টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ

নিউইয়র্কের ‘বিপদজনক’ উইকেট নিয়ে বিশ্বজুড়ে সমালোচনা

কেউ বলছেন অগ্রহণযোগ্য, কেউ বলছেন বিপদজনক। মাত্র পাঁচ মাসে বানানো নিউ ইয়র্কের নাসাউ ক্রিকেট গ্রাউন্ড মাঠ ও উইকেট নিয়ে শুরু হয়েছে তুমুল সমালোচনা।
 Nassau County International Cricket Stadium

কেউ বলছেন অগ্রহণযোগ্য, কেউ বলছেন বিপদজনক। মাত্র পাঁচ মাসে বানানো নিউ ইয়র্কের নাসাউ ক্রিকেট গ্রাউন্ড মাঠ ও উইকেট নিয়ে শুরু হয়েছে তুমুল সমালোচনা। বিশ্বকাপে এই মাঠে হওয়া দুই ম্যাচেই দেখা গেছে কঠিন উইকেট ও বাজে আউটফিল্ড দেখে আইসিসির সমালোচনা করছেন সাবেক তারকা ক্রিকেটাররা।

অস্থায়ীভাবে বানানো নাসাউ কাউন্টি গ্রাউন্ডে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে গত সোমবার মাত্র ৭৭ রানে অলআউট হয়ে যায় শ্রীলঙ্কা। ওই রান টপকাতেও বেশ বেগ পেতে হয় প্রোটিয়াদের। সেদিনই আচমকা বাউন্সের জন্য উইকেট বেশ নজর কাড়ে। ভারি আউটফিল্ডের গতিহীনতাও তৈরি করে অস্বস্তি।

বুধবার ভারতের বিপক্ষে আয়ারল্যান্ড অলআউট হয় স্রেফ ৯৭ রানে। ভারত ৮ উইকেটে জিতলেও তাদেরও ভুগতে হয়। এই ম্যাচ চলাকালীন তুমুল সমালোচনায় পড়ে উইকেট।

জিম্বাবুয়ের সাবেক ক্রিকেটার ও কোচ অ্যান্ডি ফ্লাওয়ার তো মনে করেন উইকেট রীতিমতো বিপদজনক, 'আমি বলতে চাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলার জন্য এই উইকেট আদর্শ নয়। এটা বিপদজনক পিচ।' 

'আপনারা দেখেছেন লেন্থ থেকে বল লাফাচ্ছে, স্কিড করছে আবার নিচু হচ্ছে। মূল সমস্যা হচ্ছে এমন জায়গা থেকে বল লাফাচ্ছে যেটা হাতে এসে আঘাত করছে। হেলমেট পরেও ব্যাটারদের বেশ ঝুঁকি তৈরি হচ্ছে।'

আয়ারল্যান্ডের কোচ হেনরিক মালানের প্রকাশ্যে সমালোচনা করলে জরিমানা গুনতে হতো। তবে হতাশা আড়াল করেননি, 'আপনি যখন খেলবেন আশা করবেন ভালো উইকেট থাকবে। কিন্তু এখানে একাধিক ম্যাচে আমরা দেখলাম উইকেট তেমন ছিলো না। আশা করছি আগামীতে এখানে উইকেট ভালো পাওয়া যাবে।'

দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক ক্রিকেট ও কোচ মিকি আর্থারের মতে নিউ ইয়র্কের উইকেট স্রেফ বাজে,  'নিউ ইয়র্কের এই পিচ খুবই বাজে!'

এই উইকেটে ম্যাচ দেয়ায় আইসিসিকে এক হাত নিয়েছেন সাবেক ইংল্যান্ড অধিনায়ক মাইকেল ভন। তার মতে এমন নিম্নমানের উইকেটে খেলা দেয়া গ্রহণযোগ্য না, 'যুক্তরাষ্ট্রে ক্রিকেট ছড়িয়ে দেওয়ার উদ্যোগ ভালো। কিন্তু এটা করতে গিয়ে খেলোয়াড়দের নিউ ইয়র্কের এই নিম্নমানের উইকেটে খেলতে হবে, তা অগ্রহণযোগ্য।'

ম্যাচ জিতলেও ভারত অধিনায়ক রোহিত শর্মাও জানান উইকেট ছিলো একপেশে,  'আমার মনে হয় না এই পিচ থিতু হয়েছে। এখানে বোলারদের জন্য অনেক কিছু ছিলো। টেস্ট ম্যাচে বোলিং হিসেবে ভাবতে হয়েছে। জানি না আগামী উইকেট কেমন আচরণ করবে।'

Comments