তামিমের আউটে শেষ বিকেলে অস্বস্তি

একদম শেষ বলে এসে ভুলটা করে ফেললেন অভিজ্ঞ তামিম। অনভিজ্ঞ আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে দাপুটে দিনেও অস্বস্তি থাকল স্বাগতিকদের।
Tamim Iqbal
আউট হয়ে ফিরছেন তামিম ইকবাল। ছবি: ফিরোজ আহমেদ

মুখোমুখি প্রথম বলে নাজমুল হোসেন শান্ত বোল্ড হয়ে গেলেও বাকিটা সময় অনায়াসে পার করে দেওয়ার পরিস্থিতি ছিল। সেই পথেই ছিলেন তামিম ইকবাল ও মুমিনুল হক। তবে একদম শেষ বলে এসে ভুলটা করে ফেললেন অভিজ্ঞ তামিম। অনভিজ্ঞ আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে তাই দাপুটে দিনেও অস্বস্তি থাকল স্বাগতিকদের।

মঙ্গলবার মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আগে ব্যাটিং নিয়ে ২১৪ রানে গুটিয়ে যায় আইরিশরা। জবাবে শেষ বিকেলে ১০ ওভার ব্যাট করার সুযোগ পায় বাংলাদেশ। প্রথম ওভারে মার্ক অ্যাডায়ারের বল স্টাম্পে টেনে বোল্ড হয়ে যান নাজমুল হোসেন শান্ত।  দিনের শেষ বলে অ্যান্ডি ম্যাকব্রেইনের শিকার হন তামিম। ৩৪ রানে ২ উইকেট হারানো বাংলাদেশ পিছিয়ে আছে ১৮০ রানে। 

২ রানে প্রথম উইকেট হারালেও মুমিনুলকে নিয়ে ভালোই ছুটছিলেন তামিম। অ্যান্ডি ম্যাকব্রেইনকে ছক্কায়ও উড়িয়েছিলেন তিনি। দিনটা পার করে দেওয়ার একদম কাছে চলে গিয়েছিল বাংলাদেশ। দিনের শেষ বলে ম্যাকব্রেইনই থামান থামিমকে। তার বল সামনের পায়ে খেলতে গিয়ে ব্যাট পেতে দিয়েছিলেন তামিম। বলের বাউন্স পড়তে পারেননি। এজড হয়ে তার সহজ ক্যাচ যায় দ্বিতীয় স্লিপে। ৩৪ রানে দ্বিতীয় উইকেট হারায় বাংলাদেশ।

অথচ এর আগের সময়টা ছিল বেশ ফুরফুরে। টস জিতে ব্যাট করতে গিয়ে একটি ছাড়া কখনই বাংলাদেশের উপর চেপে বসতে পারেনি আইরিশরা। ছয়জন অভিষিক্ত নিয়ে নেমে সতর্ক পথে ছুটতে চেয়েও টিকতে পারেনি তারা। 

প্রথম সেশনে বাংলাদেশ আগ্রাসী ফিল্ডিং সাজিয়ে হাঁসফাঁস করাতে থাকে সফরকারীদের। রানের চাকা যায় থেমে, পড়তে থাকে উইকেটও। ২২তম ওভারে দলের ৪৮ রানে পড়ে ৩ উইকেট।

এরপর হ্যারি টেক্টর-কার্টিস ক্যাম্ফার মিলে গড়েন প্রতিরোধ। চতুর্থ উইকেটে দুজনে আনেন ৭৪ রান। টেক্টর পেয়ে যান তার প্রথম টেস্ট ফিফটি।

মেহেদী হাসান মিরাজ টেক্টরকে ফিরিয়ে এই জুটি ভাঙার পর ধস নামে তাদের ইনিংসে। তাইজুল ইসলাম দ্রুত তুলে নেন পিটার মুর আর ক্যাম্ফারকে।

৭ম উইকেটে অ্যান্ডি ম্যাকব্রেইন-লোরকান টাকার মিলে যোগ করেন ৩৫ রান। মার্ক অ্যাডায়ারকে নিয়ে ৮ম উইকেটেও টাকার আনেন আরও ৪০ রান। ছোট ছোট এসব প্রতিরোধে দুশো পার করতে পারে আয়ারল্যান্ড।

তবে সামলাতে পারেনি তাইজুলের স্পিন ধাঁধা। উইকেটে খুব বেশি টার্ন না থাকলেও গতির তারতম্য এনে ব্যাটারদের বিভ্রান্ত করেছেন তিনি। একাদশ পঞ্চম উইকেট শিকার করে তাইজুলই আইরিশদের বাড়তে দেননি।

সফরকারীদের মামুলি পুঁজি ডিঙিয়ে বড় লিড নেওয়ার সুযোগে খেলতে নেমে এখনো পর্যন্ত খুব আলো ঝলমলে নয় বাংলাদেশের ইনিংস। শেষ বিকেলে দুই ওপেনারের আউটে একটু যেন অস্বস্তির কাঁটা থাকল। দ্বিতীয় দিনে বাংলাদেশ চাইবে বড় জুটি, ম্যাচ নিজেদের একদম মুঠোয় আনতে যা ভীষণ জরুরী।

Comments

The Daily Star  | English

Cyclones now last longer

Remal was part of a new trend of cyclones that take their time before making landfall, are slow-moving, and cause significant downpours, flooding coastal areas and cities. 

7h ago