যান্স দিয়েই নিজেদের তুলছে। লিটন, মিরাজ ও শান্ত ছিল সেদিন। তাসকিন ও ফিজ জিমে ছিল। (সভার সময়)। বাংলাদেশের ক্রিকেটকে পরের ধাপে নিতে তারা তাদের অ্যাটিচ্যুড দিয়ে নিজেদের মেলে ধরছে যেমন কীভাবে প্রস্তুত হতে হয়, ড্রেসিংরুমে কেমন আচরণ করতে হয়।'

বাংলাদেশের অন্যতম সফল কোচ মনে করেন এখনকার তরুণরা অনেক বেশি বুদ্ধিদীপ্ত। নিজেদের সামর্থ্য ও ভূমিকা সম্পর্কে সবারই আছে সজাগ ধারণা, কারো পেছনে তাই বাড়তি সময় ব্যয় করতে হচ্ছে না,  'আমার মনে হয় নিজেদের ভূমিকা সম্পর্কে অনুধাবন করার দিক থেকে তারা অনেক উন্নতি করেছে। এমনকি তরুণদেরকে খুব বেশি গাইড করার দরকার নেই। তারা জানে কীভাবে প্রস্তুত হতে হয়।'

Comments