রোগ

মাঙ্কিপক্সের টিকার অনুমোদন দিলো ইইউ

ডেনমার্কের প্রতিষ্ঠান বাভারিয়ান নর্ডিকের ‘ইমভানেক্স’ ভ্যাকসিন ইউরোপীয় ইউনিয়নের গভর্নিং বডি ইউরোপীয় কমিশনের অনুমোদন পেয়েছে।
বাভারিয়ানের একজন কর্মী মাঙ্কিপক্সের ভ্যাকসিন নিয়ে কাজ করছেন
বাভারিয়ানের একজন কর্মী মাঙ্কিপক্সের ভ্যাকসিন নিয়ে কাজ করছেন। ছবি: রয়টার্স

ডেনমার্কের প্রতিষ্ঠান বাভারিয়ান নর্ডিকের 'ইমভানেক্স' ভ্যাকসিন ইউরোপীয় ইউনিয়নের গভর্নিং বডি ইউরোপীয় কমিশনের অনুমোদন পেয়েছে।

গতকাল সোমবার বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ তথ্য জানায়।

গত সপ্তাহে দ্য ইউরোপিয়ান মেডিসিনস এজেন্সি (ইএমএ) বিশ্বজুড়ে দ্রুত ছড়াতে থাকা রোগ মাঙ্কিপক্সের বিরুদ্ধে সুরক্ষা-প্রক্রিয়া হিসেবে এই পণ্য বিপণনের সুপারিশ করেছিল।

গত শনিবার মাঙ্কিপক্সের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় বিশ্বব্যাপী স্বাস্থ্যগত জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেন ডব্লিউএইচও প্রধান তেদরোস আধানম গেব্রেয়াসুস। এরপরই এলো নতুন এই ভ্যাকসিনের অনুমোদন।

বাভারিয়ানের প্রধান নির্বাহী পল চ্যাপলিন গণমাধ্যমকে বলেন, 'একটি অনুমোদিত ভ্যাকসিন দেশগুলোকে এই ক্রমবর্ধমান রোগের বিরুদ্ধে প্রস্তুত থাকতে বিশেষভাবে সহায়তা করবে। তবে, এ ক্ষেত্রে বিনিয়োগ ও সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনার বিকল্প নেই।'

ইমভানেক্স ইতোমধ্যে মাঙ্কিপক্সের প্রতিরোধক হিসেবে যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডায় অনুমোদন পেয়েছে। এতদিন ইউরোপে এটি শুধু স্মল পক্স প্রতিরোধে ব্যবহৃত হচ্ছিল।

ইইউ সদস্যভুক্ত বিভিন্ন দেশে মাঙ্কিপক্সের প্রাদুর্ভাব বেড়ে যাওয়ায় অনানুষ্ঠানিকভাবে এই টিকা সরবরাহ করেছে বাভারিয়ান।

বাভারিয়ান নর্ডিক লিখিত বিবৃতিতে জানিয়েছে, ইউরোপীয় ইউনিয়নের সব দেশের পাশাপাশি এই টিকা আইসল্যান্ড, লিখটেনস্টেইন ও নরওয়েতেও ব্যবহারের অনুমতি পেয়েছে।

ছবি: রয়টার্স

প্রতিষ্ঠানটি আরও জানায়, গত ২ দশকে মার্কিন সরকারের কাছ থেকে আসা উল্লেখযোগ্য পরিমাণ বিনিয়োগের কারণে ইমভানেক্স আলোর মুখ দেখতে পেরেছে।

মাঙ্কিপক্স ভ্যাকসিনের চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় গত ৩ মাসে বাভারিয়ানের শেয়ারের মূল্য ১২২ শতাংশ বেড়েছে।

 

Comments