বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা ম্যাচের বাকযুদ্ধে শামিল জয়াবর্ধনেও

গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে আজ রাতে মুখোমুখি হচ্ছে শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশ। সুপার ফোরে উঠতে মোদ্দাকথা এশিয়া কাপে টিকে থাকতে হলে জয় চাই দুই দলেরই। তাই ম্যাচটি এক অর্থে অলিখিত ফাইনাল। বাঁচামরার লড়াই। তবে ম্যাচের আগে বাকযুদ্ধে নেমেছে দলদুটি।

গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে আজ রাতে মুখোমুখি হচ্ছে শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশ। সুপার ফোরে উঠতে মোদ্দাকথা এশিয়া কাপে টিকে থাকতে হলে জয় চাই দুই দলেরই। তাই ম্যাচটি এক অর্থে অলিখিত ফাইনাল। বাঁচামরার লড়াই। তবে ম্যাচের আগে বাকযুদ্ধে নেমেছে দলদুটি।

শুরুটা করেছিলেন লঙ্কান অধিনায়ক দাসুন শানাকা। তার কথার কৌশলী জবাব দিয়েছিলেন মেহেদী হাসান মিরাজ। তবে এ অলরাউন্ডার কৌশলী হলেও রীতিমতো এক হাত নিয়েছেন বাংলাদেশ দলের টিম ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ সুজন। আর সে যুদ্ধে শেষ পর্যন্ত শামিল হয়েছেন লঙ্কান কিংবদন্তি মাহেলা জয়াবর্ধনেও।

আগের দিন ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে শানাকার কথা মনে করিয়ে দেওয়া হয় সুজনকে। তখনই কোনো রাখঢাক না রেখে বলেছেন, 'আমি জানি না শানাকা কেন এমন বলেছে। আমি শুনেছি যে সে বলেছে, বাংলাদেশের সাকিব ও মোস্তাফিজ বাদে বোলার নাই। আমি তো শ্রীলঙ্কার কোনো বোলারই দেখি না। আমাদের অন্তত দুজন আছে। তাদের সাকিব ও মোস্তাফিজের মানেরও কোনো বোলার নাই।'

সুজনের সেই মন্তব্য সামাজিকমাধ্যমে বেশ আলোচনার সৃষ্টি করেছে। ক্রিকেটপাড়ায় ছড়িয়ে পড়েছে এর ভিডিও ক্লিপ। টুইটারে তার একটি রিটুইট করে লঙ্কান কিংবদন্তি জয়াবর্ধনে লিখেছেন, 'দেখে মনে হচ্ছে শ্রীলঙ্কান বোলারদের এখন ক্লাস দেখানোর সময়। এবং মাঠে কারা আছে তা দেখিয়ে দেওয়ার ব্যাটারদেরও মোক্ষম সময়।'

এর আগে আফগানদের বিপক্ষে হারের পর লঙ্কান অধিনায়ক শানাকা বলেছিলেন, 'আফগানিস্তানের বোলিং আক্রমণ বিশ্বমানের। কিন্তু যখন বাংলাদেশের বেলায় আসি...আমরা জানি ফিজ (মোস্তাফিজ) খুব ভালো বোলার, সাকিব বিশ্বমানের। এদের বাদ দিলে তাদের দলে বিশ্বমানের কোনো বোলার নেই। এই কারণে আমার মনে হয়, আফগানিস্তানের তুলনায় বাংলাদেশের বিপক্ষে ম্যাচটা সহজ হবে।'

তার কথা জবাবে পরদিন মিরাজ বলেছিলেন, 'ভালো বা খারাপ, এটা কিন্তু মাঠে প্রমাণ হবে। দেখুন, একটা ভালো দল মাঠে খারাপ খেললে অবশ্যই ম্যাচ হেরে যায়, আবার খারাপ দল ভালো খেললে জিতে যায়। মাঠে পরিচয় হবে কারা ভালো, কারা খারাপ। যারা ভালো খেলবে, দিনশেষে তারাই ম্যাচ জিতবে।'

Comments

The Daily Star  | English

Pahela Baishakh being celebrated

Pahela Baishakh, the first day of Bengali New Year-1431, is being celebrated across the country today with festivity, upholding the rich cultural values and rituals of the Bangalees

1h ago