নারী আন্দোলনে সমর্থন জানানো ফুটবলারদের নিয়ে ইরানের বিশ্বকাপ দল

শুধু আজমাউন নন, ২৭ সেপ্টেম্বর সেনেগালের বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচে কুর্দি নারী মাশা আমিনির মৃত্যুর প্রতিবাদ জানিয়েছিল গোটা দল।
সেনেগালের বিপক্ষে একটি ম্যাচে জাতীয় সঙ্গীতের সময় কালো জ্যাকেট পরে মাশা আমিনি হত্যার প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন ইরানের ফুটবলারা

ইরানে নারীদের আন্দোলনকে সমর্থন জানিয়ে ছিলেন বিশ্বকাপ দল থেকে বাদ পড়ার ঝুঁকিতে। তার ওপর ছিল চোট সমস্যাও। তবে শেষ পর্যন্ত কাতার বিশ্বকাপের ইরান দলে জায়গা করে নিলেন সরদার আজমাউন। তবে কপাল পুড়েছে আরেক চোটাক্রান্ত মিডফিল্ডার ওমিদ ইব্রাহিমির, কোচ কার্লোস কুইরোজের ২৫ সদস্যের দলে ঠাই হয়নি তার।

শুধু আজমাউন নন, ২৭ সেপ্টেম্বর সেনেগালের বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচে কুর্দি নারী মাশা আমিনির মৃত্যুর প্রতিবাদ জানিয়েছিল গোটা দল। সেদিন কালো জ্যাকেট পরে জাতীয় সঙ্গীত গেয়েছিলেন ইরানি ফুটবলাররা। সেই দলের বেশ কয়েকজন ফুটবলার ডাক পেয়েছেন বিশ্বকাপ দলে। 

২৭ বছর বয়সী আজমাউন জার্মান ক্লাব বায়ার লেভারকুসেনের হয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচে মাঠে নামার প্রাক্কালে চোট পান। এতে ছয় থেকে আট সপ্তাহের জন্য বুন্দেসলিগা থেকে ছিটকে গেছেন বলে জানায় তার ক্লাব। তবে জাতীয় দলে ঠিকই জায়গা মিলল তার।

সংবাদ সম্মেলন না করায় ইরানি গণমাধ্যমে গুঞ্জন রটেছিল হয়ত প্রতিবাদকারী ফুটবলারদের বাদ দেওয়া হচ্ছে সরাকারি চাপে। কুইরোজ অবশ্য সবাইকে রেখে দল দেন সংবাদ বিজ্ঞপ্তি পাঠিয়ে। 

দলের নেতৃত্বে থাকবেন মেহেদি তারেমি। পোর্তোর এই ফরোয়ার্ড আছেন দারুণ ফর্মে, ১৯ ম্যাচ থেকে ১৩ গোল তার। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে আগামী ২১ নভেম্বর নিজেদের বিশ্বকাপ মিশন শুরু করবে ইরান। সেই ম্যাচের আগে আজমাউন ফিট হয়ে একাদশে না ফিরতে পারলে মূল দায়িত্বটা সামলাতে হবে তারেমিকেই।

ইরানের বিশ্বকাপ দল

গোলরক্ষক: আলিরেজা বেইরানভান্দ (পার্সেপোলিস), আমির আবেদজাদেহ (পনফেররাদিনা), সৈয়দ হোসেন হোসেইনি (এস্তেঘলাল), পায়াম নিয়াজমান্দ (সেপাহান)।

ডিফেন্ডার: এহসান হাজসাফি (এইকে এথেন্স), মোর্তেজা পৌরালিগঞ্জি (পার্সেপোলিস), রামিন রেজাইয়ান (সেপাহান), মিলাদ মোহাম্মদী (এইকে এথেন্স), হোসেন কানানিজাদেগান (আল আহলি), শোজায়ে খলিলজাদেহ (আল আহলি), সাদেগ মোহারামাবেহ (ডিবি), রোজাদার (ডিবি)। চেশমি (এস্তেঘলাল), মজিদ হোসেইনি (কায়সেরিসপোর), আবোলফজল জালালী (এস্তেঘলাল)।

মিডফিল্ডার: আহমাদ নুরোল্লাহি (শাবাব আল আহলি), সামান ঘোদ্দোস (ব্রেন্টফোর্ড), ভাহিদ আমিরি (পার্সেপোলিস), সাইদ এজাতোলাহি (ভেজলে), আলীরেজা জাহানবখশ (ফেইনুরদ), মেহেদি তোরাবি (পার্সেপোলিস), আলী ঘোলিজাদেহ (চার্লেরোইস), আলী খোলিজাদেহ (চার্লেরোই)। ))

ফরোয়ার্ড: করিম আনসারিফার্ড (ওমোনিয়া নিকোসিয়া), সরদার আজমাউন (বায়ের লেভারকুসেন), মেহেদি তারেমি (পোর্তো)।

Comments

The Daily Star  | English

Personal data up for sale online!

Some government employees are selling citizens’ NID card and phone call details through hundreds of Facebook, Telegram, and WhatsApp groups, the National Telecommunication Monitoring Centre has found.

4h ago