ওয়েস্ট ইন্ডিজকে গুঁড়িয়ে এবার স্কটল্যান্ডের চমক

হোবার্টে সোমবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম রাউন্ডের ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৪২ রানে হারিয়েছে স্কটল্যান্ড। আগে ব্যাট করে জর্জ মানসির ফিফটিতে ১৬০ রান করেছিল তারা। রান তাড়ায় হাবুডুবু খাওয়া ক্যারিবিয়ানরা করতে পেরেছে ১১৮  রান।
Scotland

প্রথম দিন সাবেক চ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কাকে উড়িয়ে বিশ্বকাপে বড় খবরের জন্ম দিয়েছিল নামিবিয়া। দ্বিতীয় দিনে তাদের অনুসরণ করে চমক দেখালে স্কটল্যান্ডও। টি-টোয়েন্টির দুইবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে দিয়েছে তারা। এমনকি ক্যারিবিয়ারা তেমন লড়াইও জমাতে পারেনি। এই ম্যাচের পর কোয়ালিফায়ারের মৃত্যুকূপ 'বি' গ্রুপের সমীকরণও হয়ে গেছে কঠিন।

হোবার্টে সোমবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম রাউন্ডের ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৪২ রানে হারিয়েছে স্কটল্যান্ড। আগে ব্যাট করে জর্জ মানসির ফিফটিতে ১৬০ রান করেছিল তারা। রান তাড়ায় পুরোটা সময় হাবুডুবু খাওয়া ক্যারিবিয়ানরা করতে পেরেছে ১১৮  রান।

দারুণ এই জয়ে বোলিংয়ে স্কটল্যান্ডের নায়ক বেশ কজন। বাঁহাতি স্পিনার মার্ক ওয়াট ৪ ওভার হাত ঘুরিয়ে স্রেফ ১ রান দিয়ে নিয়েছেন ৩ উইকেট। পেসার ব্রেড হোয়েল ৩২ রানে পেয়েছেন ২ উইকেট। আরেক পেসার জর্জ ডেভি ২৩ রানে নিয়েছেন ১ উইকেট। দুর্দান্ত বল করেছে অফ স্পিনার মাইকেল লিস্ক। মোড় ঘুরিয়ে দেওয়া স্পেলে স্রেফ ১৫ রান দিয়ে তিনি আউট করেছেন ক্যারিবিয়ান দুই ব্যাটারকে।

১৬১ রানের লক্ষ্যে নেমে আগ্রাসী শুরুর তালে ছিলেন কাইল মেয়ার্স। ক্রিজে গিয়েই মারছিলেন দেখার মতো কিছু শট। ৩ চার ১ ছক্কায় দ্রুতই চলে যান ২০ রানে। তবে শট সিলেকশনের গড়বড় করে সম্ভাবনাময় ইনিংসটার ইতি টানেন তিনি।

জস ডেভির তুলে মারতে গিয়ে ১৩ বলে ২০ রানের ইনিংস থামে মেয়ার্সের। আরেক ওপেনার এভিন লুইস ছিলেন জড়সড়ো। ১ চার, ১ ছক্কা মারলেও ১৪ রান করতে তিনি লাগিয়ে দেন ১৩ বল, ফেরেন ব্রেড হোয়েলের বলে। শেমরন হেটমায়ারের বদলে দলে আসা ব্র্যান্ডন কিং করেন হতাশ। থিতু হয়ে বাঁহাতি স্পিনার মার্ক ওয়াটকে উইকেট দেন তিনি।

Nicholas Pooran

খানিক পর সবচেয়ে বড় উইকেট নেন অফ স্পিনার লিস্ক। ক্যারিবিয়ান কাপ্তান নিকোলাস পুরানকে বোল্ড করে দেন তিনি। ৬২ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে বসে উইন্ডিজ।

খাদের কিনার থেকে দলকে বাঁচাতে পারতেন রভম্যান পাওয়েল। ব্যর্থ তিনিও। তাকেও শিকার ধরেন লিস্ক। ৬৯ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে তখন ভিত কেঁপে উঠেছে দুইবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের। হোয়ালের বলে শারমাহ ব্রোকসও ক্যাচ দিয়ে ফিরে গেলে ম্যাচ হেলে যায় স্কটিশদের দিকে।

খানিক পর আকিল হোসেন নেমে হয়ে যান রান আউট, আলজেরি জোসেফ ক্যাচ দেন উইকেটের পেছনে। জেসন হোল্ডার এক প্রান্তে টিকে থাকলেও সঙ্গী পাননি। ৩৩ বলে ৩৮ করে শেষ ব্যাটার হিসেবে পেসার সাফওয়ান শরিফের বলে আউট হয়েছেন তিনি।

George Munsey
ফিফটির পর জর্জ মানসি।

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে উড়ন্ত সূচনা আনেন মানসি মাইকেল জোনস। পাওয়ার প্লেতে ৫০ ছাড়িয়ে যায় স্কটল্যান্ডের রান। পাওয়ার প্লের শেষ দিকে নামা বৃষ্টিতে খেলা বন্ধ থাকার পর গতিও যেন হ্রাস পায়। ১৭ বলে ২০ রান করে পাওয়ার প্লের ঠিক পরেই বিদায় নেন জোনস। জেসন হোল্ডারের বলে বোল্ড হয়ে যান তিনি।

হোল্ডার খানিক পর তুলে নেন ম্যাথু ক্রসকেও। চারে নেমে রিচি বেরিংটন ঝড় তুলতে পারেননি।  তাকে ফেরান আলজেরি জোসেফ। মাঝের ওভারে স্কটল্যান্ডের ইনিংসে ছিল মন্থর গতি। 

তবে এক প্রান্ত আগলে দল ঠিকই দৌড়ে রাখেন মানসি। কলাম ম্যাকলিওড নেমে ১৪ বলে ২৩ রানের ছোট্ট এক ঝড় তুলে রানের চাকাতেও গতি আনেন। শেষ দিকে ১১ বলে ১৬ করেন ক্রিস গেইভস।

৪৩ বলে ফিফটি করা মানসি ৫৩ বলে ৯ চারে অপরাজিত থাকেন ৬৬ রানে। স্কটশিরা ১৬০ স্পর্শ করলেও শুরুর তুলনায় কিছুটা কম রান করে তারা। তবু এই পুঁজি নিয়েই বড় জয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করল সহযোগি সদস্য দেশটি।

Comments

The Daily Star  | English
Wealth accumulation: Heaps of stocks expose Matiur’s wrongdoing

Wealth accumulation: Heaps of stocks expose Matiur’s wrongdoing

NBR official Md Matiur Rahman, who has come under the scanner amid controversy over his wealth, has made a big fortune through investments in the stock market, raising questions about the means he applied in the process.

16h ago