বিশ্বকাপ দেখল প্রথম রিটায়ার্ড আউট

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে রিটায়ার্ড আউট হয়েছেন নামিবিয়ার ব্যাটার নিকোলাস ডেভিন

প্রথম আট আসরে রিটায়ার্ড আউটের ঘটনা দেখতে পারেনি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। অবশেষে নবম আসরে প্রথমবারের মতো এমন আউটের দৃশ্যায়ন হলো কুড়ি ওভারের বিশ্বকাপের মঞ্চে। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে শনিবার নামিবিয়ার ব্যাটার নিকোলাস ডেভিন আউট হয়েছেন এই উপায়ে। যেটি সাদা বলের বিশ্বকাপেই প্রথম রিটায়ার্ড আউটের ঘটনা। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে যদিও এমন আউটের উদাহরণ আছে আরও ছয়টি।

অ্যান্টিগার স্যার ভিভিয়ান রিচার্ডস স্টেডিয়ামে বৃষ্টিবাধায় খেলা শুরু হয় নির্ধারিত সময়ের তিন ঘণ্টা পরে। ১১ ওভারের খেলা আরেকবার বৃষ্টির কবলে পড়ে ১০ ওভারের হয়ে যায়। ইংল্যান্ড প্রথমে ব্যাট করে ১২২ রানের স্কোর গড়ে। ডিএলএস পদ্ধতিতে নামিবিয়ার জন্য লক্ষ্য দাঁড়ায় ১২৬ রান।

রান তাড়ায় ওপেনার ডেভিন শুরু থেকে ভোগান্তিতে থাকেন। ডানহাতি এই ব্যাটার বড় শট খেলার চেষ্টায় বারবার ব্যর্থ হচ্ছিলেন। ব্যাটে-বলে করতে না পেরে হুট করে দেখা যায় তিনি ডাগআউটের দিকে চলে যাচ্ছেন। ৬ ওভার শেষে নামিবিয়ার স্কোর যখন ৪৪, তখন একটি করে চার ও ছক্কায় ১৮ বলে ১৬ রান করা ডেভিন আউট হওয়ার পথ বেছে নেন। নামিবিয়ার সেসময় প্রয়োজন ছিল ৪ ওভারে ৮২ রান। শেষ পর্যন্ত ১০ ওভারে ৮৪ রানে থেমে গেরহার্ড এরাসমাসের দলকে ৪১ রানের হারে বিশ্বকাপ শেষ করতে হয়।

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে এর আগেও ডেভিনের মতো রিটায়ার্ড আউট হয়েছেন আরও চারজন। প্রথমবার ২০১৯ সালে ভুটানের সোনম টোবগে এভাবে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেছিলেন। এরপর ফ্রান্সের হেভিট জ্যাকসন নামের এক ব্যাটার দুইবার রিটায়ার্ড আউট হয়েছেন। আর এই উপায়ে আউট হওয়া আরেক ব্যাটার হলেন গাম্বিয়ার মোস্তফা সুয়ারেহ।

প্রথমবার কোনো বিশ্বকাপে ডেভিনের রিটায়ার্ড আউট হওয়ার পর ক্রিজে নেমেছিলেন ডেভিড ভিসা। এ ব্যাপারে নামিবিয়ার এই অলরাউন্ডার বলেন, 'আমিও বিস্মিত হয়েছি। এটা প্রত্যাশায় ছিল না। এই প্রথমবারের মতো আমি এটার সঙ্গে সম্পৃক্ত হলাম। আমার মনে হয়, এমন ঘটনা বেশি হয়নি।'

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে পূর্ণ সদস্য দেশের কোনো ব্যাটার এখনো রিটায়ার্ড আউট হননি। তবে টেস্ট ক্রিকেটে তা হয়েছে এবং সেটির সাথে জড়িয়ে আছে বাংলাদেশ। না, বাংলাদেশের কোনো ব্যাটার এরকম আউট হননি। বাংলাদেশের বিপক্ষেই আসলে শ্রীলঙ্কার দুজন ব্যাটার রিটায়ার্ড আউট হয়েছিলেন। ২০০১ সালে কলম্বোতে একই টেস্টে তা ঘটেছিল। মারভান আতাপাত্তু ২০১ রান এবং মাহেলা জয়াবর্ধনে ১৫০ রানে নিজেদের ইনিংসের শেষ লিখেছিলেন রিটায়ার্ড আউট হয়ে।

ওয়ানডে ক্রিকেটে এমন আউটের নজির নেই। ডেভিনের রিটায়ার্ড আউটের ঘটনা আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সপ্তম।

Comments