৯০ হাজারের বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশে এসেছে

মিয়ানমারের উত্তর পশ্চিমাঞ্চলীয় রাখাইন রাজ্যে গত আগস্টে নতুন করে সহিংসতা শুরুর পর থেকে ৯০ হাজারের বেশি সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা সীমান্ত পার হয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে। প্রাণে বাঁচতে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা এসব লোকজন ত্রাণ ও প্রয়োজনীয় মানবিক সহায়তার সংকটের মধ্যেই দিনাতিপাত করছেন। বিশেষ করে আগের সহিংসতার সময় থেকেই হাজার হাজার রোহিঙ্গা বাংলাদেশের শরণার্থী ক্যাম্পগুলোতে অবস্থান করছেন। নতুন আসা শরণার্থীরা সেই পরিস্থিতিকে আরো জটিল করে তুলছেন।
কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় সোমবার ট্রাক থেকে নামছে একটি রোহিঙ্গা পরিবার। মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে নির্যাতনের হাত থেকে বাঁচতে হাজার হাজার রোহিঙ্গা সীমান্ত পাড়ি দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করছে। ছবি: আনিসুর রহমান

মিয়ানমারের উত্তর পশ্চিমাঞ্চলীয় রাখাইন রাজ্যে গত আগস্টে নতুন করে সহিংসতা শুরুর পর থেকে ৯০ হাজারের বেশি সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা সীমান্ত পার হয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে। প্রাণে বাঁচতে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা এসব লোকজন ত্রাণ ও প্রয়োজনীয় মানবিক সহায়তার সংকটের মধ্যেই দিনাতিপাত করছেন। বিশেষ করে আগের সহিংসতার সময় থেকেই হাজার হাজার রোহিঙ্গা বাংলাদেশের শরণার্থী ক্যাম্পগুলোতে অবস্থান করছেন। নতুন আসা শরণার্থীরা সেই পরিস্থিতিকে আরো জটিল করে তুলছেন।

গত ২৫ আগস্ট রাখাইন রাজ্যে সেনাবাহিনী ও পুলিশের কয়েক ডজন ফাঁড়িতে রোহিঙ্গা বিদ্রোহীদের সমন্বিত হামলার পর থেকে সংঘাত তীব্র রূপ নিয়েছে। তখন থেকে মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর অভিযানে অন্তত ৪০০ জন নিহত হয়েছেন বলে দেশটির সরকারি হিসাবে বলা হচ্ছে। রাখাইন রাজ্যে সহিংসতার জন্য দেশটির সেনাবাহিনী রোহিঙ্গাদের দায়ী করলেও মানবাধিকার কর্মী ও বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গারা তাদের ওপর নির্যাতনের করুণ বর্ণনা দিয়েছেন। বাংলাদেশে পালিয়ে আসা লোকজন বলছেন, মিয়ানমারের সেনাবাহিনী ঘরবাড়িতে অগ্নিসংযোগ করছে ও হত্যাযজ্ঞ চালাচ্ছে। রোহিঙ্গাদের দেশছাড়া করতে তারা এমন নির্যাতন চালাচ্ছে বলেও অভিযোগ হতভাগ্য রোহিঙ্গাদের।

বৌদ্ধ সংখ্যাগরিষ্ঠ মিয়ানমারে ১১ লাখ রোহিঙ্গার বসবাস। মিয়ানমার সরকার এই রোহিঙ্গাদের নিজ দেশের নাগরিক মনে করে না। সব ধরনের নাগরিক অধিকার থেকে বঞ্চিত এই জনগোষ্ঠীটির প্রতি সুবিচার করতে না পারার অভিযোগ করছে পাশ্চাত্যের সমালোচকরা। রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধানে বের করতে দেশটির গণতন্ত্রপন্থি নেত্রী অং সাং সুচির ওপর আন্তর্জাতিক চাপ রয়েছে। এমনকি তিনি সমস্যাটির সমাধানে কার্যকর কিছু করতে ব্যর্থ হচ্ছেন এমন অভিযোগও উঠছে।

Click here to read the English version of this news

Comments

The Daily Star  | English

Sundarbans cushions blow

Cyclone Remal battered the coastal region at wind speeds that might have reached 130kmph, and lost much of its strength while sweeping over the Sundarbans, Met officials said. 

3h ago