‘হিরোর’ খোঁজে সাকিব, চাপে থাকবে দক্ষিণ আফ্রিকাই 

এগারো জনের মধ্যে যেকোনো একজনকে হিরো হতে হবে। সাকিব আল হাসান আশায় আছেন সেই হিরোই গড়ে দেবেন তফাৎ।
Shakib Al Hasan
সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে সাকিব আল হাসান। ছবি: বিসিবি

এগারো জনের মধ্যে যেকোনো একজনকে হিরো হতে হবে। সাকিব আল হাসান আশায় আছেন সেই হিরোই গড়ে দেবেন তফাৎ। বাংলাদেশ অধিনায়কের মতে,  সুপার টুয়েলভের লড়াইতে বাংলাদেশ নয়, টুর্নামেন্টের ফেভারিট দক্ষিণ আফ্রিকাই থাকবে বেশি চাপে।

বৃহস্পতিবার ঐতিহ্যবাহী সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ ও দক্ষিণ আফ্রিকা। হোবার্টে গত সোমবার টুর্নামেন্টে প্রথম ম্যাচে দুই দলের অভিজ্ঞতা হয়েছে দুই রকম। নেদারল্যান্ডকে হারিয়ে প্রত্যাশিত জয়ে আসর শুরু করতে পেরেছে বাংলাদেশ।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দাপটু জয়ের দিকেই ছিল দক্ষিণ আফ্রিকা, কিন্তু বেরসিক বৃষ্টি কেড়ে নেয় তাদের এক পয়েন্ট। বাংলাদেশের বিপক্ষে হারলে তাই সেমিফাইনালের পথ অনেকটা ফিকে হয়ে যাবে টেম্বা বাভুমার দলের।

বুধবার সংবাদ সম্মেলনে সেদিকে ইঙ্গিত করেই প্রতিপক্ষকে চাপে থাকার কথা জানালেন সাকিব,  'আমরা ম্যাচটা খেলতে নামবো জেতার জন্য। আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটা ম্যাচ, দক্ষিণ আফ্রিকার জন্যও। প্রথম ম্যাচে ওদের দুই পয়েন্ট পাওয়ার প্রত্যাশা ছিল, কিন্তু পায়নি। তো ওদের জন্য অনেকটা বাঁচা-মরার লড়াই, একটু হলেও চাপ থাকবে। সেখানে আমরা ম্যাচ জিতে এসেছি।'

চাপে থাকা প্রতিপক্ষকে আরও চেপে ধরে ফল আদায় করতে পারলে হয়ে যাবে দারুণ কিছু। সাকিব তাকিয়ে সেদিকে,  'অবশ্যই (সেমিতে যাওয়ার জন্য দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে জয়) খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এখন এমন একটা ম্যাচ, আমরা যদি জিতে যাই, যেটা বললাম যে আমাদের যে এমন কিছু করার সামর্থ্য আছে সেটা প্রমাণ করার কাছাকাছি চলে যাবো। তো আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ।'

দারুণ ফল পেতে হলে দরকার ব্যক্তিগত কিছু ঝলক। ব্যাট হাতে কেউ একজনকে রাখতে হবে বড় ভূমিকা, বোলিং জ্বলে উঠতে হবে কাউকে না কাউকে। সব মিলিয়ে একজনকে হতে হবে নায়ক। কে হবেন সেই নায়ক, অপেক্ষায় সাকিবও,  'আমি এটা আশা করছি যে, আগামীকাল (বৃহস্পতিবার) আমাদের জন্য আরেকটা সুযোগ। আমাদের ১১ জনের যারা খেলবে তাদের মধ্যে একজনের হিরো হওয়ার সম্ভাবনা আছে। তো ওই হিরোটা কে হবে সেটাই দেখার। ওগুলোই আমাদের কাছে বেশি গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে কাজ করে।'

'টি-টোয়েন্টি আসলে মোমেন্টামের খেলা তো, মোমেন্টামটা ধরাটা খুব জরুরি এবং সেটা বজায় রাখাটাও গুরুত্বপূর্ণ। ওয়ানডে ও টেস্টে সাধারণত পারফর্মারের সংখ্যাটা বেশি থাকে। টি-টোয়েন্টিতে কিন্তু অত বেশি থাকার সুযোগটা নেই। কম পারফর্মার থাকবে কিন্তু ওদের পারফরম্যান্সটা একটু বড় হতে হয়।'

Comments

The Daily Star  | English

NBR suspends Abdul Monem Group's import, export

It also instructs banks to freeze the Group's bank accounts

20m ago