বিপিএল ২০২৩

‘সবাই তো ব্রেন দিয়ে খেলে না, কেউ ব্রেন ছাড়াও খেলে’

পাঁচ নম্বরে নেমে দানবীয় এক ইনিংস খেললেন খুশদিল শাহ। তার ব্যাটেই বড় পুঁজি মিলে কুমিল্লা ভিক্টরিয়ান্সের। জয়ের মূল নায়কই এ পাকিস্তানি। তবে খুশদিল নায়ক হলে নিঃসন্দেহে পার্শ্বনায়ক মোহাম্মদ রিজওয়ান। যদিও তার ধীর গতির ইনিংস আপাত দৃষ্টিতে টি-টোয়েন্টির জন্য আদর্শ নয়। তবে এমন ম্যাচে যে কাজটা দরকার ঠিক সেটাই করেছেন বলে মনে করেন কোচ সালাহউদ্দিন।

পাঁচ নম্বরে নেমে দানবীয় এক ইনিংস খেললেন খুশদিল শাহ। তার ব্যাটেই বড় পুঁজি মিলে কুমিল্লা ভিক্টরিয়ান্সের। জয়ের মূল নায়কই এ পাকিস্তানি। তবে খুশদিল নায়ক হলে নিঃসন্দেহে পার্শ্বনায়ক মোহাম্মদ রিজওয়ান। যদিও তার ধীর গতির ইনিংস আপাত দৃষ্টিতে টি-টোয়েন্টির জন্য আদর্শ নয়। তবে এমন ম্যাচে যে কাজটা দরকার ঠিক সেটাই করেছেন বলে মনে করেন কোচ সালাহউদ্দিন।

বৃহস্পতিবার চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে ঢাকা ডমিনেটর্সকে ৩৩ রানে হারিয়েছে কুমিল্লা। প্রথমে ব্যাট করে স্কোরবোর্ডে ১৮৪ রান সংগ্রহ করেছিল তারা। যেখানে ২৪ বলে ৬৪ রানের ইনিংস খেলেন খুশদিল। আর শেষ পর্যন্ত অপরাজিত থেকে ৫৫ রান করেন রিজওয়ান। বল মোকাবেলা করেন ৪৭টি। স্ট্রাইক রেট ১১৭। ম্যাচের পরিস্থিতি বুঝতে পেরেই এমন ব্যাটিং করেছেন এ পাকিস্তানি।

ম্যাচ শেষে তাই রিজওয়ানের উচ্ছ্বসিত প্রশংসায় ভাসান কুমিল্লা কোচ, 'আমি যেহেতু রিজওয়ানকে খুব কাছ থেকে দেখতে পাচ্ছি, সে খেলাটা খুব ভালো বুঝে। আর সে দলের যা প্রয়োজন সেটাই করে। সবাই তো আর ব্রেন দিয়ে খেলে না, কেউ ব্রেন ছাড়াও খেলে। ও যেহেতু ব্রেন দিয়ে খেলে, খেলাটা ভালো বুঝে, ও খেললে তাই আমাদের সুবিধা। সে অন্য ব্যাটারদের দিয়ে খেলায়। এমন ম্যাচিউর একটা ব্যাটার থাকলে দলের জন্য অনেক লাভ।'

এদিন কেন ধীর গতিতে ব্যাট করেছেন তার ব্যাখ্যাও দেন সালাহউদ্দিন,  'ও (রিজওয়ান) যখনই মোমেন্টাম নেওয়ার চেষ্টা করেছে, তখনই উইকেট পড়ে গেছে। ও যে পারে না, বিষয়টা তা না। আমার মনে হয় ও আজ যে ভূমিকা পালন করেছে, সেটা দলের জন্য প্রয়োজন ছিল, হয়তো উইকেট পড়ে যায় বলে ও এই ভূমিকাটা পালন করে। আপনার যখন দরকার হবে, তখন ও অন্য ভূমিকায় যাবে।

মানসিকতার কারণেই রিজওয়ান এতোটা শক্তিশালী বলে মনে করেন এ কোচ, 'একেকজন মানুষের চরিত্র একেক রকম। আমাদের ছেলেদেরও। কিন্তু রিজওয়ানেরটা হচ্ছে, সে মানসিকভাবে লড়াকু। সে নিজেকে সেভাবেই ভাবে। কোনো কিছু ছাড় দিতে চায় না। সে ১২০ শতাংশ মাঠে দেয়। খেলা নিয়েই ভাবে, বাইরের কিছু না। আমার মনে হয় না সে অন্য কিছু নিয়ে ভাবে। খুব ধর্মপরায়ণ মানুষ। দলের প্রতি তার নিবেদন অন্য লেভেলের। সাধারণত খুব কম মানুষই সেই লেভেলে থাকতে পারে।'

'আমার মনে হয় সে টেকনিক্যালি যেমনই হোক সে তার মানসিকতার কারণেই এতদূর এসেছে। খেলাটা ভালো বুঝে। কোনো সময় ছাড় দেওয়ার মনোভাবটা তার ভেতর নেই। তো এটাই আমার মনে হয় অন্যদের চেয়ে তাকে বেশি আলাদা করে দেয়। না হলে একটা মানুষের পক্ষে সম্ভব নয় আগের দিন একটা ওয়ানডে খেলে, না ঘুমিয়ে পরের দিন একটা ম্যাচে শতভাগ চেষ্টা দিয়ে খেলা। এটা আমার কাছে অমানবিক মনে হয়,' যোগ করেন সালাহউদ্দিন।

Comments