বিশ্বকাপের সময় বিনে পয়সায় যাওয়া যাবে ইরানে

কাতার ও ইরানের মধ্যে সম্পর্কটা বেশ ঘনিষ্ঠ। দুই দেশই জোট নিরপেক্ষ আন্দোলন এবং ইসলামী সম্মেলন সংস্থার সদস্য। একে অপরের অভ্যন্তরীণ এবং বিদেশী কার্যকলাপের সমালোচনা করা থেকে বিরত থাকেন তারা। আর এই বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক থেকে কিছুটা সুবিধা আদায় করে নিতে চাইছে ইরান। আসন্ন ফুটবল বিশ্বকাপের সময় নিজ দেশের পর্যটন শিল্পের প্রতি বিশ্ববাসীকে আরও আগ্রহী করতে ভিসা ফি মওকুফ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশটি।

কাতার ও ইরানের মধ্যে সম্পর্কটা বেশ ঘনিষ্ঠ। দুই দেশই জোট নিরপেক্ষ আন্দোলন এবং ইসলামী সম্মেলন সংস্থার সদস্য। একে অপরের অভ্যন্তরীণ এবং বিদেশী কার্যকলাপের সমালোচনা করা থেকে বিরত থাকেন তারা। আর এই বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক থেকে কিছুটা সুবিধা আদায় করে নিতে চাইছে ইরান। আসন্ন ফুটবল বিশ্বকাপের সময় নিজ দেশের পর্যটন শিল্পের প্রতি বিশ্ববাসীকে আরও আগ্রহী করতে ভিসা ফি মওকুফ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশটি।

বুধবার ২০২২ কাতার বিশ্বকাপ দেখতে আসা সমর্থকদের জন্য ভিসা ফি মওকুফ করার বিষয়টি জানায় ইরান সরকার। কাতার থেকে পারস্য উপসাগর পাড়ি দিলেই যাওয়া যায় ইরানে। প্রায় কাছাকাছি থাকা দেশটি তাই বিশ্বকাপের সময় কাতারে আসা পর্যটকদের নিজেদের দেশের প্রতি আকৃষ্ট করতে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে। দর্শনার্থীরা সেই সময়ের মধ্যে ২০ দিনের জন্য বিনামূল্যে একক বা মাল্টি-এন্ট্রি পাসের জন্য আবেদন করতে পারবেন বলে জানিয়েছে মন্ত্রণালয়।

আগের দিন ইরানের সরকারের মুখপাত্র আলি বাহাদোরি-জাহরোমি এক টুইট বার্তায় জানিয়েছেন, 'কাতারে ২০২২ সালের বিশ্বকাপের দর্শকদের মধ্যে যারা ইরান আসতে ইচ্ছুক তাদের জন্য ভিসা ফ্রি করতে সম্মত হয়েছে ইরান। এই সিদ্ধান্তের লক্ষ্য বিশ্বকাপ চলাকালীন সময়ে পর্যটকদের ইরানে যেতে উত্সাহিত করা এবং সেখানে পর্যটন শিল্পকে উত্সাহিত করা।'

রবি ও সোমবার কাতারের পরিবহন মন্ত্রী জসিম বিন সাইফ আল-সুলাইতি ইরানের কিশ দ্বীপ পরিদর্শন করে ছয়টি সহযোগিতা চুক্তি স্বাক্ষর করার পর এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানিয়েছে ইরানের সরকারী বার্তা সংস্থা আইআরএনএ। দোহা থেকে ৪০ মিনিটের ফ্লাইট কিংবা ছয় ঘণ্টার নৌভ্রমণের পর যাওয়া যায় সাদা বালির সৈকতের ৯২ বর্গ কিলোমিটারের দ্বীপ কিশে।

মঙ্গলবার ইরানের পরিবহন মন্ত্রী রোস্তম ঘাসেমি বলেছেন, 'কাতারিরা ২০২২ সালের বিশ্বকাপে ইরানের অবকাঠামো ব্যবহার করতে খুবই আগ্রহী। ইরানকে এই ইভেন্ট থেকে উপকৃত হওয়ার জন্য সমস্ত ক্ষমতা ব্যবহার করতে হবে। বিশ্বকাপের সময় ইরানের অবদান হবে বিমান ও সমুদ্র পরিবহন এবং বিদেশী ও ইরানি যাত্রীদের বাসস্থানের ক্ষেত্রে। আমরা ইরানে থাকার সময় বিদেশী ভক্ত এবং পর্যটকদের দেশটির পর্যটন রত্ন দেখার সুযোগ দেওয়ার পরিকল্পনা করছি।'

এরমধ্যেই দুই দেশের মধ্যে ফ্লাইট বাড়ানোর ব্যাপারে চুক্তি করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ইরানের সিভিল এভিয়েশন অর্গানাইজেশনের প্রধান মোহাম্মদ মোহাম্মদি। বর্তমানে ৭২টি থেকে বেড়ে সম্ভাব্য দিনে ২০০'তে উন্নীত করা হয়েছে।

টানা তৃতীয়বার ও সবমিলিয়ে ষষ্ঠবারের মতো এবার বিশ্বকাপে জায়গা করে নিয়েছে ইরান। গ্রুপ 'বি'তে তাদের প্রতিপক্ষ চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী যুক্তরাষ্ট্র ও ইংল্যান্ড। অপর সম্ভাব্য দলটি হতে পারে ইউক্রেন। ফলে লড়াইটা ফুটবল ছাপিয়ে যেন কূটনীতিক পর্যায়ে চলে গেছে ইরানের জন্য। এরমধ্যেই ভিন্ন উত্তেজনা টের পাচ্ছেন ফুটবল সমর্থকরা।

Comments

The Daily Star  | English
Bangladeshis consume 136 eggs a year, people in developed countries 400

Bangladeshis consume 136 eggs a year, people in developed countries 400

Experts say at a seminar on “Doctors' dialogue on right to protein”

40m ago