সাকিবের কাঠগড়ায় ডেথ বোলিং

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে হৃদয়ভাঙা হারে এশিয়া কাপের গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নিতে হলো বাংলাদেশকে।
ছবি: এসিসি

বড় পুঁজি নিয়ে লম্বা সময় ম্যাচের পাল্লা নিজেদের দিকে ধরে রেখেছিল বাংলাদেশ। কিন্তু শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে হৃদয়ভাঙা হারে এশিয়া কাপের গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নিতে হলো তাদের। তীরে এসে তরী ডোবার দায় ডেথ ওভারের বোলিংকে দিলেন টাইগার অধিনায়ক সাকিব আল হাসান।

বৃহস্পতিবার দুবাইতে আসরের 'বি' গ্রুপের নাটকীয় লড়াইয়ে ২ উইকেটে হেরেছে বাংলাদেশ। টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেটে ১৮৩ রান তোলে তারা। জবাবে ৪ বল হাতে রেখে ৮ উইকেটে ১৮৪ রান করে জয় নিশ্চিত করে সুপার ফোরে পা রেখেছে লঙ্কানরা।

শেষ ৪ ওভারে হাতে ৪ উইকেট নিয়ে ৪৩ রান দরকার ছিল শ্রীলঙ্কার। ব্যাটিংয়ে পারদর্শী তাদের শেষ দুই ক্রিকেটার তখন ছিলেন ক্রিজে, অধিনায়ক দাসুন শানাকা ও চামিকা করুনারত্নে। ১৮তম ওভারে অফ স্পিনার শেখ মেহেদী হাসান ফেরান ৩৩ বলে ৪৫ করা বিপজ্জনক শানাকাকে। পরের ওভারে সাকিবের সরাসরি থ্রোতে রানআউট হন ১০ বলে ১৬ রান করা চামিকা। তারপরও দশ নম্বরে নামা আসিথা ফার্নান্দোর কল্যাণে লক্ষ্যে পৌঁছায় লঙ্কানরা। ৩ বলে ১০ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি। ফলে বাংলাদেশকে পুড়তে হয় মুঠো থেকে বেরিয়ে যাওয়া ম্যাচ হারের তীব্র যন্ত্রণায়। এর আগে শ্রীলঙ্কার জয়ের মূল সুর বেঁধে দেন ম্যাচসেরার পুরস্কার জেতা ওপেনার কুসল মেন্ডিস। চার দফা বেঁচে গিয়ে ৬০ রানের গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেলেন তিনি। মাত্র ৩৭ বল মোকাবিলায় তার ব্যাট থেকে আসে ৪ চার ও ৩ ছক্কা।

শ্রীলঙ্কার টপ অর্ডারকে নাড়িয়ে দেওয়া বাংলাদেশের অভিষিক্ত পেসার ইবাদত হোসেন পরে ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে পারেননি। ১৯তম ওভারে তিনি খরচ করেন ১৭ রান। ফলে শেষ ওভারে লঙ্কানদের দরকার দাঁড়ায় ৮ রান। সেসময় শেখ মেহেদী পারেননি দারুণ কিছু করে বাংলাদেশকে জয় পাইয়ে দিতে। তাছাড়া, একগাদা অতিরিক্ত রানও টাইগাররা উপহার দেয় প্রতিপক্ষকে। ইবাদত একাই ছয়টি ওয়াইডের সঙ্গে করেন দুটি নো বল। সমানসংখ্যক নো বল দেন শেখ মেহেদীও।

ম্যাচের পর পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে সাকিব কাঠগড়ায় তোলেন শেষ দিকের ওভারগুলোতে এলোমেলো বোলিংকে, 'ডেথ বোলিং হলো এমন কিছু যেটায় আমরা উন্নতি করার চেষ্টা করছি। এটাই আমাদের ম্যাচ হারিয়ে দিয়েছে। শেষ দুই ওভারে ৮ উইকেট পড়ে যাওয়া অবস্থায় তাদের ১৭-১৮ রান লাগত (চামিকা যখন আউট হন, তখন শ্রীলঙ্কার প্রয়োজন ছিল ৮ বলে ১৩ রান)। কিন্তু তবুও ৪ বল বাকি রেখে তারা জিতেছে। ডেথ ওভারে আমরা ভালো বল করিনি।'

নিজের পাশাপাশি ডানহাতি পেসার তাসকিন আহমেদের ৪ ওভারের কোটা শ্রীলঙ্কার ইনিংসের ১৬ ওভারের মধ্যে শেষ করে ফেলেন সাকিব। তার এই সিদ্ধান্তের কারণে ডেথ ওভারে একটি করে ওভার মেলে বাঁহাতি পেসার মোস্তাফিজুর রহমান ও ইবাদতের। বাকি দুটি করতে হয় শেখ মেহেদীকে। ম্যাচে দারুণ প্রভাব রাখা পেসারদের ওভার জমিয়ে না রাখার ব্যাখ্যায় সাকিব বলেন, 'আমরা দেখছিলাম যে ফাস্ট বোলাররা উইকেট পাচ্ছিল। ফলে শ্রীলঙ্কা চাপে ছিল। আমরা আগেভাগে উইকেট তুলে নিতে চেয়েছিলাম। কিন্তু পেসাররা তাদের পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে না পারায় শেষ ওভারে স্পিনার ব্যবহার করতে হয়।'

Comments

The Daily Star  | English

Lifts at public hospitals: Where Horror Abounds

Shipon Mia (not his real name) fears for his life throughout the hours he works as a liftman at a building of Sir Salimullah Medical College, commonly known as Mitford hospital, in the capital.

4h ago