সাকিব-তাইজুলের পর তাসকিনের উইকেট শিকার, বিপাকে ইংল্যান্ড

আগ্রাসী ব্যাটিংয়ের জন্য সুপরিচিত সফরকারী ব্যাটারদের এখনও সেই রূপে দেখা যায়নি। মিরপুরের তুলনামূলক মন্থর উইকেটে তাদেরকে খেলতে হচ্ছে দেখেশুনে। বিশেষ করে, স্পিনারদের বিপরীতে ভুগতে হচ্ছে তাদের।
ছবি: ফিরোজ আহমেদ

প্রথম ওভারেই জেসন রয়কে সাজঘরে পাঠালেন সাকিব আল হাসান। আরেক ওপেনার ফিল সল্টকে থিতু হতে দিলেন না তাইজুল ইসলাম। ইংল্যান্ডের দুই ওপেনারকে দ্রুতই বিদায় করল বাংলাদেশ। এরপর জেমস ভিন্স আর জস বাটলারকেও টিকতে না দিয়ে সফরকারীদের চেপে ধরল তারা।

বুধবার মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে চলছে দুই দলের তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডে। টস জিতে আগে ব্যাটিংয়ে নেমে বাংলাদেশ গুটিয়ে গেছে ২০৯ রানে। তখনও বাকি ছিল ইনিংসের ১৬ বল। জবাব দিতে নামা ইংলিশদের সংগ্রহ ১৬.১ ওভারে ৪ উইকেটে ৬৫ রান।

ক্রিজে আছে ডাভিড মালান ৫৩ বলে ৩৩ রানে। দ্বিতীয় স্পেল করতে আক্রমণে ফেরা ডানহাতি পেসার তাসকিন আহমেদের প্রথম বলে বাটলারের বিদায়ের পর চলছে পানি পানের বিরতি। লেংথ বলে বাড়তি বাউন্সে পরাস্ত হন ইংল্যান্ড অধিনায়ক। ব্যাকওয়ার্ড পয়েন্টে অনায়াস ক্যাচ নেন নাজমুল হোসেন শান্ত। ১০ বলে ৯ রান আসে বাটলারের ব্যাট থেকে।

আগ্রাসী ব্যাটিংয়ের জন্য সুপরিচিত সফরকারী ব্যাটারদের এখনও সেই রূপে দেখা যায়নি। মিরপুরের তুলনামূলক মন্থর উইকেটে তাদেরকে খেলতে হচ্ছে দেখেশুনে। বিশেষ করে, স্পিনারদের বিপরীতে ভুগতে হচ্ছে তাদের। কখনও বল টার্ন হচ্ছে, কখনও তা নিচু হয়ে আসছে ব্যাটে, কিছু বল আবার হুট করে লাফিয়েও উঠছে।

রয় আউট হতে পারতেন ইনিংসের প্রথম বলেই। তার দেওয়া ফিরতি ক্যাচ নিতে পারেননি বাঁহাতি স্পিনার সাকিব। তবে সুযোগটি লুফে নেওয়া ছিল বেশ কঠিন। চতুর্থ বলে চার মেরে রানের খাতা খোলেন রয়। ওই পর্যন্তই। এরপর আর এগোনো হয়নি তার। লিডিং এজ হয়ে শেষ বলে মিড অফে বাংলাদেশ অধিনায়ক তামিম ইকবালের ক্যাচে পরিণত হন তিনি। ৬ বলে তার রান ৪।

সাকিব বাংলাদেশকে প্রথম সাফল্য পাইয়ে দেওয়ার পর সল্ট ও মালান চেষ্টা করেন জুটি গড়ার। বাউন্ডারি হাঁকানোর তেমন সুযোগ আসেনি তাদের। আঁটসাঁট বোলিংয়ের বিপরীতে রানের চাকা সচল করতে পারেননি তারা। তাইজুলের করা নবম ওভারের জায়গা করে খেলতে গিয়ে বোল্ড হন সল্ট। ১৯ বলে তিনি করেন ১২ রান।

উইকেটে ভিন্সের স্থায়িত্ব দীর্ঘ হয়নি মোটেও। বাঁহাতি স্পিনার তাইজুলের দ্বিতীয় শিকার হওয়ার আগে তিনি করেন ৯ বলে ৬ রান। ক্রিজ ছেড়ে বেরিয়ে খেলতে গিয়েছিলেন। তা দেখে তাইজুল ঝুলিয়ে দেন বল। টার্ন করায় ব্যাট ছোঁয়াতে ব্যর্থ হন ভিন্স। তিনি ফেরার আগেই স্টাম্প ভেঙে দেন উইকেটরক্ষক মুশফিকুর রহিম।

Comments