নিহত ৪ জঙ্গির মধ্যে মুসা থাকতে পারেন

সিলেটে জঙ্গি বিরোধী অভিযানে নিহত চার জঙ্গির মধ্যে নব্য-জেএমবি নেতা ময়নুল ইসলাম মুসা থাকতে পারেন বলে ধারণা করছে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।
army-operation-sylhet
সিলেটে জঙ্গি বিরোধী অভিযানে নিহত চার জঙ্গির মধ্যে নব্য-জেএমবি নেতা ময়নুল ইসলাম মুসা থাকতে পারেন বলে ধারণা করছে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। ছবি: সংগৃহীত

সিলেটে জঙ্গি বিরোধী অভিযানে নিহত চার জঙ্গির মধ্যে নব্য-জেএমবি নেতা ময়নুল ইসলাম মুসা থাকতে পারেন বলে ধারণা করছে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

মুসার ছবির সঙ্গে নিহত এক জঙ্গির চেহারার মিল থাকায় এমন ধারণা করা হচ্ছে বলে দ্য ডেইলি স্টারকে গত রাতে জানিয়েছেন সিলেটের পুলিশ ও কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিটের উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তারা।

পুলিশ সূত্র জানায়, নিহত জঙ্গির ডিএনএ এবং অন্যান্য নমুনা সংগ্রহের পর তা যাচাই-বাছাই করে পরে নিশ্চিত করা হবে।

সিলেটের দক্ষিণ সুরমা উপজেলায় ‘আতিয়া মহল’ জঙ্গি আস্তানায় অভিযানের সময় নিহত ব্যক্তিটির শরীরে কিছু অংশ বিস্ফোরণের আগুনে হাল্কা পুড়ে গেছে বলে পুলিশ সূত্র থেকে জানা গেছে।

অভিযানের সংবাদ সংগ্রহ করতে যাওয়া আমাদের নিজস্ব প্রতিনিধি বলেন, সেই ব্যক্তির মরদেহ আতিয়া মহলে নাকি মর্গে রাখা আছে সে বিষয়ে কিছু জানায়নি সূত্র।

পুলিশের মতে, মুসা নিষিদ্ধ ঘোষিত জামায়াতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশ (জেএমবি)-এর নতুন সংস্করণ নব্য-জেএমবির একজন শীর্ষ নেতা হিসেবে বিভিন্ন সন্ত্রাসী হামলা চালায়।

গত ৭ জানুয়ারি সিটিটিসি ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম বলেন, ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জে পুলিশের বিভিন্ন অভিযানে জঙ্গি সংগঠনটির শীর্ষ নেতা তামিম, মেজর (অব.) জাহিদ এবং তানভীর কাদের নিহত হওয়ার পর মুসা সংগঠনটির গুরুত্বপূর্ণ নেতা হয়ে উঠেন।

এদিকে, সিলেটে গতকাল এক প্রেস ব্রিফিংয়ে মিলিটারি ইন্টেলিজেন্স এর পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ফখরুল আহসান বলেন, “আজ আমরা আতিয়া মহলের নিচ তলায় চারটি লাশ পেয়েছি। এদের মধ্যে দুজনের মরদেহ পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।”

Comments

The Daily Star  | English
Bridges Minister Obaidul Quader

Motorcycles, easy bikes major causes of accidents: Quader

Road Transport and Bridges Minister Obaidul Quader today said motorcycles and easy bikes are causing the highest number of road accidents across the country

2h ago