শিক্ষার্থী-ব্যবসায়ী সংঘর্ষ: সাংবাদিক, পুলিশসহ আহত অন্তত ৬০

ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে নিউমার্কেটসহ আশপাশের ব্যবসায়ীদের সংঘর্ষের ঘটনায় সাংবাদিক ও পুলিশসহ অন্তত ৬০ জন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।
ছবি: প্রবীর দাশ/স্টার

ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে নিউমার্কেটসহ আশপাশের ব্যবসায়ীদের সংঘর্ষের ঘটনায় সাংবাদিক ও পুলিশসহ অন্তত ৬০ জন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

আজ মঙ্গলবার কমপক্ষে ৪০ জন ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন ঢামেক পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ বাচ্চু মিয়া।

এ ছাড়া সংঘর্ষে অন্তত ২০ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে বলে জানিয়েছেন ডিএমপির রমনা বিভাগের অতিরিক্ত উপকমিশনার হারুন-অর-রশিদ।

সোমবার দিনগত রাত ১১টার পর থেকে আজ মঙ্গলবার বিকেল পর্যন্ত ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে নিউমার্কেটসহ আশপাশের ব্যবসায়ীদের দফায় দফায় সংঘর্ষ হয়।

আজ দুপুর ১টার দিকে একদল দুর্বৃত্ত ঢাকা কলেজের বিপরীত পাশের নূরজাহান মার্কেটের নিচ তলারে কয়েকটি দোকানে আগুন ধরিয়ে দিলে ৪টি দোকান সম্পূর্ণ এবং বেশ কয়েকটি দোকান আংশিক পুড়ে পুড়ে যায়। 
 
ব্যবসায়ীদের দাবি তারা সরকারের জরুরি সেবা নম্বর ৯৯৯ ও ফায়ারা সার্ভিসের নম্বরে ফোন দিলেও ফায়ার সার্ভিস সেখানে অনেক দেরিতে পৌঁছায়। 

এ বিষয়ে ফায়ার সার্ভিসের ডিউটি অফিসার দেওয়ান আজাদ দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'রাস্তায় যানজট ছিল, বিক্ষোভ ছিল, তাই পৌঁছতে কিছুটা দেরি হতে পারে।'

বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির সভাপতি হেলাল উদ্দিন দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'ছাত্রদের সঙ্গে আমাদের কোনো বিরোধ নেই। তবে ছাত্র নামধারী একটি রাজনৈতিক দলের কিছু ক্যাডাররা ধীর্ঘদিন ধরে ব্যবসায়ীদের মারধর, চাঁদাবাজি করে আসছিল। গতকালকের ঘটনার পর দীর্ঘদিনের পুঞ্জিভূত ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশ করা হয়েছে। যেটা উচিত হয়নি।'

এ ছাড়া আনোয়ার খান মডার্ন মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে একটি অ্যাম্বুলেন্স রোগী নিয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজের দিকে যাওয়ার পথে হামলায় অ্যাম্বুলেন্সে থাকা রোগীসহ ৬ যাত্রী আহত হয়েছেন। 

অ্যাম্বুলেন্সের চালক জাহাঙ্গীর আলম দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'অপারেশনের রোগী নিয়ে যাওয়ার পথে তাদের ওপর হামলা চালানো হয়। এতে রোগীর মাথা ফেটে গেছে।'
 
সংঘর্ষের বিষয়ে পুলিশের রমনা জোনের অতিরিক্ত উপকমিশনার (এডিসি) হারুন অর রশীদ দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, সংঘর্ষের ঘটনায় অন্তত ২০ জনের বেশি পুলিশ সদস্য আহত হয়ে রাজারবাগ পুলিশ লাইন্সে চিকিৎসা নিয়েছেন। তাদের বেশির ভাগই ইটের আঘাতে আহত।

এ ছাড়া সংঘর্ষের সময় নিউ মার্কেল এলাকা ও মিরপুর রোডে ২০টার মতো গাড়ি ভাঙচুর করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা।

সোমবার রাতে নিউমার্কেটের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে ঢাকা কলেজের ছাত্রদের সংঘর্ষ বাধে। দিনগত রাত ১২টা থেকে আড়াইটা পর্যন্ত চলে সংঘর্ষ। এরপর আজ মঙ্গলবার সকালে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে আবারও সংঘর্ষ  শুরু হয়ে ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের, থেমে থেমে চলে সংঘর্ষ। দুপুর ১টার দিকে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতির নিয়ন্ত্রণ নেয়। তারা ২ পক্ষকে ২ দিকে সরিয়ে দেয়। তবে শিক্ষার্থী ও ব্যবসায়ীরা এখনো আক্রমণাত্মক অবস্থায় রয়েছে। 

 

 

Comments

The Daily Star  | English

1.6m marooned in Sylhet flood

Eid has not brought joy to many in Sylhet region as homes of more than 1.6 million people were flooded and nearly 30,000 were forced to move to shelter centres.

2h ago