এশিয়ার কোন দেশে সবচেয়ে বেশি গাড়ি তৈরি হয়?

গাড়ির ব্র্যন্ডের কথা বলতেই সবার আগে এশিয়ার যে দেশটির আসে তা হল জাপান। টয়োটা, হোন্ডা, মিতসুবিসির মত বড় কোম্পানিগুলোর ঝাঁ-চকচকে নতুন মডেলের সব গাড়ি বিশ্ববাজার দাপাচ্ছে। কিন্তু এশিয়ায় গাড়ি তৈরিতে শীর্ষে নেই জাপান।
এশিয়ার গাড়ি তৈরিকারী দেশগুলোর তুলনামূলক চিত্র

গাড়ির ব্র্যন্ডের কথা বলতেই সবার আগে এশিয়ার যে দেশটির আসে তা হল জাপান। টয়োটা, হোন্ডা, মিতসুবিসির মত বড় কোম্পানিগুলোর ঝাঁ-চকচকে নতুন মডেলের সব গাড়ি বিশ্ববাজার দাপাচ্ছে। কিন্তু এশিয়ায় গাড়ি তৈরিতে শীর্ষে নেই জাপান।

এশিয়ায় যে দেশগুলোতে সবচেয়ে বেশি গাড়ি তৈরি হয় তার মধ্যে রয়েছে চীন, জাপান, ভারত ও দক্ষিণ কোরিয়া। আর এর মধ্যে শীর্ষে রয়েছে চীন। এশিয়ার অন্য সব দেশের চেয়ে চীনে বেশি গাড়ি তৈরি হয়।

সম্প্রতি ফ্রান্সের অটোমোবাইল সংস্থা ওআইসিএ-এর প্রতিবেদনে বিভিন্ন দেশে গাড়ি উৎপাদনের একটি চিত্র উঠে এসেছে। তাদের হিসাব বলছে, ২০১৬ সালে দুই কোটি ৮০ লাখ গাড়ি তৈরি করে এশিয়ায় শীর্ষে অবস্থান করছে চীন। চীনের তৈরি গাড়ি বিশ্ববাজারের ৩০ শতাংশ দখলে রেখেছে।

এদিক থেকে এশিয়ায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে সূর্যোদয়ের দেশ জাপান। গত বছর দেশটিতে ৯০ লাখ গাড়ি তৈরি হয়েছে। আর ভারত ও দক্ষিণ কোরিয়ায় যথাক্রমে তৈরি হয়েছে ৪৪ লাখ ও ৪২ লাখ গাড়ি।

এশিয়ার মধ্যে থাইল্যান্ড ও ইন্দোনেশিয়াতেও গাড়ি তৈরি হচ্ছে। গত বছর থাইল্যান্ডে ১৯ লাখ ও ইন্দোনেশিয়ায় ১১ লাখ গাড়ি তৈরি হয়েছে।

সংস্থাটির তথ্যে আরও দেখা যায়, ২০১৫ সালের তুলনায় পরের বছর চীনে ৪০ লাখ বেশি গাড়ি তৈরি হয়েছে। এ সময়ের মধ্যে ভারতেও গাড়ি তৈরিতে প্রবৃদ্ধি হয়েছে। দেশটিতে ২০১৬ সালে তিন লাখ গাড়ি বেশি তৈরি হয়েছে।

বৈশ্বিকভাবে ব্যক্তিগত গাড়ির বাজারের ০.০৪ শতাংশ ভারতের দখলে রয়েছে। এ ধরনের গাড়ি তৈরির দিক থেকে চীন ও জাপানের পরই দেশটির অবস্থান।

এশিয়ার অন্যান্য দেশের মধ্যে গত বছর মালয়েশিয়ায় (৫১৩,০০০), তাইওয়ানে (৩০৯,০০০), পাকিস্তানে (২২০,০০০) ও ফিলিপাইনে (১৩৫,০০০) গাড়ি তৈরি হয়েছে।

Click here to read the English version of this news

Comments

The Daily Star  | English

Eid rush: People suffer as highways clog up

As thousands of Eid holidaymakers left Dhaka yesterday, many suffered on roads due traffic congestions on three major highways and at an exit point of the capital in the morning.

4h ago