বনানীতে ধর্ষণ: নাঈম ৭ দিনের রিমান্ডে

রাজধানীর বনানীতে চাঞ্চল্যকর ধর্ষণ মামলায় অভিযুক্ত নাঈম আশরাফের সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।
Nayem
বনানীতে চাঞ্চল্যকর ধর্ষণ মামলায় অভিযুক্ত নাঈম আশরাফকে হাতকড়া পরিয়ে পুলিশ সদর দফতরে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। ছবি: রাফিউল ইসলাম

রাজধানীর বনানীতে চাঞ্চল্যকর ধর্ষণ মামলায় অভিযুক্ত নাঈম আশরাফের সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

ঢাকার মহানগর হাকিম এস এম মাসুদ জামান আজ এই আদেশ দেন।

এর আগে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ইসমাত আরা অভিযুক্ত নাঈমকে আদালতে সোপর্দ করে ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন করেন।

মামলার পর থেকে পলাতক নাঈমকে গতরাতে মুন্সিগঞ্জের লৌহজং উপজেলা থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে নাঈম ওরফে হালিম ধর্ষণের ঘটনায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছেন বলে পুলিশ জানিয়েছে।

আজ সকালে ডিবি সদর দপ্তরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ডেপুটি ইন্সপেক্টর জেনারেল মনিরুল ইসলাম জানিয়েছেন, ২৮ মার্চে বনানীর রেইনট্রি হোটেলে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্রীর ধর্ষণ হওয়ার প্রাথমিক প্রমাণ পাওয়া গেছে।

গ্রেফতারকৃতরা প্রভাবশালী পরিবারের ছেলে উল্লেখ করে ডিএমপি কর্মকর্তা বলেন, “আইনের দৃষ্টিতে সকলেই সমান।”

উল্লেখ্য, গত ৬ মে ধর্ষণের শিকার দুই ছাত্রী বনানী থানায় আপন জুয়েলার্সের মালিকের ছেলে শাফাত ও তার বন্ধু সাকিফসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। মামলায় বলা হয়, শাফাত ও নাঈম আশরাফ রেইনট্রি হোটেলের দুটি কক্ষে আটকে রেখে তাদেরকে ধর্ষণ করে এবং শাফাতের গাড়িচালক বিল্লাল, তার দেহরক্ষী রহমত এবং সাদমান সাকিফ এতে সহযোগিতা করে।

 

আরও পড়ুন: বনানীতে ধর্ষণ: ‘জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছেন নাঈম আশরাফ’

Comments