বিশ্বকাপ ফাইনালে টস জিতে ফিল্ডিং নিল ইংল্যান্ড 

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালের বড় মঞ্চে টস জিতে আগে পাকিস্তানকে ব্যাট করতে পাঠিয়েছে ইংল্যান্ড। 

মেলবোর্নে বৃষ্টির প্রবল শঙ্কা থাকলেও সময়মতই হলো টস। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালের বড় মঞ্চে টস জিতে আগে পাকিস্তানকে ব্যাট করতে পাঠিয়েছে ইংল্যান্ড।

রোববার মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে কাপ জেতার মিশনে একাদশে বদল আনেনি কোন দল। কাজেই চোট সমস্যা কাটিয়ে না উঠায় গতিময় পেসার মার্ক উডকে ফাইনালেও পেল না ইংল্যান্ড। তার জায়গায় ভারতের বিপক্ষে সেমিফাইনালে ভালো খেলা ক্রিস জর্ডানের উপর ভরসা ইংলিশদের। ব্যাটার দাবিদ মালানের জায়গায় এই ম্যাচেও খেলছেন ফিল সল্ট। বরাবরের মতই চার পেসার ও দুই স্পিনার নিয়ে একাদশ সাজিয়েছে পাকিস্তান। ফাইনালে কোন চোট সমস্যা না থাকায় সেরা দলটিই পাচ্ছে তারা। 

সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডকে ৭ উইকেটে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছিল পাকিস্তান। আরেক সেমিতে ভারতকে ১০ উইকেটে উড়িয়ে ফাইনাল মঞ্চে পা রাখে জস বাটলারের ইংল্যান্ড। 

এবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ হট ফেভারিট হয়েই এসেছে ইংল্যান্ড। সুপার টুয়েলভে তারা আয়ারল্যান্ডের কাছে হেরে গেলেও কোন সমস্যা ছাড়াই জায়গা করে নেয় সেমিতে। শেষ চারে বাটলার- আলেক্স হেলসদের বিস্ফোরক ব্যাটিংয়ে দেখা যায় ইংল্যান্ডদের দাপট। 

অন্যদিকে বিশ্বকাপে প্রথম দুই ম্যাচেই হেরেছিল পাকিস্তান। ভারত ও জিম্বাবুয়ের কাছে হেরে বিদায়ের শঙ্কায় ছিল বাবর আজমের দল। পরে নাটকীয়ভাবে ঘুরে দাঁড়ায় দলটি। নেদারল্যান্ডসের কাছে দক্ষিণ আফ্রিকার হারের সুবিধা নিয়ে জায়গা করে নেয় সেমিতে। শেষ চারে গিয়ে উড়তে থাকা নিউজিল্যান্ডকে গুঁড়িয়ে ফাইনালে উঠে সাবেক চ্যাম্পিয়নরা। 

পাকিস্তানের ফাইনাল যাত্রাকে তুলনা করা হচ্ছে ১৯৯২ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপের সঙ্গে। সেবারও খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে নকআউট পর্বে উঠে বদলে যায় পাকিস্তান। নিউজিল্যান্ডকে সেমি ও ইংল্যান্ডকে ফাইনালে হারিয়ে শিরোপা জিতে যায় ইমরান খানের দল। এবারও একই রকম মিল থাকায় বিরানব্বই বিশ্বকাপের ছায়া দেখছে পাকিস্তানিরা। তবে সাদা বলের ক্রিকেটে বদলে যাওয়া ইংল্যান্ড আছে আরেকটি শ্রেষ্ঠত্বের খোঁজে। 

পাকিস্তান একাদশ:  বাবর আজম, মোহাম্মদ রিজওয়ান, মোহাম্মদ হারিস, শান মাসুদ, ইফতিখার আহমেদ, শাদাব খান, মোহাম্মদ নাওয়াজ, মোহাম্মদ ওয়াসিম, শাহিন শাহ আফ্রিদি, হারিস রউফ, নাসিম শাহ। 

ইংল্যান্ড একাদশ:  জস বাটলার, অ্যালেক্স হেলস, ফিল সল্ট, বেন স্টোকস, হ্যারি ব্রুক, মঈন আলি, লিয়াম লিভিংস্টোন, স্যাম কারান, ক্রিস ওকস, ক্রিস জর্ডান, আদিল রশিদ। 

 

 

Comments