হেলেই আছে লালমনিরহাটের রত্নাই সেতু

একদিকে হেলে পড়ায় ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠেছে লালমনিরহাট-মোগলহাট সড়কে রত্নাই নদীর ওপর নির্মিত সেতুটি।
ছবি: স্টার

একদিকে হেলে পড়ায় ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠেছে লালমনিরহাট-মোগলহাট সড়কে রত্নাই নদীর ওপর নির্মিত সেতুটি।

স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, লালমনিরহাট সদর উপজেলার মোগলহাট ইউনিয়নের দুড়াকুটি এলাকার এই সেতুটি দীর্ঘদিন ধরে একই অবস্থায় থাকলেও রক্ষণাবেক্ষণকারী সংস্থা সড়ক ও জনপথ বিভাগ এর সংস্কারের জন্য কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে না।

তারা বলছেন, ২ বছর আগে ২৮ কোটি টাকা ব্যয়ে লালমনিরহাট-মোগলহাট সড়কটি প্রশস্ত করা হলেও ঝুঁকিপুর্ণ রত্নাই সেতুটি সংস্কার করা হয়নি। ফলে সেতুটির ওপর দিয়ে কোনো ভারী যানবাহন চলাচল করতে পারছে না। এ কারনে লালমনিরহাট থেকে মোগলহাট ও দুর্গাপুরসহ বিভিন্ন জায়গায় মালামাল পরিবহন করতে বেগ পাচ্ছেন স্থানীয় ব্যবসায়ীরা।

মোগলহাট এলাকার ব্যবসায়ী শাহা আলম এ ব্যাপারে দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'ঝুঁকিপুর্ণ রত্নাই সেতুর ওপর দিয়ে ট্রাক চলাচল করতে না পারায় আমাদের হালকা যানবাহনে করে পণ্য আনতে হয়। একইভাবে উৎপাদিত কৃষি পণ্যও নিয়ে যেতে হয় হালকা যানবাহনে করে। এতে করে মালামাল পরিবহনের জন্য সবাইকে বাড়তি খরচ বহন করতে হয়। তাই সরকার ২৮ কোটি টাকা ব্যয়ে রাস্তা সংস্কার করলেও নড়বড়ে সেতুটির কারণে এর পুরো সুফল আমরা পাচ্ছি না।'

মোগলহাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান জানান, রত্নাই সেতুটি অনেক পুরোনো। কয়েক বছর আগে এর মেয়াদও শেষ হয়ে গেছে। তিনি বলেন, 'এ বিষয়ে সড়ক ও জনপথ বিভাগের সঙ্গে কয়েক দফায় যোগাযোগ করা হলেও কোনো সমাধান আসেনি।'

অবশ্য  লালমনিরহাট সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী খালিদ সাইফুল্লাহ সরদার জানান, এ এলাকায় রত্নাই নদীর ওপর নতুন একটি সেতু নির্মানের অনুমোদন ও অর্থ বরাদ্দ পাওয়া গেছে।

ডেইলি স্টারকে তিনি বলেন, '১২ কোটি টাকা ব্যয়ে ৪৭ মিটার দৈর্ঘ্যের নতুন এই সেতুটি নির্মাণ করা হবে। চলতি বছরের সেপ্টেম্বর মাসেই সেতু নির্মাণের কাজ শুরুর প্রস্তুতি আছে।'

Comments

The Daily Star  | English

Piled-up import containers congest Ctg port

Slow container delivery from the port created the problem

2h ago