ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে পাবিপ্রবি সাংবাদিককে মারধরের অভিযোগ

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে এক সংবাদকর্মীর ওপর হামলার অভিযোগ উঠেছে। আহত সংবাদকর্মীকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
সাংবাদিক আব্দুল্লাহ আল মামুন। ছবি: সংগৃহীত

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে এক সংবাদকর্মীর ওপর হামলার অভিযোগ উঠেছে। আহত সংবাদকর্মীকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আজ রোববার দুপুর আড়াইটার দিকে পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাফেটেরিয়ায় এ ঘটনা ঘটে।

আহত সাংবাদিক আব্দুল্লাহ আল মামুন দৈনিক নয়া শতাব্দীর পাবিপ্রবি প্রতিনিধি এবং পাবিপ্রবি প্রেসক্লাবের যুগ্ম আহ্বায়ক। তিনি লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার খামচাষী ইউনিয়নের গঙ্গাপুর গ্রামের মো. মোমিনুল্লাহর ছেলে এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যান বিভাগের ৩য় বর্ষের শিক্ষার্থী।

জানতে চাইলে সাংবাদিক মামুন দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'কিছুদিন আগে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) এক সাংবাদিককে মারধর করে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। ওই ঘটনায় প্রতিবাদ জানিয়ে একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তি দেয় পাবিপ্রবি প্রেসক্লাব। প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে স্বাক্ষর করেছিলেন প্রেসক্লাবের সদস্য সচিব দুর্জয় কুমার। তাকে আজ দুপুরে ক্যাফেটেরিয়ায় আটকে রাখে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। খবর পেয়ে আমি সেখানে গেলে তারা আমার ওপর হামলা করে।'

এ ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ছাত্রলীগের পক্ষে অবস্থান নিয়েছে বলে অভিযোগ করেন মামুন।

জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. মো. কামাল হোসেন বলেন, 'প্রেসক্লাবের সদস্য সচিব দুর্জয় কুমার আমার কাছে একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। কিন্তু আব্দুল্লাহ আল মামুন আমার কাছে তাকে মারধরের কোনো অভিযোগ করেননি। লিখিত অভিযোগ দিলে তদন্ত করে দেখা হবে।'

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রেসক্লাবের অনুমোদন থাকলেও কমিটির অনুমোদন নেই বলে জানিয়েছেন প্রক্টর।

Comments

The Daily Star  | English