অল্পের জন্য প্রাণে বাঁচলেন প্রসেনজিৎ

অল্পের জন্য বেঁচে গেলেন দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। মঙ্গলবার রাত দশটার দিকে দক্ষিণ কলকাতার ১/৮ বালিগঞ্জের তিনতলা বাড়ির দোতলায় বসে বন্ধুদের সঙ্গে চা-কফির আড্ডায় মুশগুল ছিলেন এই অভিনেতা। আচমকাই রান্নাঘর থেকে ধোয়া এবং দাউদাউ করে আগুন ছড়িয়ে পড়ে তার বসার ঘরে। কিছু বুঝে উঠার আগেই ফায়ার এলার্ম বাজিয়ে দেন প্রসেনজিৎ।

অল্পের জন্য বেঁচে গেলেন দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। মঙ্গলবার রাত দশটার দিকে দক্ষিণ কলকাতার ১/৮ বালিগঞ্জের তিনতলা বাড়ির দোতলায় বসে বন্ধুদের সঙ্গে চা-কফির আড্ডায় মুশগুল ছিলেন এই অভিনেতা। আচমকাই রান্নাঘর থেকে ধোয়া এবং দাউদাউ করে আগুন ছড়িয়ে পড়ে তার বসার ঘরে। কিছু বুঝে উঠার আগেই ফায়ার এলার্ম বাজিয়ে দেন প্রসেনজিৎ।

বন্ধুরাও ফায়ার ডেস্টিংগুইশ ব্যবহার করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা শুরু করেন। কিন্তু কিছুতেই থামছিল না আগুন। খবর দেওয়া হয় বালিগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসকে। ঘটনার ১০ মিনিটের মধ্যে চারটি ইঞ্জিন এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। বাংলা চলচ্চিত্রের কিংবদন্তি এই অভিনেতার বাড়িতে আগুনের খবর পেয়ে তার বাসায় পৌছান কলকাতার মেয়র ও দমকলমন্ত্রী শোভন চট্টোপাধ্যায়। এমন কি প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের মোবাইলে ফোন করে খবর নেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিও।

অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার জন্য ঈশ্বর এবং দমকল বাহিনীকে ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন, জীবনে হয়তো বড় দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারতো আজ। ঈশ্বর বাঁচিয়ে দিয়েছেন আমাদের সবাইকে। কারণ ওই সময় আগুনের পাশেই আমি ও আমার বন্ধুরা কফি-চায়ের আড্ডায় মেতেছিলাম। দমকল মন্ত্রী শোভন চট্টোপাধ্যায় জানান, অভিনেতার বাড়িতে আগুন নেভানোর প্রথমিক জিনিষপত্র ছিল। আগুনের কারণ অনুসন্ধান করে দমকল সাত দিনের মধ্যে রিপোর্ট দেবে বলেও জানান কলকাতার মেয়র তথা দমকলমন্ত্রী।

Comments

The Daily Star  | English

Loan default now part of business model

Defaulting on loans is progressively becoming part of the business model to stay competitive, said Rehman Sobhan, chairman of the Centre for Policy Dialogue.

4h ago