৫ কোটির বেশি নাগরিকের গোপন তথ্য প্রকাশ্যে সরকারি ওয়েবসাইটে

বাংলাদেশের ৫ কোটিরও বেশি নাগরিকের সংবেদনশীল ব্যক্তিগত তথ্য সরকারি ওয়েবসাইটে ঢুকলেই পাওয়া যাচ্ছে।

বাংলাদেশের ৫ কোটিরও বেশি নাগরিকের সংবেদনশীল ব্যক্তিগত তথ্য সরকারি ওয়েবসাইটে ঢুকলেই পাওয়া যাচ্ছে।

অভিযোগ উঠেছে, গুগলে সার্চ করলেই যে কেউ ওয়েবসাইটিতে ঢুকে ৫ কোটি নাগরিকের নাম, জন্মতারিখ ও এনআইডি নম্বর দেখতে পারছেন।

গত ২৭ জুন এটি দেখতে পান বিটক্র্যাক সাইবার সিকিউরিটির গবেষক ভিক্টর মার্কোপোলোস। বিটক্র্যাক সাইবার সিকিউরিটি দক্ষিণ আফ্রিকার একটি কম্পিউটার নিরাপত্তা সমাধান সংস্থা। তার বরাতে বিষয়টি সামনে নিয়ে আসে মার্কিন অনলাইন পোর্টাল টেকক্রাঞ্চ।

ভিক্টর মার্কোপোলোস দ্য ডেইলি স্টারকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, '.gov.bd' ডোমেইনে থাকা একটি বাংলাদেশি সরকারি ওয়েবসাইটে এসব তথ্য উন্মুক্ত অবস্থায় আছে।

'এ তথ্যগুলো সরকারি পরিষেবা পেতে নাগরিকরা আবেদন করার সময় দিয়েছিলেন। সেখানে লেনদেন আইডি এবং আবেদনকারীদের অর্থ প্রদানের মতো তথ্যও রয়েছে,' যোগ করেন তিনি।

ভিক্টর জানান, বিষয়টি জানার পর মার্কোপোলোস একাধিকবার বাংলাদেশি ই-গভর্নমেন্ট কম্পিউটার ইনসিডেন্ট রেসপন্স টিমের (বিজিডি ই-গভ সিআইআরটি) সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও কোনো সাড়া পাননি।

বিজিডি ই-গভ সিআইআরটি একটি সরকারি সংস্থা যা বাংলাদেশে ডিজিটাল নিরাপত্তা নিয়ে কাজ করে।

নাগরিকের গোপন তথ্য প্রকাশ্যে থাকার বিষয়টি নিয়ে জানতে চাইলে বিজিডি ই-গভ সিআইআরটির প্রকল্প পরিচালক মোহাম্মদ সাইফুল আলম খান দ্য ডেইলি স্টারকে জানান, সিআইআরটি এ ধরনের কোনো সমস্যা সম্পর্কে জানে না। তারা এ ধরনের কোনো গোপনীয়তা লঙ্ঘনের বিষয় চিহ্নিতও করেনি।

ভিক্টর মার্কোপোলোসের শেয়ার করা তথ্য বিশ্লেষণ করে সেগুলো স্বাধীনভাবে যাচাই করে সত্যতা পেয়েছে দ্য ডেইলি স্টার। সংবেদনশীলতার বিষয়টি বিবেচনা করে দ্য ডেইলি স্টার এই প্রতিবেদনে ওয়েবসাইটটির নাম না প্রকাশ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

Comments

The Daily Star  | English
Corruption in Bangladesh civil service

The nine lives of a corrupt public servant

Let's delve into the hypothetical lifelines in a public servant’s career that help them indulge in corruption.

7h ago