'মাশরাফি ম্যাজিকে' বিশ্বাস করেন না ইমরুল

ক্রিকেট দলীয় খেলা, তাই কোনো ধরণের ম্যাজিকে বিশ্বাস করেন না কুমিল্লা ভিক্টরিয়ান্স অধিনায়ক ইমরুল কায়েস। কিন্তু গড়পড়তার একটি দল নিয়ে যেভাবে ফাইনালে টেনে নিয়ে গেলেন মাশরাফি বিন মুর্তজা, তাতে তার ম্যাজিক নিয়েই চর্চা চলছে ক্রিকেট মহলে। তবে এই ম্যাজিকের একটি ব্যাখ্যা দিয়েছেন কুমিল্লা অধিনায়ক।

ক্রিকেট দলীয় খেলা, তাই কোনো ধরণের ম্যাজিকে বিশ্বাস করেন না কুমিল্লা ভিক্টরিয়ান্স অধিনায়ক ইমরুল কায়েস। কিন্তু গড়পড়তার একটি দল নিয়ে যেভাবে ফাইনালে টেনে নিয়ে গেলেন মাশরাফি বিন মুর্তজা, তাতে তার ম্যাজিক নিয়েই চর্চা চলছে ক্রিকেট মহলে। তবে এই ম্যাজিকের একটি ব্যাখ্যা দিয়েছেন কুমিল্লা অধিনায়ক।

মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আগামীকাল বুধবার সন্ধ্যায় মুখোমুখি হবে সিলেট স্ট্রাইকার্স ও কুমিল্লা ভিক্টরিয়ান্স। আসরে এটা দুই দলের চতুর্থ মোকাবেলা। এর আগের তিন লড়াইয়ে দুই ম্যাচে জিতেছে কুমিল্লা। প্রথম কোয়ালিফায়ারে এই সিলেটকে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছে দলটি।

বিপিএলে এবার খুব একটা শক্তিশালী দল গড়তে পারেনি সিলেট। মাঝারী সারির কিছু তরুণই ছিল মূল ভরসা। আহামরি ভালো বিদেশিও কিনতে পারেনি তারা। কিন্তু আসরে দারুণ চমক দেখিয়ে গ্রুপ পড়বে শীর্ষে থেকেই কোয়ালিফায়ার নিশ্চিত করে দলটি। মূলত মাশরাফির ম্যাজিকেই সব বদলে গিয়েছে বলে মনে করেন ক্রিকেট বোদ্ধারা।

তবে কোনো ম্যাজিকে বিশ্বাস করেন না ইমরুল, 'না আসলে দেখুন। ক্রিকেট খেলাটা আসলে দলগত খেলা, এখানে ম্যাজিক বলে কোনো কথা নেই। দলের একতা যদি ভালো থাকে, আপনার দল যদি ভালো খেলতে থাকে তাহলে দলের ফলাফল সম্ভব। অনেকে অনেক বড় মাপের দল করেও কিন্তু ফলাফল আসে না। কারণ দলের মাঝের পরিবেশ ভালো থাকে না। মাঠে গিয়ে শুধু খেলতে হয়... দলের যে বন্ডিংটা এগুলো ঠিক থাকে না। ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটে এই জিনিসটা খুব গুরুত্বপূর্ণ আমি মনে করি।'

ম্যাজিকে বিশ্বাস না করলেও মাশরাফি কীভাবে সফলতা পান তার একটা ব্যাখ্যা দিয়েছেন কুমিল্লা অধিনায়ক, 'মাশরাফি ভাই যে দলেই খেলুক না কেন এই জিনিসটা খুব ভালোভাবে নিয়ন্ত্রণ করে। দলের সবাইকে নিয়ে থাকে, দলের একতাটা ভালো রাখে। আমরা চেষ্টা করি আমাদের দলের একতাটা ভালো রাখার। এটাই উনার হয়তো ম্যাজিক বলা যায়। উনি সবসময় তাদের তরুণ বা বিদেশি ক্রিকেটারদের নিয়ে থাকে। এই জিনিসটা উনি উপভোগ করেন। এটা হয়তো ভালো করার ম্যাজিক।'

আসরে এবার প্রথম তিন ম্যাচ হেরে শুরু করেছিল কুমিল্লা। কিন্তু এরপর আর হারেনি দলটি। টানা ১০টি জয়ে ফাইনালে তারা। অন্যদিকে দারুণ খেলছে সিলেটও। যদিও হারজিতের মধ্যেই আছে তারা। তবে দারুণ জমাট একটি ফাইনালের প্রত্যাশা করছেন ইমরুল।

'ওরা ভালো ক্রিকেট খেলছে, আমরাও ভালো ক্রিকেট খেলছি। কারণ আমরা প্রথম তিনটা ম্যাচ হারার পর যেভাবে কামব্যাক করেছি এটা অবশ্যই আমাদের খেলোয়াড়দের কৃতিত্ব দিতে হবে। সবাই খুব পরিশ্রম করেছে এবং সবাই চেয়েছে যে আমরা ফাইনাল খেলবো। ফাইনালে আসতে পেরেছি। আশা করি আমরা একইভাবে এগোবো। শুধু ফাইনাল হিসেবে নয়, কালকে আমরা একটা ম্যাচের মতো পরিকল্পনা করেই ম্যাচ খেলবো। যদি ভালো ক্রিকেট খেলতে পারি ইনশাআল্লাহ ভালো ফলাফল আসবে,' বলেন ইমরুল।

মূলত মাঠে যারা স্নায়ুকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারবে তারাই জিতবে বলে মনে করেন কুমিল্লা অধিনায়ক, 'কালকের খেলাটা পুরোটাই আসলে মাইন্ড গেম। হাইভোল্টেজ খেলাগুলো আসলে যে যত বেশি নার্ভ নিয়ন্ত্রণ করতে পারবে, যে যত বেশি নিজেকে কাম রাখতে পারবে আমার মনে হয় তাদের দল তত বেশি ভালো হবে। কারণ আপনি দুইশ রান করেও জিতবেন এমন গ্যারান্টি নেই। সবশেষ ফাইনালে কিন্তু আমরা অলমোস্ট ১৮ ওভার পর্যন্ত আমরা হেরেছিলাম। ২ ওভারে আমরা খেলা জিতে গেছি। এটা ডিফারেন্ট বল গেম। মাঠে যত বেশি কাম থাকা যায়।'

Comments

The Daily Star  | English

Banking sector abused by oligarchs: CPD

Oligarchs are using banks to achieve their goals, harming good governance, transparency, and accountability in the financial sector, said economists and experts yesterday.

1h ago