সাকিবের শততম টি-টোয়েন্টিতে টস জিতে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ

শ্রীলঙ্কাকে বিধ্বস্ত করা আফগানিস্তানের সামনে প্রথম দল হিসেবে এশিয়া কাপের সুপার ফোর নিশ্চিত করার সুযোগ। অন্যদিকে, বাংলাদেশের লক্ষ্য তাদেরকে হারিয়ে আসরে শুভ সূচনা করা।
ছবি: টুইটার

শ্রীলঙ্কাকে বিধ্বস্ত করা আফগানিস্তানের সামনে প্রথম দল হিসেবে এশিয়া কাপের সুপার ফোর নিশ্চিত করার সুযোগ। অন্যদিকে, বাংলাদেশের লক্ষ্য তাদেরকে হারিয়ে আসরে শুভ সূচনা করা। যদিও কাজটা কোনোভাবেই সহজ হবে না। টি-টোয়েন্টিতে আফগানরা বরাবরই টাইগারদের জন্য কঠিন প্রতিপক্ষ। এমন যখন পরিস্থিতি, তখন আগে ব্যাট করতে নামছে বাংলাদেশ। বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ারের শততম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে টস জিতেছেন তাদের অধিনায়ক সাকিব আল হাসান।

মঙ্গলবার শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টি-টোয়েন্টি সংস্করণের এশিয়া কাপের 'বি' গ্রুপের ম্যাচে মুখোমুখি হচ্ছে বাংলাদেশ ও আফগানিস্তান। খেলা মাঠে গড়াচ্ছে বাংলাদেশ সময় রাত আটটায়। টি-টোয়েন্টিতে দুই দলের আগে সাক্ষাৎ হওয়া আট ম্যাচে জয়ের পাল্লা ভারী রশিদ খান-হজরতউল্লাহ জাজাইদের। তাদের পাঁচ জয়ের বিপরীতে বাংলাদেশের জয় তিনটিতে।

চলতি মাসের শুরুতে জিম্বাবুয়ে সফরে সবশেষ টি-টোয়েন্টির একাদশে পাঁচটি পরিবর্তন এনেছে বাংলাদেশ। নেই লিটন দাস, পারভেজ হোসেন ইমন, নাজমুল হোসেন শান্ত, নাসুম আহমেদ ও হাসান মাহমুদ। তাদের জায়গায় ফিরেছেন সাকিব, মুশফিকুর রহিম, নাঈম শেখ, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন ও তাসকিন আহমেদ। বোলিংয়ে সাতটি বিকল্প রয়েছে বাংলাদেশের একাদশে। পেস বিভাগে সাইফউদ্দিন ও তাসকিনের সঙ্গে আছেন মোস্তাফিজুর রহমান। স্পিনে সাকিবের সঙ্গী শেখ মেহেদী হাসান, আফিফ হোসেন ও মোসাদ্দেক হোসেন। শেষ মুহূর্তে এশিয়া কাপের দলে ডাক পাওয়া ওপেনার নাঈম চমক জাগিয়ে সুযোগ পেয়েছেন।

আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে একশ ম্যাচের মাইলফলক স্পর্শ করা বাংলাদেশের তৃতীয় ক্রিকেটার সাকিব। এর আগে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও মুশফিকুর রহিম পূরণ করেছেন অন্যরকম এই সেঞ্চুরি। সবমিলিয়ে বিশ্বের ১৫তম ক্রিকেটার হিসেবে টি-টোয়েন্টিতে শততম ম্যাচ খেলার কীর্তি গড়লেন সাকিব। ২০০৬ সালের নভেম্বরে খুলনায় জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে এই সংস্করণে অভিষেক হয়েছিল এই বাঁহাতি তারকা অলরাউন্ডারের। 

এশিয়া কাপে এবার দুরন্ত সূচনা করেছে মোহাম্মদ নবির নেতৃত্বাধীন আফগানরা। আসরের উদ্বোধনী ম্যাচে তারা ৮ উইকেটের বিশাল ব্যবধানে উড়িয়ে দেয় শ্রীলঙ্কাকে। ১০৬ রানের মামুলি লক্ষ্য দলটি পেরিয়ে যায় ৫৯ বল হাতে রেখে। উইনিং কম্বিনেশন ধরে রেখে তারা এই ম্যাচের একাদশে কোনো বদল আনেনি।

বাংলাদেশ একাদশ:

সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), নাঈম শেখ, এনামুল হক বিজয়, মুশফিকুর রহিম, আফিফ হোসেন, মোসাদ্দেক হোসেন, মাহমুদউল্লাহ, শেখ মেহেদী হাসান, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, মোস্তাফিজুর রহমান, তাসকিন আহমেদ।

আফগানিস্তান একাদশ:

মোহাম্মদ নবি (অধিনায়ক), হজরতউল্লাহ জাজাই, রহমানউল্লাহ গুরবাজ, করিম জানাত, ইব্রাহিম জাদরান, নাজিবউল্লাহ জাদরান, রশিদ খান, আহমাদউল্লাহ ওমারজাই, ফজলহক ফারুকি, মুজিব উর রহমান, নাভিন উল হক।

Comments

The Daily Star  | English

One KNF member killed, arms recovered in army raid in Ruma: ISPR

3 women, accompanied by 4 children, sent to jail over suspected ties with group

23m ago