সুনামগঞ্জে ধরা পড়েছে বিরল প্রজাতির ‘বিন্টুরং’

সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে গ্রামবাসীর হাতে একটি বিরল প্রজাতির বিন্টুরং ধরা পড়েছে। সোমবার বড়দল ইউনিয়নের ব্রাক্ষণগাঁও গ্রামের আবু বকর তাঁর বাড়ির গাছে প্রাণীটিকে দেখতে পায়। চিৎকার-চেঁচামেচিতে প্রাণীটি গাছ থেকে লাফিয়ে নেমে এলে গ্রামবাসী সেটিকে আটক করে।
চিকিৎসা ও পর্যবেক্ষণের পর বিন্টুরংটিকে কমলগঞ্জের আদমপুর বনে মুক্ত করা হবে। ছবি: শেখ নাসির

সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে গ্রামবাসীর হাতে একটি বিরল প্রজাতির বিন্টুরং ধরা পড়েছে। সোমবার বড়দল ইউনিয়নের ব্রাক্ষণগাঁও গ্রামের আবু বকর তাঁর বাড়ির গাছে প্রাণীটিকে দেখতে পায়। চিৎকার-চেঁচামেচিতে প্রাণীটি গাছ থেকে লাফিয়ে নেমে এলে গ্রামবাসী সেটিকে আটক করে।

 

খবর পেয়ে তাহিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নন্দন কান্তি ধর ও দলইছড়ী বন বিট কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম বিন্টুরংটিকে উদ্ধার করেন।

সিলেট বিভাগীয় বন কর্মকর্তা আরএসএম মনিরুল ইসলাম বিন্টুরংটিকে সিলেটে আনার পর শ্রীমঙ্গলে পাঠান। তিনি জানান, শ্রীমঙ্গলে চিকিৎসা ও পর্যবেক্ষণের পর এটিকে কমলগঞ্জের আদমপুর বনে মুক্ত করা হবে।

মনিরুল ইসলাম আরও জানান, বিন্টুরং (ইংরেজি: Binturong, বৈজ্ঞানিক নাম: Arctictis Binturong) একটি বৃহদাকৃতির বিরল প্রজাতির ভিভারিডি পরিবারভুক্ত স্তন্যপায়ী প্রাণী। দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার ঘন বর্ষণসিক্ত বনের বৃক্ষে এদের আবাস। এছাড়াও, বিন্টুরংকে প্রায়ই বিয়ারক্যাট বা ভালুক-বিড়াল বলা হয়। বাংলাদেশ, ভুটান, বার্মা, কম্বোডিয়া, চীন, ভারত, ইন্দোনেশিয়া, লাওস, মালয়েশিয়া, নেপাল, ফিলিপাইন, শ্রীলঙ্কা, থাইল্যান্ড, ভিয়েতনাম প্রভৃতি দেশে প্রাণীটিকে দেখা যায়।

বিন্টুরংয়ের ঘন ও কালো রঙের লোম রয়েছে। বাঁকানো, লম্বা লেজ এবং মুখে লম্বাটে ও সাদা রঙের লোম আছে। তারা কোন কিছুকে আঁকড়ে ধরতে হাতের বিকল্প হিসেবে লেজ ব্যবহার করে। এরা প্রায় ৫ ফুট (১.৫ মিটার) পর্যন্ত লম্বা হতে পারে।

Comments

The Daily Star  | English

Hasina writes back to Biden

Prime Minister Sheikh Hasina has written back to US President Joe Biden

30m ago