প্রস্তুত অ্যাপলের ‘মহাকাশযান’ সদর দফতর

সান ফ্রান্সিসকোর সিলিকন ভ্যালিতে প্রযুক্তি-মোগল অ্যাপলের ‘মহাকাশযান’ আকৃতির সদর দফতর কর্মীদের জন্য খুলে দেওয়া হবে আগামী এপ্রিলে।
apple_spaceship
অ্যাপলের ‘মহাকাশযান’ আকৃতির সদর দফতরের একটি ছবির সামনে প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী টিম কুক; ছবি: এএফপি

সান ফ্রান্সিসকোর সিলিকন ভ্যালিতে প্রযুক্তি-মোগল অ্যাপলের ‘মহাকাশযান’ আকৃতির সদর দফতর কর্মীদের জন্য খুলে দেওয়া হবে আগামী এপ্রিলে।

নতুন এই সদর দফতরটির স্বপ্নদ্রষ্টা ছিলেন প্রতিষ্ঠানটির অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত স্টিভ জবস। বেঁচে থাকলে আজ এই মহান ব্যক্তির বয়স হতো ৬২ বছর।

প্রায় ১৭৫ একর জমির ওপর নির্মিত নবায়নযোগ্য শক্তি দ্বারা পরিচালিত ‘মহাকাশযান’ সদর দফতরটিতে অ্যাপলের ১২,০০০ কর্মীকে স্থানান্তরের কাজ চলবে এ বছরের শেষ নাগাদ পর্যন্ত।

অ্যাপলের প্রধান নির্বাহী টিম কুক গত বুধবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানান, “আমরা স্টিভের স্বপ্নটাকে আরও বহুদূর এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য কাজ করে যাচ্ছি।”

“স্টিভ চেয়েছিলেন ‘অ্যাপল পার্কটি’ ভবিষ্যৎ প্রজন্মের প্রযুক্তিবিদদের কাজের জন্য একটি আদর্শ স্থান হিসেবে বিবেচিত হবে।”

নতুন এই ক্যাম্পাসটিতে থাকবে ফিটনেস সেন্টার, ফুটপাত, বাগান, গবেষণাগার এবং দর্শণার্থী কেন্দ্র।

অ্যাপলের প্রধান ডিজাইন কর্মকর্তা জনি ইভ বলেন, “আমাদের পণ্যগুলোর সঙ্গে মিল রেখে আমরা নিজেরাই নতুন এই ক্যাম্পাসটির ডিজাইন করেছি।”

এদিকে, আইফোনের বিক্রি বেড়ে যাওয়ায় গেল বছরের শেষ প্রান্তিকে রেকর্ড পরিমান উপার্জন করেছে প্রতিষ্ঠানটি। সেই খুশির সঙ্গে যোগ হয়েছে ‘মহাকাশযান’ সদর দফতরের খবরটি।



Click here to read the English version of this news

Comments

The Daily Star  | English

Fewer but fiercer since the 90s

Though Bangladesh is experiencing fewer cyclones than in the 1960s, their intensity has increased, a recent study has found.

6h ago