রোনালদোর সঙ্গে কোনো 'সমস্যা' নেই ব্রুনোর

জাতীয় দল পর্তুগাল ও ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে সতীর্থ ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো ও ব্রুনো ফার্নান্দেস। তবে জোর গুঞ্জন চলছে যে তাদের মধ্যে সম্পর্কটা আর উষ্ণ নেই।
ছবি: এএফপি

জাতীয় দল পর্তুগাল ও ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে সতীর্থ ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো ও ব্রুনো ফার্নান্দেস। তবে জোর গুঞ্জন চলছে যে তাদের মধ্যে সম্পর্কটা আর উষ্ণ নেই। তবে বিষয়টি উড়িয়ে দিলেন ২৮ বছর বয়সী তারকা মিডফিল্ডার ব্রুনো। তিনি জানালেন, রোনালদোর সঙ্গে তার কোনো সমস্যা নেই।

কাতার বিশ্বকাপকে সামনে রেখে সম্প্রতি পর্তুগালের অনুশীলনে দেখা হয় রোনালদো ও ব্রুনোর। তাদের সাক্ষাতের একটি একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। সেটা দেখে দুজনের মধ্যে যথেষ্ট আন্তরিকতা নেই বলে ব্যাখ্যা দাঁড় করান অনেকে।

ভিডিওতে দেখা যায়, হাসিমুখে ড্রেসিংরুমে ঢুকে এক সতীর্থের সঙ্গে হাত মেলান ব্রুনো। তখন পাশেই দাঁড়ানো ছিলেন পাঁচবারের ব্যালন ডি'অর জয়ী রোনালদো। তিনি হাত বাড়িয়ে দেন করমর্দন করতে। ব্রুনো তখন ব্যস্ত ছিলেন ব্যাগ রাখতে। সেটা রেখে পর্তুগিজ অধিনায়ক রোনালদোর চোখের দিকে না তাকিয়ে হাত মিলিয়ে দ্রুত ঘুরে যান তিনি। রোনালদো কিছুটা অবাক হয়ে ঠায় দাঁড়িয়েছিলেন। খানিক পর ঘুরে ব্রুনোকে কিছু একটা বলতে দেখা যায়। এতে দুজনের মধ্যকার সম্পর্ক শীতল বলে জল্পনা-কল্পনা দানা বাঁধে অনেকের মধ্যে।

শুক্রবার ব্রিটিশ গণমাধ্যম স্কাই স্পোর্টসকে ব্রুনো অবশ্য বলেছেন, রোনালদোর সঙ্গে কোনো দ্বন্দ্ব নেই তার, 'আমার কারও সঙ্গে কোনো সমস্য নেই। আমি আমার কাজ করি। আপনার নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করতে হবে, নিজের সেরাটা দিতে হবে এবং এগুলোই আসল।'

বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ারে পঞ্চমবারের মতো বিশ্বকাপে অংশ নিতে যাওয়া রোনালদোর বরং প্রশংসাই করেছেন তিনি, 'আপনি খুব বেশিবার বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পান না। ক্রিস্তিয়ানো পাঁচবার বিশ্বকাপ খেলার মাধ্যমে খুব দারুণ করছে এবং এটা তার পঞ্চম বিশ্বকাপ। তো সবাই এটার (বিশ্বকাপ) জন্য তৈরি এবং সবাই দলের জন্য সেরাটা দিতে চায়।'

সম্প্রতি ব্রিটিশ গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব পিয়ার্স মরগ্যানকে দেওয়া রোনালদোর একটি সাক্ষাৎকারে পুরো ফুটবল বিশ্ব উত্তাল হয়ে পড়েছে। সাবেক সতীর্থ, কোচ থেকে শুরু করে ক্লাব ইউনাইটেডকে নিয়েও আগ্রাসী মন্তব্য করেছেন ৩৭ বছর বয়সী মহাতারকা। তবে সেই সাক্ষাৎকারটি এখনও পড়েননি ব্রুনো। তার ভাবনা জুড়ে কেবলই পর্তুগাল রয়েছে, 'আমি সাক্ষাৎকারটা এখনও পড়িনি। তাই সেটা নিয়ে আমি ঠিক আছি। আমি আগেও বলেছি, এখন আমরা জাতীয় দলে আছি, এটা হলো পর্তুগাল। কোচ আমাদেরকে একটি নির্দিষ্ট বিষয় বলেছেন যে এখানে কেবল আমরা (পর্তুগিজরা) আছি। আমি যখন ২০১৭ সালে জাতীয় দলে এসেছিলাম, তখনই তিনি এটা নির্দিষ্ট করে বলেছিলেন।'

বিশ্বকাপ শেষ ম্যান ইউনাইটেড নিয়ে ভাববেন বলে উল্লেখ করেছেন ব্রুনো, 'এখন জাতীয় দলে আছি। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের প্রতি আমি মনযোগী হব বিশ্বকাপের পর, ১৮ ডিসেম্বরের পর। কারণ, সেদিন অনুষ্ঠিত হবে ফাইনাল।'

কাতার বিশ্বকাপে 'এইচ' গ্রুপে খেলবে পর্তুগাল। ফার্নান্দো সান্তোসের শিষ্যদের তিন প্রতিপক্ষ হলো ঘানা, উরুগুয়ে ও দক্ষিণ কোরিয়া। আগামী ২৪ নভেম্বর ঘানার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে ফুটবলের মহাযজ্ঞে নিজেদের অভিযান শুরু করবেন রোনালদো-ব্রুনোরা।

Comments

The Daily Star  | English

Pahela Baishakh being celebrated

Pahela Baishakh, the first day of Bengali New Year-1431, is being celebrated across the country today with festivity, upholding the rich cultural values and rituals of the Bangalees

43m ago