চ্যানেল আই মিউজিক এ্যাওয়ার্ড যারা পেলেন

জমকালো আয়োজনে ১২তম চ্যানেল আই মিউজিক এ্যাওয়ার্ড ঘিরে গতকাল (২৯ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বসেছিল দেশের সংগীতসহ বিভিন্ন অঙ্গনের তারকাদের মিলনমেলা।
Channel-i music awards
বরেণ্য সংগীতশিল্পী মোহাম্মদ খুরশীদ আলমকে আজীবন সম্মাননা দেওয়া হয় ১২তম চ্যানেল আই মিউজিক এ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে। ছবি: সংগৃহীত

জমকালো আয়োজনে ১২তম চ্যানেল আই মিউজিক এ্যাওয়ার্ড ঘিরে গতকাল (২৯ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বসেছিল দেশের সংগীতসহ বিভিন্ন অঙ্গনের তারকাদের মিলনমেলা।

অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন ফারজানা ব্রাউনিয়া, পরিচালনায় ছিলেন ইজাজ খান স্বপন। অনুষ্ঠানে বরেণ্য সংগীতশিল্পী মোহাম্মদ খুরশীদ আলমকে আজীবন সম্মাননা দেওয়া হয়। শিল্পীর হাতে স্মারক তুলে দেন স্বনামধন্য সংগীতশিল্পী ফেরদৌসী রহমান। সম্মাননা পত্র তুলে দেন কণ্ঠশিল্পী সৈয়দ আবদুল হাদী ও ট্রান্সকম বেভারেজ লিমিটেডের পরিচালক খুরশিদ ইরফান চৌধুরী।

অনুষ্ঠানে বিশেষ সম্মাননা দেওয়া হয় কণ্ঠশিল্পী শাম্মী আখতারকে। দেশের চার গুণী সংগীতপরিচালক আলাউদ্দিন আলী, শেখ সাদী খান, আলম খান ও আলী হোসেনকেও সম্মাননা দেওয়া হয়। তাঁরা তাঁদের সেরা গানের কয়েকটি লাইন স্বকণ্ঠে পরিবেশন করে দর্শক-শ্রোতাদের মুগ্ধ করেন।

অনুষ্ঠানের সূচনা হয় সানী জুবায়ের এর সংগীত পরিচালনায় বর্ষাবিষয়ক কয়েকটি গান দিয়ে। অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করেন শফি মণ্ডল, মমতাজ ও রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা। একক সঙ্গীত পরিবেশন করেন নগর বাউল জেমস। ছিল চিত্রনায়িকা পূর্ণিমা ও কণ্ঠশিল্পী ইমরানের পরিবেশনা। ত্রিশজন সহশিল্পীকে নিয়ে ছিল অপু বিশ্বাসের বিশেষ পরিবেশনা।

সংগীতের ১৩টি বিভাগে ক্রিটিক এ্যাওয়ার্ড ও পাঁচটি বিভাগে পপুলার চয়েস এ্যাওয়ার্ডসহ মোট ১৮টি এ্যাওয়ার্ড দেওয়া হয় এবারের অনুষ্ঠানে।

এক নজরে পুরস্কার পেলেন যারা: (ক্রিটিক) রবীন্দ্রসংগীত - অণিমা রায়, (অ্যালবাম- মাতৃভূমি); নজরুলসংগীত - নাশিদ কামাল (অ্যালবাম- গানে গানে নজরুলের জীবনী); লোকসংগীত- শফি মণ্ডল (অ্যালবাম- অধরা), শ্রেষ্ঠ গীতিকার- আসিফ ইকবাল (অ্যালবাম- মুন এর গান- তুই আমার মন ভালোরে); সংগীতপরিচালক- শফিক তুহিন (অ্যালবাম- চুপকথা রূপকথা, গান- নীল সামিয়ানা), মিউজিক ভিডিও- তানীম রহমান অংশু (অ্যালবাম ও গান- ঝুম); কভার ডিজাইন- নাহিদ (নকশী কাঁথার গান); সাউন্ড ইঞ্জিনিয়ার- পাভেল আরীন (খেয়াল পোকা), উচ্চাঙ্গসংগীত (কণ্ঠ)- প্রিয়াংকা গোপ; আধুনিক গান- ফাহমিদা নবী (অ্যালবাম- সাদা কালো, গান- অন্ধকার); সেরা ব্যান্ড- পার্থিব (অ্যালবাম- স্বাগত বাংলাদেশ); নবাগত শিল্পী- মেহেদী হাসান (অ্যালবাম- আয়না ফিরে, গান- ইচ্ছেগুলো রাজি) এবং ছায়াছবির গান- জেমস (গান- বিধাতা, ছায়াছবি- সুইটহার্ট)।

যাঁরা পেলেন পপুলার চয়েস পুরস্কার: আধুনিক গান- কুমার বিশ্বজিৎ (অ্যালবাম- স্বপ্ন সমুদ্দুর, গান- কখনও তো বলিনি); নবাগত শিল্পী- শাহিন খান (আনকোরা); সেরা ব্যান্ড- অবসকিওর (ক্র্যাক প্লাটুন); ছায়াছবির গান- ইমরান (মুসাফির, গান- আলতো ছোঁয়াতে) এবং মিউজিক ভিডিও- রোম্য খান (অ্যালবাম- মেঘেরা, গান- মেঘেরা ঢাক ঢোল বাজিয়ে)।

এই পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানটি আগামী ৬ অক্টোবর চ্যানেল আইতে প্রচারিত হবে।

Comments

The Daily Star  | English

Youth killed falling into canal in Ctg

A young man was killed falling into a canal in the Asadganj area of port city this afternoon

50m ago