প্লে অফের দৌড়ে কারা এগিয়ে?

লিগ পর্বে ১২ ম্যাচের মধ্যে বেশিরভাগ দল খেলে ফেলেছে অর্ধেক ম্যাচ। তারমধ্যে মাত্র এক ম্যাচ হারায় সিলেট স্টাইকার্স আর ফরচুন বরিশাল বাকিদের চেয়ে অনেকখানি এগিয়ে। আবার ছয় ম্যাচের মধ্যে স্রেফ এক ম্যাচ জিতে তলানি পড়ে থাকা ঢাকা ডমিনেটর্স খুঁজছে পায়ের নিচে মাটি।
Sylhet Strikers

লিগ পর্বে ১২ ম্যাচের মধ্যে বেশিরভাগ দল খেলে ফেলেছে অর্ধেক ম্যাচ। তারমধ্যে মাত্র এক ম্যাচ হারায় সিলেট স্টাইকার্স আর ফরচুন বরিশাল বাকিদের চেয়ে অনেকখানি এগিয়ে। আবার ছয় ম্যাচের মধ্যে স্রেফ এক ম্যাচ জিতে তলানি পড়ে থাকা ঢাকা ডমিনেটর্স খুঁজছে পায়ের নিচে মাটি।

টানা পাঁচ ম্যাচ জিতে ১০ পয়েন্ট নেওয়ার পর ৬ষ্ট ম্যাচে এসে হারের দেখা পায় সিলেট। বরিশাল আবার ঠিক উল্টো।  প্রথম ম্যাচেই হেরেছিল তারা,  সাকিব আল হাসানরা এরপর ঘুরে দাঁড়িয়ে জিতেছেন টানা পাঁচ ম্যাচ। রানরেটে সিলেট কিছুটা এগিয়ে থাকলেও এই দুই দলের অবস্থান সমান-সমান। মঙ্গলবার দু'দলের দ্বিতীয় দেখায় শীর্ষস্থান নিয়ে হবে ফয়সালা।

তাদের ঠিক পেছনেই কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। নামেভারে সবচেয়ে জৌলুসপূর্ণ দলটি বর্তমান চ্যাম্পিয়নও। কিন্তু প্রথম তিন ম্যাচ হেরে জোর ধাক্কা খায় তারা। পরের তিন ম্যাচ জিতে অবশ্য পেয়ে গেছে মোমেন্টাম। ছন্দে আছেন লিটন দাস, মোহাম্মদ রিজওয়ানরা। দলে যোগ দিয়েছেন নাসিম শাহর মতো পেসার। চোট কাটিয়ে সেরে উঠার দিকে আছেন মোস্তাফিজুর রহমানও। কুমিল্লার পক্ষে তাই এগিয়ে যাওয়ার বাজি ধরবে যেকেউ।

মোমেন্টাম পাওয়ার তালিকায় আছে খুলনা টাইগার্সও। শুরুতে টানা তিন ম্যাচ হেরে ভিত নড়ে গিয়েছিল তাদেরও। ইয়াসির আলি রাব্বি, তামিম ইকবালরা দেয়ালে পিঠ ঠেকে যাওয়া অবস্থায় দেখান ঝলক। পরের দুই ম্যাচে দারুণ জয়ে টেবিলে চার নম্বরে নিজেদের অবস্থান আপাতত ধরে রাখতে পেরেছে তারা।

রংপুর রাইডার্সের অবস্থা আবার ভিন্ন। টুর্নামেন্টের শুরুতে মোমেন্টাম পেয়ে মাঝপথে তা হারিয়ে বসেছে তারা।  প্রথম ম্যাচ জেতার পর পরের ম্যাচে হার। এরপর আবার জয়ে ফেরার পর টানা আরও দুই হার। পাঁচ ম্যাচে খুলনার সময় পাঁচ পয়েন্ট হলেও রানরেটে পিছিয়ে আছে তারা।

গতবারের মতো এবারও খুব শক্তিশালী দল বানায়নি চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। তবে বিদেশিদের ভরসায় এগিয়ে যাওয়ার পথ খুঁজছিল তারা। ৬ ম্যাচ খেলে ফেলে স্রেফ দুই জয় নিয়ে ছয় নম্বরে নড়বড়ে অবস্থান শুভাগত  হোমের দলের। প্লে অফে জেতে পথ বের করতে হলে সোমবার নিজেদের সপ্তম ম্যাচে রংপুরকে হারানোর বিকল্প নেই তাদের সামনে।

ঢাকা ডমিনেটর্সের অবস্থা সবচেয়ে করুণ। স্কোয়াডে নেই গভীরতা, নাসির হোসেন-তাসকিন আহমেদরা কিছুটা পারফর্ম করলেও বাকিদের অবস্থা বেহাল। বিকল্প খেলোয়াড়ের ঘাটতিতে ব্যর্থদেরই টেনে নিয়ে যেতে হচ্ছে তাদের। অথচ নিজেদের প্রথম ম্যাচে খুলনা টাইগার্সকে হারিয়ে শুরু করেছিল তারা। এরপর নাসিররা হেরেছেন টানা পাঁচ ম্যাচ। এই অবস্থায় খাতায় কলমে সুযোগ থাকলেও প্লে অফের দৌড় থেকে ঢাকাকে বাইরে রাখা খুব একটা ভুল হবে না।

পয়েন্ট টেবিল

দল ম্যাচ জয় হার পয়েন্ট নেট রানরেট
সিলেট স্টাইকার্স ১০ ১.৩৩২
ফরচুন বরিশাল ১০ ০.৯৮২
কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স -০.১৬
খুলনা টাইগার্স -০.০০৬
রংপুর রাইডার্স -০.৫২৩
চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স -০.৮০২
ঢাকা ডমিনেটর্স -১.০৮১

 

Comments

The Daily Star  | English

14 killed as truck ploughs thru multiple vehicles in Jhalakathi

It is suspected that the truck driver lost control over his vehicle due to a brake failure

1h ago